‘সরকারের উন্নয়ন প্রবাহে শিল্প বিপ্লব ঘটবে’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংসদ সদস্য এম এ লতিফ

চট্টগ্রাম: টানা তৃতীয় মেয়াদের সরকারেও স্থান করে নেয়া সংসদ সদস্য এম এ লতিফ নিজের রাজনীতিকে জনকল্যাণে উৎসর্গ করার অঙ্গীকার করেছেন।

বাংলানিউজের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেছেন, ‘যতদিন রাজনীতি করবো, জনগণের জন্যই করবো। এখানে আমার ব্যক্তিগত কোন স্বার্থ নেই। সরকারের উন্নয়ন দেখেই দেশের মানুষ আবারও আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে, স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে ক্ষমতায় এনেছে।’

চট্টগ্রাম চেম্বারের সাবেক সভাপতি হিসেবে ব্যবসায়ী মহলে এম এ লতিফ ব্যাপক পরিচিতি পান। ২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনে পতেঙ্গা ও বন্দর আসনে (চট্টগ্রাম-১১) আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে চমক সৃষ্টি করেন তিনি। চারবারের সংসদ সদস্য ও বিএনপির বাণিজ্যমন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে পরাজিত করেন।

২০১৪ সালের নির্বাচনে দ্বিতীয়বার সংসদ সদস্য হন এম এ লতিফ। সর্বশেষ একাদশ সংসদ নির্বাচনেও জয় পেয়েছেন তিনি।

সংসদ সদস্য এম এ লতিফ বলেন, ‘২০০৮ সালে  তৃণমূল আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধভাবে আমাকে জিতিয়েছে। এলাকায় উন্নয়ন হয়েছে। তাই তারা আমাকে এবারও এমপি বানিয়েছে।’

২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত বিএনপির ‘দুঃশাসন’ দেখে জনগণ বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, তারা এখনও নির্বাচন নিয়ে অপপ্রচার অব্যাহত রেখেছে।

‘মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যদের কাজের প্রতি নজর রাখার ঘোষণা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছেন। টানা তৃতীয় মেয়াদের এই সরকারের উন্নয়নের প্রবাহে দেশে শিল্প বিপ্লব ঘটবে। সারাদেশে যেসব মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে, এর ফলে অর্থনীতির চাকা আরও গতিশীল হবে’ যোগ করেন তিনি।

এম এ লতিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে যে স্বপ্ন দেখেন তা দৃশ্যমান তথা বাস্তবায়নও করেন। মানুষ স্থিতিশীল সরকার চায়। তাই তারা এবারও বিপুল ভোটে আওয়ামী লীগকে জয়ী করেছে। তারা জঙ্গিবাদকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

সরকারের কাছে এখন জঙ্গিবাদের শিকড় উপড়ে দেয়া, মাদক নির্মূল করা এবং প্রতিটি সেক্টরকে দুর্নীতিমুক্ত করে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করাই বড় চ্যালেঞ্জ-উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যার সরকার এই চ্যালেঞ্জ জয়ে সক্ষম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে সমৃদ্ধির দিকে। স্বপ্নের সোনার বাংলাকে নতুন প্রজন্মের জন্য বাসযোগ্য করতে এই অভিযাত্রায় সহযাত্রী হয়েছি আমরাও।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০১৯
টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগ
দায়সারা কালভার্টে ভোগান্তি চরমে
প্রয়োগের শিথিলতায় গুরুত্ব হারাচ্ছে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন
এপ্রিলে নতুন ভবনে যেতে পারছে না বিজিএমইএ
তানজানিয়ায় মালবাহী ২টি জাহাজে আগুন, নিহত ১১
কুবির প্রশাসনিক ৩ পদে রদবদল
নৃত্যাচার্য বুলবুল চৌধুরীর জন্মশতবর্ষে বছরব্যাপী আয়োজন
মানবিক শহর গড়তে বিনোদনের স্থান হতে পারে পার্কলেট
রাজলক্ষ্মীর জীবন এখন অলক্ষ্মী!
মেলায় নজর কাড়ছে কেপিসির কাগজের কাপ-পিরিচ, প্লেট
আইআরএফের নতুন নেতৃত্বে কৌশিক-রহিম-মাহফুজ