ঢাকা, বুধবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

দুই মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা বাবার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৪ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০২০
দুই মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা বাবার

চট্টগ্রাম: পটিয়া উপজেলার কাশিয়াইশ এলাকায় দুই মেয়েকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক বাবা। শ্বাসরোধে দুই মেয়েকে হত্যা করে তিনি বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান।

বুধবার (১ জুলাই) ভোরে কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো- কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও এলাকার মুকুন্দ বড়ুয়ার মেয়ে টুকু বড়ুয়া (১৫) ও নিশি বড়ুয়া (১০)।

টুকু বড়ুয়া ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ও নিশি বড়ুয়া ৫ম শ্রেণির ছাত্রী বলে বাংলানিউজকে জানিয়েছেন ৮ নম্বর ভান্ডারগাঁও ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. ইউসুফ।

তিনি বলেন, বুধবার ভোরে দুই মেয়েকে গলাটিপে হত্যার পর মুকুন্দ বড়ুয়া নিজে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান বলে জানতে পেরেছি। মুকুন্দ বড়ুয়া দুই মেয়েকে হত্যার পর বাড়িতেই অবস্থান করছেন। পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছি। তারা এসে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

ইউপি সদস্য মো. ইউসুফ জানান, ৫ বছর আগে মুকুন্দ বড়ুয়ার স্ত্রী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তারপর থেকে দুই মেয়েকে নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন তিনি।

পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বোরহান উদ্দীন বাংলানিউজকে বলেন, কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও এলাকার মুকুন্দ বড়ুয়া নামে এক ব্যক্তি তার দুই মেয়েকে গলাটিপে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।

তিনি কী কারনে এটি করলেন এখনও জানতে পারিনি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কারণ জানা যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৭ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০২০
এসকে/এমআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa