চট্টগ্রাম অঞ্চলে ১০ ভাগ ধান কাটা নিয়ে দিশেহারা কৃষক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফাইল ছবি

walton

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুর অঞ্চলে ৯০ ভাগ ধান কাটা শেষ হয়েছে। বাকি ১০ ভাগ ধান কাটা না হওয়ায় চিন্তিত কৃষকরা। ঘূর্ণিঝড় আম্পান আঘাত আনলে এ ১০ ভাগ ধান ভেস্তে যাওয়ার আশঙ্কায় দিশেহারা কৃষকরা।

মঙ্গলবারের (১৯ মে) মধ্যে একটু কাঁচা থাকলেও ধান কেটে ফেলার জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর থেকে কৃষকদের বলা হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, পাঁচ অঞ্চলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ধান কাটা বাকি রয়েছে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার জেলায়। এ দুই অঞ্চলে বোরো ধান দেরিতে রোপণ করায় এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা তাদের বলেছি, একটু কাঁচা থাকলেও আজকের মধ্যে ধান কেটে ফেলার জন্য। কারণ ঘূর্ণিঝড় আম্পান আঘাত করলে এ ১০ ভাগ ধান ভেস্তে যেতে পারে।

এবার হাইব্রিড, উফশী ও স্থানীয় কয়েক জাতসহ পার হেক্টরে ১০ দশমিক ৭ শতাংশ মেট্রিক টন ধান পাওয়া গেছে।

পাঁচ অঞ্চলে দুই লাখ ৪১ হাজার হেক্টর জমিতে চাষের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এ বছর ২ লাখ ৩০ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ হয়। গড়ে হাইব্রিডে পার হেক্টরে ৪ দশমিক ৭৬ শতাংশ, উফশিতে ৩ দশমিক ৮২ শতাংশ ও অন্যান্য ২ দশমিক ১২ শতাংশ অর্থাৎ মোট ১০ দশমিক ৭ শতাংশ ধান পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৫ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২০
জেইউ/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
৭ জুন বাঙালির মুক্তির সনদ ‘৬ দফা’ দিবস 
ছয় দফা আন্দোলন শুরু
ইতিহাসের এই দিনে

ছয় দফা আন্দোলন শুরু

করোনা মোকাবিলায় সরকারের মন্ত্রী-শীর্ষ কর্মকর্তাদের বৈঠক
করোনা প্রতিরোধের উপায় জানালেন ভারতের বিখ্যাত দুই ডাক্তার 
লেভারকুসেনকে হারিয়ে শিরোপার আরও কাছে বায়ার্ন


করোনা উপসর্গ নিয়ে সীতাকুণ্ডে ৩ জনের মৃত্যু
এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করে আত্মগোপন, ৫ দিন পর উদ্ধার
রাঙ্গুনিয়া পুলিশ গেলো লকডাউনে, রোগী তখন শহরে
ভোটের ফল দ্রুত প্রকাশ করতে কিউআর কোড
মহাসড়কে চাঁদাবাজির অভিযোগে পাল্টা-পাল্টি সংবাদ সম্মেলন