ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৬ আগস্ট ২০২০, ১৫ জিলহজ ১৪৪১

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

পেটে গজ রেখে সেলাইয়ের অভিযোগ তদন্তে কমিটি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০২৯ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০১৯
পেটে গজ রেখে সেলাইয়ের অভিযোগ তদন্তে কমিটি

চট্টগ্রাম: মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের সময় উম্মে হাবিবা নামে এক প্রসূতির পেটে গজ রেখে সেলাইয়ের অভিযোগ তদন্তে সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়েছে।

ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাখাওয়াত উল্লাহকে প্রধান করে গঠিত ৩ সদস্যের কমিটিকে ১০ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

রোববার (৩০ জুন) ভুক্তভোগী প্রসূতির স্বামী সিভিল সার্জন বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বাংলানিউজকে বলেন, ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে থেকে অভিযোগ দেয়ার আগে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। যেহেতু অভিযোগ পেয়েছি, সেটি তদন্ত দলকে দেওয়া হবে।

এর আগে নগরের মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রথম অস্ত্রোপচারের ১৫ দিন পর পুনরায় অস্ত্রোপচার করে উম্মে হাবিবার পেট থেকে গজ উদ্ধার করা হয়। তবে ভুক্তভোগী উম্মে হাবিবাকে বাঁচানো যায়নি।

১৪ জুন বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্র সিএসসিআরে সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. খন্দকার একে আজাদ অস্ত্রোপচার করে উম্মে হাবিবার পেট থেকে গজ উদ্ধার করেন বলে তার স্বামী মুক্তার হোসেন খোকন বাংলানিউজকে জানিয়েছেন।

মেরিন সিটি মেডিকেল হাসপাতালে উম্মে হাবিবাকে অস্ত্রোপচার করেন ডা. জাকিয়া সুলতানা।

উম্মে হাবিবা ফটিকছড়ি মাইজভান্ডার এলাকার মোক্তার হোসেন খোকনের স্ত্রী। চার বছর আগে তাদের দাম্পত্য জীবন শুরু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৫ ঘণ্টা, জুন ৩০, ২০১৯
এসইউ/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa