চিটাগাং কো-অপারেটিভ হাউজিংয়ের মোটর র‌্যালি মঙ্গলবার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন । ছবি: উজ্জ্বল ধর

চট্টগ্রাম: জাতীয় সমবায় পুরস্কার পাওয়ায় দি চিটাগাং কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লিমিটেড তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করছে। এর মধ্যে থাকবে মোটর শোভাযাত্রা, সুধী সমাবেশ, সম্মাননা প্রদান, সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ইত্যাদি।

সোমবার (৭ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও সোসাইটির সভাপতি আ জ ম নাছির উদ্দীন, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ইদ্রিছ, সম্পাদক মোহাম্মদ শাহজাহান, কোষাধ্যক্ষ মোফাখখারুল ইসলাম খসরু, সদস্য মো. আলমগীর পারভেজ, সৈয়দ রফিকুল আনোয়ার, আলাউদ্দীন আলম, শাহ আলম বাবুল, মো. নুরুল ইসলাম মিন্টু, মো. রাশেদুল আমিন, মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম শাহীন প্রমুখ।

মঙ্গলবার (৮ জানুয়ারি) মোটর শোভাযাত্রাটি এমএ আজিজ স্টেডিয়াম থেকে শুরু হয়ে সিআরবি শিরীষতলা, পলোগ্রাউন্ড, টাইগারপাস, ওয়াসা, জিইসি, ২ নম্বর গেট হয়ে সোসাইটির কার্যালয়ে শেষ হবে। এতে নেতৃত্ব দেবেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

পরদিন বুধবার (৯ জানুয়ারি) কাজীর দেউড়ির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে হবে মূল অনুষ্ঠান।

সোসাইটির সম্পাদক মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, ২০১৮ সালের ২৫ নভেম্বর ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে সোসাইটির সভাপতি আ জ ম নাছির উদ্দীন সমবায় পুরস্কার গ্রহণ করেন। এটি সোসাইটির ৬৭ বছরের ইতিহাসে শ্রেষ্ঠ সমবায়ী প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রথম জাতীয় পুরস্কার। এ সম্মাননা প্রাপ্তি সোসাইটির সদস্যদের সঙ্গে উদযাপনের জন্য তিন দিনের অনুষ্ঠানমালা আয়োজন করা হচ্ছে।

তিনি জানান, ১৯৫১ সালে চট্টগ্রামের বনেদি পরিবারের সদস্যরা ১৯৫১ সালে এ সোসাইটি প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৫৫ সালে ৪২ দশমিক ২১ একর জমি অধিগ্রহণ করে সোসাইটিকে হস্তান্তর করে সরকার। ওই জমিতে ১৬৫টি প্লট তৈরি করে সদস্যদের হস্তান্তর করা হয়। ১৯৬২ সালে ৭০ দশমিক ৩৮ একর জমি অধিগ্রহণ করে ১৭০টি প্লট তৈরি করা হয়। ১৯৯৬ সালে পাহাড়তলী এলাকায় ৪ দশমিক ৭৪ একর জমি কিনে ৫৮টি প্লট তৈরি করা হয়। যা রোজভ্যালি আবাসিক এলাকা হিসেবে পরিচিত। সোসাইটির প্লটগুলোতে ১ হাজার ৬০০ ফ্ল্যাট নির্মিত হয়েছে।

এ ছাড়া বড় দীঘির পাড় খিল্লাপাড়া এলাকায় ৩৫ কানি জমি কেনা হয়েছে। খুলশীতে ৮ তলা ভবনে ১২ সদস্য, নাসিরাবাদে ১০ তলা ভবনে ৩২ সদস্যকে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সাড়ে তিন হাজার সদস্যের আবাসিক সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে কাজ করছে সোসাইটি। ১৯৬৪ সালে সোসাইটির উদ্যোগে অংকুর সোসাইটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। যাতে বর্তমানে ৪ হাজার ছাত্রী, ১০০ শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৭, ২০১৮
এআর/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
দায়সারা কালভার্টে ভোগান্তি চরমে
প্রয়োগের শিথিলতায় গুরুত্ব হারাচ্ছে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন
এপ্রিলে নতুন ভবনে যেতে পারছে না বিজিএমইএ
তানজানিয়ায় মালবাহী ২টি জাহাজে আগুন, নিহত ১১
কুবির প্রশাসনিক ৩ পদে রদবদল
নৃত্যাচার্য বুলবুল চৌধুরীর জন্মশতবর্ষে বছরব্যাপী আয়োজন
মানবিক শহর গড়তে বিনোদনের স্থান হতে পারে পার্কলেট
রাজলক্ষ্মীর জীবন এখন অলক্ষ্মী!
মেলায় নজর কাড়ছে কেপিসির কাগজের কাপ-পিরিচ, প্লেট
আইআরএফের নতুন নেতৃত্বে কৌশিক-রহিম-মাহফুজ