php glass

সব প্রাথমিকে ‘মিড ডে মিল’ শিগগির: ডিসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন।

walton

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘মিড ডে মিল’ চালুর কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. ইলিয়াস হোসেন। তিনি বলেছেন, সবার সহযোগিতা পেলে সব উপজেলায় প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের জন্য শিগগির ‘মিড ডে মিল’ চালু করবে জেলা প্রশাসন।

শনিবার (৩১ আগস্ট) রাউজানের চিকদাইর মুন্সিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পরিচালিত ‘মিড ডে মিল’ কর্মসূচি পরিদর্শন শেষে জেলা প্রশাসক এসব কথা বলেন। পরিদর্শনের সময় বিদ্যালয়ের খুদে শিক্ষার্থীদের হাতে ‘মিড ডে মিল’ তুলে দেন তিনি।

শিক্ষার্থীদের হাতে মিড ডে মিল তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন।

রাউজানের ১৮২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থীকে প্রতিদিন ‘মিড ডে মিল’ দেওয়া হয়। সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান এহেছানুল হায়দর চৌধুরীসহ স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ২০১৭ সাল থেকে খুদে শিক্ষার্থীদের হাতে ‘মিড ডে মিল’ তুলে দিচ্ছে উপজেলা প্রশাসন।

জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়ার ফাঁকে ‘মিড ডে মিল’ প্রদান একটি আধুনিক ধারণা। এর ফলে খুদে শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়মুখী হয়। পড়ালেখায় আগ্রহী হয়ে উঠে। শিক্ষার হার বাড়ে।

‘রাউজান উপজেলা প্রশাসন যেভাবে সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘মিড ডে মিল’ চালু করেছে, অন্য উপজেলাগুলোতেও সেভাবে ‘মিড ডে মিল’ চালু করা হবে। স্কুল ম্যানেজিং কমিটি এবং স্থানীয়দের সহযোগিতা পেলে শিগগির এটি চালু করবো আমরা।’

এর আগে চিকদাইর মুন্সিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম, সততা স্টোর ঘুরে দেখেন জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন। সততা স্টোর থেকে নিজেই কলম কিনে শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করেন তিনি। পরে স্কুল প্রাঙ্গণে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের হাতে স্কুল ড্রেস, ব্যাগসহ শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন।

বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন।

টাকার অভাবে সন্তানের পড়ালেখা বন্ধ করবেন না

টাকার অভাবে সন্তানের পড়ালেখা বন্ধ না করতে মায়েদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন। শনিবার (৩১ আগস্ট) রাউজানের চিকদাইর উচ্চ বিদ্যালয়ে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মা সমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।

মো. ইলিয়াস হোসেন বলেন, টাকার অভাবে সন্তানের পড়াশোনা বন্ধ করবেন না। অভাবী শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় সহায়তা দিতে জেলা প্রশাসক প্রাথমিক শিক্ষা বৃত্তি চালু করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। এর মাধ্যমে মেধাবী শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তাসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, বড় হওয়ার পূর্বশর্ত বিনয়ী হওয়া। যে মানুষ যত বেশি বিনয়ী, সে মানুষ তত বেশি বড়। পরিবার থেকেই সন্তানকে এসব শিক্ষা দিতে হবে। কারণ শিশুরাই একদিন দক্ষ মানব সম্পদ হয়ে দেশের হাল ধরবে। সার্বিক উন্নয়নে নেতৃত্ব দিয়ে দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এবং গতিশীল সমাজ বিনির্মাণে আবদান রাখবে।

রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জোনায়েদ কবীর সোহাগের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা চেয়ারম্যান এহেছানুল হায়দর চৌধুরী, চিকদাইর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী, জেলা প্রশাসকের স্টাফ অফিসার রাজিব হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪০ ঘণ্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৯
এমআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন
পাবনায় সরকারিভাবে আমন সংগ্রহের কার্যক্রম শুরু
বায়িং হাউজগুলোর দক্ষতা বাড়ানোর ওপর জোরারোপ
ওয়ারীতে দেশি অস্ত্রসহ ৬ ডাকাত আটক
সিলেটে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার
কেরানীগঞ্জে বাসচাপায় অটোরিকশাযাত্রী নিহত


পাইকগাছায় ঘের ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা 
দুর্গাসাগর দীঘিতে নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার
সারাদেশের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার অবদান লিপিবদ্ধ করার দাবি
এলেঙ্গা-হাটিকুমরুল-রংপুর মহাসড়কে বসুন্ধরা সিমেন্ট