php glass

রিকশাচালক রাজু খুনের ঘটনায় ৪ জনের জবানবন্দি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাজু হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার সাতজন

walton

চট্টগ্রাম: নগরের ডবলমুরিং থানাধীন হাজীপাড়া এলাকায় রিকশাচালক মো. রাজু হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গ্রেফতার আট জনের মধ্যে চারজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তারা ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বলে বাংলানিউজকে জানান ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সদীপ কুমার দাশ।

গ্রেফতার শিমুল দাশ (২০), তানভির হোসেন প্রকাশ সিফাত (১৮), মো. সুজন প্রকাশ মধু (১৮) ও মো. রাকিব হোসেন প্রকাশ শাহ রাকিব (১৮) আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

শিমুল দাশ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট খাইরুল আমীনের আদালতে, তানভির হোসেন প্রকাশ সিফাত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেম মোহাম্মদ নোমানের আদালতে, মো. সুজন প্রকাশ মধু মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল ইমরান খানের আদালতে এবং মো. রাকিব হোসেন প্রকাশ শাহ রাকিব মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার জাহানের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বলে বাংলানিউজকে জানান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ডবলমুরিং থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অর্নব বড়ুয়া।

এসআই অর্নব বড়ুয়া জানান, আদালতের সামনে ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন চারজনই। খুনের পরিকল্পনা, প্রস্তুতি ও কিলিং মিশনের বিস্তারিত জানিয়েছেন আদালতের কাছে।

মো. নুর নবী, মেহেদী হাসান রুবেল, ওসমান হায়দার কিরন ও সেলিনা আক্তার সেলি প্রত্যেকের পাঁচদিন করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে বলে জানান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই অর্নব বড়ুয়া।

গত ১৪ মে ভারে ডবলমুরিং থানাধীন হাজীপাড়া এলাকায় বাসায় ঘুমন্ত অবস্থায় কুপিয়ে জখম করা হয় রিকশাচালক মো. রাজু। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজু।

ঘটনার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামি গ্রেফতার ও হত্যায় ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। নগরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে আটজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আসামিদের গ্রেফতারের পর পুলিশ জানিয়েছে, মাদক ব্যবসায়ী ছগির হোসেনের কারাগারে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। পুরো হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটিয়েছে একটি মাদকাসক্ত কিশোর গ্যাং।

এসআই অর্নব বড়ুয়া জানান, শিমুল, সিফাত, সুজন, রাকিব, নুর নবী, রুবেলসহ একটি কিশোর গ্যাংকে নিয়ন্ত্রণ করে ছগির হোসেন। তাদেরকে ছগির সেবন করার জন্য ইয়াবা সরবরাহ করেন বলে তারা সবাই ছগিরের অনুগত।

আরও খবর>>
** জেলে থেকে খুনের নির্দেশ, জড়িত কিশোর গ্যাং

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৮ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৯
এসকে/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারে জাহিদের করণীয় বলে দিলেন ফখরুল
পরিবারের সুসম্পর্ক গঠনে সিনেমা সহায়তা করে: শাকিব খান
উইন্ডিজের সঙ্গে জয়ে টাইগারদের অভিনন্দন কাদেরের
সাকিব-লিটনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ক্রিকেট বিশ্ব 
সাকিব-লিটনের ব্যাটে জয়ে উচ্ছ্বসিত মোসাদ্দেকের মা


সমর্থকরা পাশেই থাকবেন, প্রত্যাশা সাকিবের
‘সাকিব দুর্দান্ত, টার্নিং পয়েন্ট মোস্তাফিজের দুই উইকেট’
কাপ আনবো ঘরে | আলেক্স আলীম 
বাংলাদেশ থেকে শিখবে পাকিস্তান, আশা শোয়েব আখতারের
জয় দিয়ে কোচের জন্মদিন উদযাপন করলো টাইগাররা