২০ রমজান থেকে সড়কে খোঁড়াখুঁড়ি বন্ধে নাছিরের আহ্বান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চসিক প্রকৌশলীদের সঙ্গে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সভা

walton

চট্টগ্রাম: ২০ রমজান থেকে ঈদ পর্যন্ত নগরজুড়ে সড়কে খোঁড়াখুঁড়ি সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার জন্য ওয়াসাসহ সব সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

php glass

বুধবার (১৫ মে) সিটি করপোরেশন সম্মেলন কক্ষে প্রকৌশল বিভাগের এক জরুরি সভায় এ আহ্বান জানান মেয়র।

মেয়র বলেন, নগরজুড়ে ওয়াসার খোঁড়াখুঁড়ি চলছে। চসিকের সঙ্গে ওয়াসার কোনো সমন্বয় নেই। ফলত চসিক নতুন রাস্তা করে যাওয়ার পর আবার খুঁড়ে পুরো রাস্তাটি নষ্ট করে দেয় চট্টগ্রাম ওয়াসা। ফলে নগরবাসীকে চলাচলে ভোগান্তি পড়তে হচ্ছে। পবিত্র এই রমজান মাসে এ ধরনের  ভোগান্তি কাম্য নয়। এতে করে নগরবাসী চসিককে দোষারোপ করে যাচ্ছে।  বিষয়টি জনগুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় আনতে হবে। তাই চট্টগ্রাম ওয়াসা যে সব সড়কে খোঁড়াখুঁড়ি চালাচ্ছে আগামী শনিবার থেকে সেখানে ফেইস ওয়ার্ক শুরু করার নির্দেশ দেন সিটি মেয়র। এ

মেয়র জনদুর্ভোগ কমাতে ওয়াসার সঙ্গে দ্রুত সময়ের মধ্যে সমন্বয় করে এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে চসিক প্রকৌশলীদের দিকনিদের্শনা দেন।

তিনি বলেন, রাস্তা কাটতে হলে ওয়াসাকে ২০ রমজানের আগেই তা সম্পন্ন করতে হবে। এর পর আর কোনো রাস্তা কাটতে দেওয়া হবে না। এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম ওয়াসাকে দাপ্তরিকভাবে জানানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে চসিক। এ সময়ের মধ্যে ওয়াসার সঙ্গে চসিক সমন্বয় করে কাটা সড়ক দ্রুত সময়ের মধ্যে মেরামত করতে হবে। নগরের কোন কোন সড়ক ওয়াসা কাটবে তার পূর্ণাঙ্গ তালিকা নিয়মিত চসিক প্রকৌশলী বিভাগের জমা দেবে ওয়াসা।

মেয়র আগ্রাবাদ এক্সেস রোড, পোর্টকানেকটিং রোড, বায়েজিদ বোস্তামী রোড, আরাকান রোড, বেপারিপাড়া রোড ইত্যাদি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বাস্তবায়নে নিবিড় ভাবে তদারকির জন্য প্রকৌশলীদের পরামর্শ দেন।

এ সময় চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমদ, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মুফিদুল আলম, প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর সিটি মেয়র ওয়াল্ডারল্যান্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জিএম মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে ওয়াল্ডারল্যান্ড ব্যবস্থাপনা পরিচালক নগরে ৫ একরের একটি অ্যাকুরিয়াম পার্ক প্রতিষ্ঠার আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং এ সংক্রান্ত বিষয়ে অ্যাকুরিয়াম প্রকল্পটি পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন।

মেয়র প্রকল্পটি যাছাই বাছাই করে তা বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদের আশ্বাস দেন।

এ ছাড়া ভাইয়া মিডিয়া বিজনেস সার্ভিস কর্তৃক পরিচালিত আগ্রাবাদ শিশু পার্ক ইজার বিষয়ে মেয়রের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। আলোচনা সভায় মেয়র বলেন, চট্টগ্রামে বসবাসরত শিশু-কিশোরদের বিনোদন সুযোগ সুবিধা বাড়াতে চসিক ইতিমধ্যে যে সব পদক্ষেপ নিয়েছে তা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম শিশু পার্ককে আরও আধুনিকতম পার্ক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এ সময় কর্ণফুলী শিশু পার্ক পরিচালক (প্রশাসন)মুক্তিযোদ্ধার কমান্ডার এম এনামুল হক, মি. সিয়াং, হু, চেন, রুই, শিংহু উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৭ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৯
এআর/টিসি

 

গুলিস্তানে ছিনতাইকারী চক্রের ৫ সদস্য আটক
ঈদের পোশাকের টাকা না দেয়ায় ছেলের হাতে প্রাণ গেলো মায়ের
‘ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে ২০১৯’ উদযাপন
ককটেল বিস্ফোরণে নারী পুলিশ সদস্যসহ আহত ২
মিরপুরে সিঁড়ির ফাঁক দিয়ে পড়ে নারীর মৃত্যু


সৈয়দ আশরাফ ছিলেন তেজোদীপ্ত ও সাহসী: কৃষিমন্ত্রী
কাজী শুভ’র ‘ভুলিয়া না যাইও’
মোদীকে ইমরানের ফোন, একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান
পুণ্যময় রমজানে রিজিকে লাগে বরকতের ছোঁয়া
বিএনপির সিদ্ধান্তের কোনো ঠিক নেই: নাসিম