আধুনিক রাউজান গড়ার কারিগর ফজলে করিম

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গহিরা ইউনিয়নে গণসংযোগকালে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীকে নৌকা উপহার দেন নেতা-কর্মীরা

চট্টগ্রাম: বিএনপি সরকারের আমলে অবহেলিত রাউজানকে আধুনিক ও উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ার কারিগর এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীকে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছেন রাউজানের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা।

তারা বলেন, পর পর তিনবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য ফজলে করিম চৌধুরী বিধ্বস্ত এ জনপদকে কীভাবে সাজিয়ে তুলেছেন তার সাক্ষী রাউজানের ৬ লাখ মানুষ। তিনি শত শত কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছেন। তার চিন্তা, চেতনা মননে শুধুই রাউজানের অগ্রগতি আর জনগণের কল্যাণ।

বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) রাউজান পৌরসভার গহিরা ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় বক্তারা এ আহ্বান জানান। ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কাজী মো. ইকবালের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও মহাজোট মনোনীত প্রার্থী এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী।

রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পিবলু চৌধুরীর পরিচালনায় পথসভায় বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা কাজী ওহাব, রাউজান থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন আহমেদ, চট্টগ্রাম সমিতি ওমানের সভাপতি মোহাম্মদ ইয়াছিন চৌধুরী, রাউজান পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, রাউজান উপজেলা নারী ভাইস চেয়ারম্যান ফৌজিয়া খানম, রাউজান থানা আওয়ামী লীগ নেতা ফারাজ করিম চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেত্রী নাছিমা আকতার, নাজমা রহমান রুহি, রাউজান উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী রাশেদ, ব্যবসায়ী কেএম মতিন, রাউজান উপজেলা যুবলীগের সহসম্পাদক সাইদুর রহমান, রায়হান রানা, যুবলীগ  নেতা ফরহাদ ইসলাম, কাজী ফরহাদ, শিপলু চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তারা ফজলে করিম চৌধুরীকে ৩০ ডিসেম্বর নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।

এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী  শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন কার্যক্রম দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বাধীনতার প্রতীক, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতীক, জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতীক নৌকায় ভোট দিন।

তিনি বলেন, রাউজানবাসী বার বার নির্বাচিত করে আমার প্রতি যে ভালোবাসা দেখিয়েছে, আস্থা রেখেছে এবং দায়িত্ব দিয়েছে তার প্রতিদান-পালনে আমি সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়েছি। এ ক্ষেত্রে রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি, আঞ্চলিকতা কখনো কাজ করেনি। উন্নয়ন অগ্রগতি আর জনগণের কল্যাণই শুধু দেখিছি।

অতীতের মতো এবারও জনগণের ভালোবাসা ও আস্থা অর্জন করবেন বলে তিনি আশাবাদী।

পরে ফজলে করিম চৌধুরী গহিরা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গণসংযোগ করেন এবং জনগণের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮
এআর/টিসি

ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ ৩ শিক্ষার্থী আটক
খুলনার বইমেলায় ভাষাপ্রেমীদের উপচেপড়া ভিড়
‘ভুলে ভরা কবিতা’র পর ‘বাইসাইকেল’
ঢামেকের বাতাসে পোড়া গন্ধ 
ইমরানকে গাভাস্কার: বন্ধু, কোথায় তোমার নয়া পাকিস্তান?


হিলি সীমান্তে দুই বাংলার সম্প্রীতির মিলন মেলা
ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা
ময়মনসিংহ’ ১৯৫২,ইতিকথা-৩

ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা

খুবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
কেমিক্যাল গোডাউন সরাতে দ্রুত আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক
জাতিসংঘে স্থায়ী মিশনে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা