php glass

সম্প্রীতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জঙ্গিবাদ নির্মূল সম্ভব

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য দেন হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাসুম

walton

চট্টগ্রাম: সাম্প্রদায়িক আক্রমণের আড়ালে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তি দেশকে একটি অকার্যকর জঙ্গিরাষ্ট্রে পরিণত করার পরিকল্পনায় লিপ্ত। ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে যুব সমাজকে বিপথে নিয়ে যাওয়ার ষড়যন্ত্র আমাদের সমৃদ্ধি ও শান্তির পথে অন্তরায়। তরুণ সমাজকে আমাদের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সঙ্গে একাত্ম করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে পারলেই জঙ্গিবাদ নির্মূল সম্ভব।

সুচিন্তা বাংলাদেশের জঙ্গিবাদ বিরোধী আলেম-ওলামা-শিক্ষার্থী সমাবেশে সংগঠনের চট্টগ্রাম বিভাগের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট জিনাত সোহানা চৌধুরী সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) হাটহাজারীর লালিয়ার হাট হোসাইনিয়া সিনিয়র আলিম মাদ্রাসায় কার্যকরী সদস্য বোখারী আজমের সঞ্চালনায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাসুম। প্রধান বক্তা ছিলেন মাওলানা ইছহাক ভুঁইয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা মো. এমরান।

সমাপনী বক্তব্য দেন সংগঠনের যুগ্ম সমন্বয়ক আবু হাসনাত চৌধুরী, যুগ্ম সমন্বয়ক ডা. হোসাইন আহমেদ, বায়েজিদ থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মো. মইনউদ্দিন, লালিয়ার হাট হোসাইনিয়া আলিম মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি ড. মোহাম্মদ রাফি, সুচিন্তা হাটহাজারী উপজেলার আহ্বায়ক জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, মাওলানা মো. ইলিয়াছ আহমদ, নাসরিন রহমান তাহমীন। ছাত্রদের মধ্যে বক্তব্য দেন মো. শাহাদত হোসাইন।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মো. ফয়সাল আহমদ। নাতে রাসূল পরিবেশন করেন মো. কামরুল হাসান। প্রশ্নোত্তর পর্ব পরিচালনা করেন সুচিন্তা স্টুডেন্টস অ্যান্ড ইয়ুথ উইংয়ের যুগ্ম সমন্বয়ক সৌরভ মুৎসুদ্দী ও কার্যকরী সদস্য মাহিন আল মামুন।

মাওলানা ইছহাক ভুঁইয়া বলেন, ইসলামে জঙ্গিবাদের কোনো স্থান নেই। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামই একমাত্র ধর্ম যেখানে সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা দেখাতে বলা হয়েছে। আলেম সমাজ জঙ্গি প্রতিরোধে সমর্থন দিয়েছে, ধর্মের নামে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে এক লাখ আলেম ফতোয়া জারি করেছেন।

প্রধান অতিথি আব্দুল্লাহ আল মাসুম বলেন, বর্তমান সরকার দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও জনগণের নিরাপত্তা বিধানে বদ্ধপরিকর। দেশের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়নে সরকার কর্তৃক ঘোষিত ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ অনুসরণ করে পুলিশ বাহিনী আন্তরিক ও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও জনগণের নিরাপত্তা বিধান ও জীবনমান উন্নয়নে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের উন্নতি সাধিত হচ্ছে।

জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সমাবেশ শুরু এবং জঙ্গিবাদে না জড়ানোর শপথ ও জয়বাংলা স্লোগানে শেষ হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৭, ২০১৯
এআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
বিনা টিকিটে ভ্রমণ, ১৯৫৪ রেলযাত্রীকে জরিমানা
রাতেই আসছে ৭ টন পেঁয়াজ
রাজধানী সুপার মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তদন্ত কমিটি 
মৌলভীবাজারে দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত গ্রেফতার
পাসপোর্ট করাতে এসে গ্রেফতার রোহিঙ্গা রিমান্ডে


২০২০ সালে বেরোবিতে ১ম সমাবর্তন
চবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের প্রথম পুনর্মিলনী বৃহস্পতিবার
‘পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ’
রেলক্রসিং-ফ্লাইওভারের কাছ থেকে সরানো হলো শতাধিক দোকান
বরিশালে করমেলায় ৮ কোটি ৯০ লাখ টাকা আদায়