বন্দর ছাড়লো লাল-সবুজ পতাকাবাহী 'সাহারে'

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

এমভি 'সাহারে'

walton

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশি পতাকাবাহী দ্বিতীয় কনটেইনারবাহী জাহাজ 'এমভি সাহারে' ১ হাজার ২৮৫ টিইইউ'স নিয়ে সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার পোর্ট কেলাং অভিমুখে যাত্রা শুরু করেছে।

সোমবার (২৯ জুন) বিকেল সোয়া পাঁচটায় চট্টগ্রাম বন্দরের জেটি ত্যাগ করে জাহাজটি।

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, কর্ণফুলী গ্রুপের মালিকানাধীন বাংলাদেশি পতাকাবাহী দুইটি কনটেইনার জাহাজের মধ্যে 'সাহারে' গত ২৭ জুন বিকেল সোয়া চারটার দিকে বন্দরের সিসিটি-৩ নম্বর জেটিতে ভিড়ে। এ সময় জাহাজটি খালি এসেছিলো। পরদিন জাহাজটি নিউমুরিং কনটেইনার টার্মিনালে জাহাজটি স্থানান্তর করা হয়। সেখানে ১০৪ বক্সে ১৫৬ টিইইউ' স রফতানি পণ্যভর্তি ও ৭৭ বক্সে ৮৯ টিইইউ'স খালি কনটেইনার লোড করা হয়। 

এরপর জাহাজটি এনসিটি-২ জেটিতে আনা হয় রোববার (২৮ জুন)। সেখানে ২১৭ বক্সে ৩৭৬ টিইইউ'স রফতানি পণ্য ভর্তি ও ৪৬৭ বক্সে ৬৬৪ টিইইউ'স খালি কনটেইনার লোড করা হয়।

বন্দরের সিসিটি ও এনসিটির হ্যান্ডলিংয়ের দায়িত্বে থাকা সাইফ পাওয়ার টেকের সিওও ক্যাপটেন তানভির বাংলানিউজকে জানান, সাড়ে ৪৮ ঘণ্টা জাহাজটি বন্দরের জেটিতে ছিলো। এর মধ্য ৮৬৫ বক্সে ১ হাজার ২৮৫ টিইইউ'স কনটেইনার লোড করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, এক দশক পর বাংলাদেশি পতাকাবাহী কনটেইনার জাহাজ 'এমভি সারেরা' ও 'এমভি সাহারে' নিয়ে চালু হয়েছে বাংলাদেশ এক্সপ্রেস সার্ভিস। চট্টগ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার পোর্ট কেলাং বন্দরে কনটেইনার আনা-নেওয়া করবে জাহাজ দু’টি। এর ফলে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়, নাবিকদের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি  মেরিটাইম বিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম বেড়েছে।

গত ২৩ জুন ১ হাজার ২৬১ টিইইউ'স কনটেইনার নিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর ছেড়ে যায় 'এমভি সারেরা'

বাংলাদেশ সময়: ২৩৩০ ঘণ্টা, জুন ২৯, ২০২০
এআর/টিসি

Nagad
পাকুন্দিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু বরখাস্ত
বেনাপোলে সাড়ে ৩ মাস পর রপ্তানি বাণিজ্য সচল
ইতালির রোমে বিমানের চার্টার্ড ফ্লাইট ১৩ জুলাই 
বগুড়ায় কমছে যমুনা ও বাঙ্গালী নদীর পানি
অনলাইনে ক্লাস: ৭ দাবিতে উপাচার্যের কাছে স্মারকলিপি


২০২১ সালের আগে বাজারে আসছে না ভারতের করোনা ভ্যাকসিন
মূল প্ল্যাটফর্মে তালিকাভুক্ত হচ্ছে পারপিচুয়াল বন্ড
রামোসের গোলে শীর্ষস্থান আরও মজবুত করল রিয়াল
দুই ব্যাংকের ৮০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন
হাইকোর্টে ভার্চ্যুয়াল শুনানিতে আরও দুই বেঞ্চ