php glass

বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া হলো না ইফতেখারের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী ছবি

walton

চট্টগ্রাম: স্বপ্ন ছিল দেশের প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার। এজন্য নিজেকে ধীরে ধীরে গড়ে তুলছিলেন ইফতেখারুল ইসলাম (১৮)। সদ্য এইচএসসি দেয়া এই তরুণ শুরু করেছিলেন প্রস্তুতিও। ইতোমধ্যে কিনেছেন কিছু বই। তবে এখনো বইয়ের সব পাতা ওল্টানো হয়নি। টেবিলে সেই নতুন বইগুলো আছে, নেই শুধু ইফতেখার। তার আর বই পড়া হবে না কোনো দিন।

শুক্রবার (২১ জুন) সকাল ৭টার দিকে নগরের সদরঘাট থানাধীন ৭০ নম্বর রোডের হুমায়ুন ভবন থেকে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ইফতেখারকে উদ্ধার করা হয়। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইফতেখার ওই এলাকার এমদাদুল ইসলামের ছেলে। তিনি সরকারি সিটি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে সদ্য সম্পন্ন এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন।

ইফতেখারুল ইসলামের চাচা মো. ফোরকান বাংলানিউজকে বলেন, একা রুমে থাকতো সে। সকালে পরিবারের লোকজন অনেক ডাকাডাকির পর না ওঠায় দরজা ভেঙে রুমে ঢুকে তাকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় দেখতে পায়। পরে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক ইফতেখারকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি হিসেবে কোচিংয়ের জন্য শনিবার সকালে তার ঢাকায় যাওয়ার কথা। এজন্য সব প্রস্তুতিও নেয়া হয়েছিল। ঢাকায় থেকে কোচিং করে সে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার কথা পরিবারকে জানিয়েছিল।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক হামিদুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, সকালে গলায় ফাঁস দেয়া ইফতেখারুল ইসলাম নামে এক তরুণকে হাসপাতালে আনা হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১১০০ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৯
এসইউ/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
মাগুরায় ডেঙ্গু মশার উপদ্রবে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ
নয়নার হাত ধরে কলকাতা পাচ্ছে বাংলাদেশের স্বাদ
‘মোবাইল ছিনতাইয়ের জেরে’ রিফাত খুন!
রিইমাজিং নেটওয়ার্কিং ও ডেটা সেন্টারস সামিট অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশি পাসপোর্টে বিদেশে রোহিঙ্গা পাচার


রিফাত হত্যা: রাব্বি আকনের স্বীকারোক্তি
জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের সদস্য পদ স্থগিত করলো আইসিসি
ইঁদুরের উপদ্রবে বাঁধ ঝুঁকিতে!
টাঙ্গাইলে বাঁধ ভেঙে তলিয়ে যাচ্ছে বাড়ি-ঘর
একুশে পদকের জন্য মনোনয়ন আহ্বান