পোস্টার-ব্যানারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রাম

আল রাহমান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নিউমার্কেট মোড়ে নির্বাচনী পোস্টার। ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: ‘মোর নাম এই বলে খ্যাত হোক, আমি তোমাদেরই লোক।’ চট্টগ্রাম বন্দর, পতেঙ্গা, আগ্রাবাদসহ আশপাশের এলাকার ছোট-বড় সবার মুখস্থ হয়ে গেছে রবি ঠাকুরের কবিতার পঙক্তি দু’টি।

মোড়ে মোড়ে ডিজিটাল ব্যানার আর ছোট ছোট পোস্টারে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী এমএ লতিফ কবিতার পঙক্তি দু’টিতে ভোটারদের কাছে টানছেন। পশ্চিম মাদারবাড়ীর মাতব্বর মসজিদের পুকুরে কলাগাছের ভেলা তৈরি করে তার ওপর সাজানো হয়েছে নৌকা প্রতীক।

নৌকার পর বেশি পোস্টার-ব্যানার চোখে পড়ছে ‘হাতপাখা’ প্রতীকের। হাতেগোনা কিছু পোস্টার শোভা পাচ্ছে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য, সাবেক মন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর ধানের শীষ প্রতীকের পোস্টার। নগরে শোভা পাচ্ছে চেয়ার, আপেলসহ বিভিন্ন প্রতীকের প্রার্থীদের পোস্টারও।

বিএনপি কার্যালয়ের সামনের সড়কে নির্বাচনী পোস্টার। ছবি: সোহেল সরওয়ারচট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী-বাকলিয়া) আসনে সবচেয়ে বেশি পোস্টার চট্টলবীর খ্যাত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে, মহাজোটের প্রার্থী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের।

এসএস খালেদ সড়কের সার্সন রোডের সড়কদ্বীপে (মৈত্রী) একদিকে বিএনপির প্রার্থী ডা. শাহাদাতের পোস্টার, বাকি দুই দিকে নৌকা প্রতীকের। পুরো সড়কটি সাজানো হয়েছে নৌকার পোস্টারে। শুধু কি পোস্টার বেশ কিছু সাদা-কালো ডিজিটাল ব্যানারও চোখে পড়ছে। আসকার দীঘির পশ্চিম পাড়ে রয়েছে তোরণও।

নূর আহমদ সড়কের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের প্রার্থীর ডিজিটাল ব্যানারে সহাবস্থান দেখা গেছে। তবে সড়ক বিভাজকে ধানের শীষের পোস্টারগুলো রশির মাঝখানে জড়ো হয়ে ঝুলতে দেখা যায়।

শেখ মুজিব সড়কে পোস্টার লাগাচ্ছেন একজন কর্মী। ছবি: সোহেল সরওয়ারজুবিলি রোড, নিউমার্কেটসহ আশপাশের এলাকায় বিএনপির পোস্টার কম থাকলেও সিপিবি’র প্রার্থী কমরেড মৃণাল চৌধুরীর কাস্তে, মাওলানা শেখ জামশেদ হোসাইনের হাতপাখা প্রতীকের বেশকিছু পোস্টার রয়েছে।

বেশিরভাগ পোস্টার-ব্যানার সন্ধ্যার পর থেকে রাত পর্যন্ত টাঙানো হলেও আগ্রাবাদের শেখ মুজিব সড়কের পূর্বপাশে দিনের বেলায়ও পোস্টার টাঙাতে দেখা গেছে।

দেওয়ানহাটের তরুণ হৃদয় আহমেদ রশিতে পিন মেরে আটকে দিচ্ছিলেন পোস্টার।তিনি বাংলানিউজকে বললেন, সারা দিন পোস্টার-ব্যানার টাঙিয়ে ৫০০ টাকা পাই। আকাশ মেঘলা, ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা থাকায় অনেক প্রার্থী পোস্টার টাঙাচ্ছেন না। তবে প্রচুর পোস্টার ছাপিয়েছেন। হয়তো নির্বাচনের কয়েকদিন আগে ভোট কেন্দ্রের আশপাশে টাঙাবেন।

পশ্চিম মাদারবাড়ীতে পুকুরে সাজানো নৌকা। ছবি: সোহেল সরওয়ারকাজীর দেউড়ি মোড়ে সন্ধ্যায় হাতপাখার পোস্টার টাঙানোর সময় একজন কর্মী বাংলানিউজকে বলেন, আমরা চরমোনাইর পীরের অনুসারী। হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করছি। টাকার জন্য নয়।

নগরের জামালখান সড়ক, চেরাগি পাহাড়, আন্দরকিল্লা, চকবাজার, বহদ্দারহাট, কোতোয়ালী, বন্দরটিলা, কাঠগড়, বড় পোল, ছোট পোল, হালিশহর, বায়েজিদ, অক্সিজেনসহ গুরুত্বপূর্ণ মোড়, অলিগলি, ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হবে এমন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আশপাশে ছেয়ে গেছে পোস্টার ও ডিজিটাল ব্যানারে। দেখা গেছে বাঁশের তৈরি লাল-সবুজ সালু কাপড়ে ঢাকা নৌকা, বড় বড় হাতপাখাসহ নির্বাচনী প্রতীকগুলো। প্রার্থী ও কর্মীর গাড়িতেও শোভা পাচ্ছে পোস্টার আর প্রতীক।

 বাংলাদেশ সময়: ১৬১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮
এআর/টিসি

যেকোনো মূল্যে সরানো হবে কেমিক্যাল গোডাউন
কেমিক্যালের কারণেই আগুন ছড়িয়েছে: ফায়ার সার্ভিস
ভবনগুলো ব্যবহারের উপযোগী কিনা, জানা যাবে এক সপ্তাহ পর
গাজীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কিশোরের মৃত্যু
টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত


রাজবাড়ী বাজারে অগ্নিকাণ্ড, ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি
ক্ষতিগ্রস্ত ভবনগুলো অনুমোদিত কিনা, জানে না রাজউক
যাত্রাবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা নিহত
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ
কমেছে মুরগির দাম, অপরিবর্তিত মাছ-সবজি