ও পলাশ ও শিমুল কেন এ মন মোর রাঙালে…

উজ্জ্বল ধর, সিনিয়র ফটো করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গাছে গাছে পলাশ ফুটে রাঙালো প্রকৃতি। ছবি: উজ্জ্বল ধর/বাংলানিউজ

walton

চট্টগ্রাম: মাটিতে পড়ে থাকা শুকনো পাতাদের পাশ কাটিয়ে জাগবে নতুন প্রাণ। নিষ্প্রাণপ্রায় এই কংক্রিটের শহরে ভালোবাসার সে কুহুস্বরে মুখর পরিবেশে মন যেন কোনো উদাসলোকে হারিয়ে যেতে যায়।

মৃদুমন্দ বাতাসে ভেসে আসা ফুলের গন্ধ জানিয়ে দিয়ে যায়, সত্যি সত্যিই বসন্ত ঋতুর রাজা। উদাস আকুল মন নেচে ওঠে দখিনা হাওয়ায়। সৌরভ তার ভরে দেয় মন-প্রাণ।

ও পলাশ ও শিমুল...ঋতুরাজ বসন্তের আগমনের সঙ্গে প্রকৃতিতে লেগেছে তার ছোঁয়া। ন্যাড়া গাছগুলোতে আসতে শুরু করেছে নতুন পাতা। শিমুল আর পলাশ গাছে ফুটেছে রঙিন ফুল; ফুলের পাপড়ি ছড়িয়ে গ্রামের মেঠো পথকে করে দিচ্ছে রঙিন।

ও পলাশ ও শিমুল...গ্রামবাংলার চিরাচরিত এসব চিত্র একসময় দেখা যেত আমাদের এই নগরেও। ইট-কাঠ-লোহার অট্টালিকার ভিড়ে হারিয়ে গেছে শত প্রজাতির হাজারো ফুল-ফলের বৃক্ষরাজি।

ও পলাশ ও শিমুল...তবে এখনো কিছু গাছের দেখা মিলে চট্টগ্রাম নগরের সিআরবি পাহাড়ে আর পাহাড়তলীর আমবাগান এলাকায়। বসন্তের এই সময়ে গাছগুলো জানান দেয় তাদের সৌন্দর্যের কথা।

ও পলাশ ও শিমুল...বসন্তের পাতাবিহীন ন্যাড়া ডালে আগুনের লেলিহান রক্ত আভায় শোভিত হয়ে এখন যেন দাউ দাউ করে জ্বলছে শিমুল ফুলের সৌন্দর্য। সেই সৌন্দর্যকে আরো রঙিন করে তুলেছে টিয়া, ময়না, হলুদিয়া সহ নানার জাতের পাখির কলতান।

ও পলাশ ও শিমুল...বায়ান্নর ৮ ফাল্গুন তথা একুশের পলাশরাঙা দিনের সঙ্গে তারুণ্যের সাহসী উচ্ছ্বাস আর বাঁধভাঙা আবেগের জোয়ার মিলেমিশে একাকার। তাই ফাগুন এলেই আগুন জ্বলে মনে, ফাগুন এলেই কোকিল ডাকে কুঞ্জে।

ও পলাশ ও শিমুল...প্রকৃতির সেই রূপতরঙ্গে দুলে ওঠে কবিগুরু গেয়ে ওঠেন, ‘ওরে ভাই, ফাগুন লেগেছে বনে বনে’। কবির ভাষা ফুটে উঠে- হলুদিয়া পাখি সোনারি বরণ, পাখিটি ছাড়িল কে? কেউ না জানিলো কেউ না দেখিলো কেমনে পাখি দিয়া যে ফাঁকি, উইড়া গেল হায় চোখের পলকে, পাখিটি ছাড়িল কে…।

ও পলাশ ও শিমুল...তেমনি ন্যাড়া গাছে রক্তবর্ণে রঞ্জিত শিমুল ফুল আর এই ডাল থেকে ওই ডালে উড়ে বেড়ানো হলুদিয়া পাখির সৌন্দর্যের অপরূপ চিত্রে হারিয়ে যায় মন প্রকৃতির সান্নিধ্যে। হলুদিয়া পাখি ন্যাড়া শিমুল গাছের ফুলের মাঝে নিজের লাল ঠোঁটটি দিয়ে মধু সংগ্রহ করে নিতে ছুটছে এক ডাল থেকে আরেক ডালে। এ চিত্রে মন জুড়াবে সবার, বিষণ্নতা হবে দূর।

ও পলাশ ও শিমুল...মানুষের জীবনে ঋতুরাজ বসন্ত নিয়ে আসে প্রেম ও বিদ্রোহের যুগল আবাহন। সে আবাহনে আজ খুলে গেছে দখিনা দুয়ার। মেয়েরা খোঁপায় গাঁদা-পলাশসহ নানা রকম ফুলের মালা গুঁজে বাসন্তী রঙের শাড়ি আর ছেলেরা পাঞ্জাবি-পায়জামা ও ফতুয়ায় শাশ্বত বাঙালির সাজে উৎসবের হাওয়ায় ভেসে বেড়াবে আজ পহেলা ফাল্গুনে।

পড়ুন>> তোমায় হৃদ মাঝারে রাখবো, ছেড়ে দেবো না!

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০
ইউডি/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
মিরপুর ও নারায়ণগঞ্জে করোনা পরিস্থিতি ভয়ংকর
ঢাকার বাইরে করোনা রোগী বেড়েছে
এটিএম বুথগুলোর সামনে ‘সামাজিক দূরত্ব’ মানা হচ্ছে না!
ফেনীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু
বগুড়ায় হতদরিদ্রদের ৫০ বস্তা চালসহ কৃষক লীগ নেতা আটক


সাহায্যের জন্য নগদ অর্থ সংগ্রহ করবেন না: মুখ্যমন্ত্রী
সিলেটে প্রবাস ফেরত যুবককে কুপিয়ে খুন
নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন বাসার ছাদে সারারাত জামাতে নামাজ আদায়
রাজশাহীতে ৩৩৭ জনের নমুনা সংগ্রহ
করোনা মোকাবিলায় ফেনীর প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের সহায়তা