লাইভ ব্রডকাস্টিংয়ে চলছে ইডিইউর একাডেমিক কার্যক্রম

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ভার্চুয়াল ক্লাসে পাঠদানরত সহকারী অধ্যাপক তাবাসসুম চৌধুরী।

walton

চট্টগ্রাম: কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারের নির্দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘোষণার প্রেক্ষিতে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটিতে (ইডিইউ) শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে উপস্থিতি বন্ধ করা হলেও থেমে নেই নিয়মিত ক্লাস কার্যক্রম।

ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাজীবন যাতে ব্যাহত না হয়, তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত রুটিনের সব ক্লাসই লাইভ ব্রডকাস্টিংয়ের মাধ্যমে নেওয়া হচ্ছে। ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে প্রত্যেক শিক্ষার্থী যেমন ফ্যাকাল্টির পাঠদান সরাসরি দেখতে ও শুনতে পাচ্ছে, তেমনই ক্লাসরুমের মতোই মুখে বলে বা লিখে প্রশ্ন করে এবং আলোচনার মাধ্যমে আরো গভীরভাবে বুঝে নিতে পারছে টপিকগুলো। এছাড়া ভর্তিসংক্রান্ত যাবতীয় সহযোগিতাসহ সার্বিক কার্যক্রমে সবসময়ের মতোই অনলাইন সুবিধা গ্রহণ করতে পারছেন আগ্রহীরা।

তবে, ভার্চুয়াল ক্লাস নেওয়ার এ ব্যবস্থা ইডিইউতে এবারই প্রথম নয় বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান। ২০১৪-১৫ সালের হরতাল-অবরোধ ও রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতায় যখন শিক্ষার্থীদের ক্লাসে নিয়মিত যোগ দেওয়া দুরূহ হয়ে উঠেছিলো, তখনই অনলাইনে ক্লাস কার্যক্রম পরিচালনার উদ্যোগ নেয় ইডিইউ।

তিনি বলেন, ‘এরপর থেকেই সরাসরি ক্লাসের পাশাপাশি ভার্চুয়াল ক্লাসের ধারাবাহিকতা আমরা ধরে রেখেছি। ফলে বর্তমান মহামারী পরিস্থিতিতে সরকারের ঘোষণা আসার আগেই আমরা পুরো কার্যক্রম অনলাইনে নিয়ে যাওয়ার সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করতে পেরেছি এবং ঘোষণার পরবর্তী কার্যদিবস থেকেই তা কার্যকর করতে সক্ষম হই। সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সন্নিবেশ ঘটিয়ে এই ভার্চুয়াল রিয়েলিটির ব্যবস্থা করেছি যাতে শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসের ক্লাসরুমের মতোই অনুভূতি দেওয়া যায়।’

এছাড়া, ইডিইউর বিশেষায়িত মাস্টার্স প্রোগ্রাম পাবলিক পলিসি অ্যান্ড লিডারশিপে ক্যাম্পাসে এসে ক্লাস নেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনেও পাঠদান করছেন বিশ্বের বেশ কয়েকটি উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসররা।

গত বছরই ইডিইউতে সংযুক্ত করা হয় ইন্টারনেটভিত্তিক প্লেজারিজম ডিটেকশন সফটওয়্যার ‘টার্নইটইন’। এর মাধ্যমে যাবতীয় অ্যাসাইনমেন্ট ও গবেষণাপত্র নিজ নিজ সুপারভাইজারের কাছে জমা দেয় শিক্ষার্থীরা।

ইডিইউর উপাচার্য অধ্যাপক মু. সিকান্দার খান বলেন, ‘ইডিইউতে বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মতোই অনলাইনে পাঠদানের চর্চা আমাদের দীর্ঘদিনের। বর্তমান পরিস্থিতিতে সেই চর্চা ইডিইউকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়েছে।’

কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষার্থী অর্চিতা চক্রবর্তী জানান, ‘সরকারের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ঘোষণা যখন দেওয়া হয়, আমরা বন্ধুরা ভেবেছিলাম দীর্ঘ সময়ের জন্য একাডেমিক স্থবিরতার সম্মুখীন হতে যাচ্ছি। কিন্তু সরকারের নির্দেশনার পরপরই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভার্চুয়াল ক্লাসের ঘোষণা দেওয়ায় আমরা নিশ্চিন্ত হই।’

অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করায় ইডিইউ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিবিএ’র শিক্ষার্থী মুনতাসির হাসনাত বলেন, ‘ক্লাসরুমের পাঠদানের মতোই স্বতঃস্ফূর্ত ভার্চুয়াল ক্লাসগুলো। বর্তমান দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে প্রযুক্তির নতুন নতুন দ্বার উন্মোচিত হচ্ছে আমাদের সামনে।’

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০২০
এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শনে নওফেল
কমলনগরে বাড়ি গিয়ে ত্রাণ দিচ্ছেন চেয়ারম্যান-ইউএনও
গুজব ছড়ানোয় রাজশাহীতে ২৩ জনের জরিমানা
মারা গেলেন করোনা সন্দেহে ঢাকায় পাঠানো সেই ব্যক্তি 
ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ডোর টু ডোর যাচ্ছেন মেয়র নাছির


কুমিল্লায় সচেতনতামূলক ভিডিও প্রচার-খাদ্য বিতরণ সেনাবাহিনীর
রামজান উপলক্ষে বুধবার থেকে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু
চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের যাতায়াতের ব্যবস্থা করবে সিএমপি
করোনা: পোল্ট্রি শিল্পে ক্ষতি ১১৫০ কোটি টাকা
 কবি হাসান হাফিজুর রহমানের প্রয়াণ