ঢাকা, রবিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ সফর ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ষড়যন্ত্রকারীদের পরাজিত করার মূলমন্ত্র বঙ্গবন্ধুর আদর্শ

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০২০
ষড়যন্ত্রকারীদের পরাজিত করার মূলমন্ত্র বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বক্তব্য দেন অ্যাডভোকেট জিনাত সোহানা চৌধুরী।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম করোনা আইসোলেশন সেন্টারের মুখপাত্র অ্যাডভোকেট জিনাত সোহানা চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের পরাজিত করার মূলমন্ত্র হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ।


তিনি বলেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তি এখনও দেশ ও জাতির অব্যাহত অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে নানা অপকৌশলে লিপ্ত রয়েছে।

স্বাধীনতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী এবং উন্নয়ন ও গণতন্ত্রবিরোধী চক্রের যেকোনো অপতৎপরতা ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করতে হবে।


শনিবার (১৫ আগস্ট) জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম করোনা আইসোলেশন সেন্টারে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।


সোহানা বলেন, বঙ্গবন্ধু আত্মপ্রত্যয়ী ও আত্মনির্ভরশীল জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার এক অসাধারণ কারিগর। তিনি পরিণত জাতিসত্তা নির্মাণের দার্শনিক। মৃত্যুর মুখোমুখি দাঁড়িয়েও স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নপূরণে অবিচল থেকেছেন বঙ্গবন্ধু। তার আদর্শ ও চরিত্র আমাদের কর্মে ও জীবনে প্রতিফলিত করতে হবে।


করোনা আইসোলেশন সেন্টারের প্রধান সমন্বয়ক নূরুল আজিম রনি বলেন, এ জাতি পথ হারিয়েছিল আগস্টেই। আগস্টেই রচিত হয়েছিল বাঙালির ইতিহাসের এক কলঙ্কিত-কালো অধ্যায়। আগস্টেই বঙ্গবন্ধুকে থামিয়ে দিয়েছিল বর্বর হায়েনার দল।  


‘কিন্তু বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের পথ চলা থামাতে পারেনি কেউ। বঙ্গবন্ধু ক্ষুধা, দারিদ্র্য, নিরক্ষরতা, দুর্নীতি এবং শোষণমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়ার যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিলেন- বাংলাদেশ সেই পথেই এগিয়ে চলেছে। ’


করোনা আইসোলেশন সেন্টারের পরিচালক গোলাম সামদানী জনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হয়তো আমরা আর পাবো না। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে দীপ্ত শপথ নিতে পারি এই আগস্টেই। তাই আগস্টের এই শোক হোক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার শক্তি।


সভাপতির বক্তব্যে সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ইতিহাসের দীর্ঘ পথ পেরিয়ে বাঙালি জাতি পিতৃহত্যার বিচার পেয়েছে। জাতির জনক হত্যার রায় কার্যকরের মাধ্যমে জাতি কলঙ্কমুক্ত হলেও এখনো কয়েকজন ঘৃণ্য অপরাধী ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে।  


‘এসব অপরাধীদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকরের উদ্যোগ নিলে জাতির পিতার হত্যাকাণ্ডের পূর্ণাঙ্গ বিচার সম্পন্ন হতে পারে। ’


এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নুরুজ্জামান, সাদ শাহরিয়ার, মিজানুর রহমান মিজান, শাহজাদা চৌধুরী, তাজুল ইসলাম শিবলী, ঐশিক পাল জিতু, তৌহিদুল ইসলাম, আহমেদ অভি প্রমুখ।


বাংলাদেশ সময়: ১৪৩০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০২০
এমআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa