নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড আছে: সিইসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড আছে। নির্বাচনী পরিস্থিতিও কমিশনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম বিভাগের নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সিইসি এসব কথা বলেন।

নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড আছে: সিইসিতিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩ হাজারের বেশি প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ১ হাজার ৮শ’ বেশি প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন। নির্বাচনী এলাকাগুলোতে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। প্রার্থীরা গণসংযোগ করছেন। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন। এতকিছুর পরেও লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই কীভাবে?

সেনাবাহিনী ও বিজিবির উদ্দেশে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, সেনাবাহিনী ও বিজিবির ওপর জনগণের আস্থা সবচেয়ে বেশি। আশাকরি মানুষের সেই আস্থার প্রতিফলন আপনারা দেবেন। মানুষ যাতে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সে বিষয়ে সেনাবাহিনী ও বিজিবিকে খেয়াল রাখতে হবে।

পুলিশ বাহিনীর উদ্দেশ্যে কেএম নূরুল হুদা বলেন, পুলিশের কাছে মানুষের দাবি বেশি। নির্বাচনে তাদের দায়িত্বও অনেক বেশি। তাই পুলিশের কাছে অভিযোগ বেশি যাওয়া স্বাভাবিক।

নির্বাচনী কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ভোট জনগণের উৎসব। ভোটের দায়িত্ব পালনকালে আপনারা পক্ষপাতমূলক আচরণ করবেন না। ভোট যাতে সুন্দর ও সুষ্ঠু হয়, সেজন্য নিরপেক্ষভাবে এবং সকলের প্রতি সমান আচরণ প্রদর্শণ করবেন। এসময় তিনি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিরপেক্ষতা বজায় রেখে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

নির্বাচনের ৯৫ শতাংশ কাজ মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের জানিয়ে প্রার্থীদের উদ্দেশে সিইসি বলেন, সারাদেশে ১২২টি ইনকুয়ারিং কমিটি আছে, সেখানে জজ ও সহকারী জজরা দায়িত্ব আছেন। এছাড়া জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা মাঠে আছেন, রিটানিং কর্মকর্তারা আছেন। আপনারা তাদের কাছে অভিযোগ দিবেন। কষ্ট করে ঢাকায় গিয়ে অভিযোগ দিতে হবে না। স্থানীয়ভাবে অভিযোগ দিলে দ্রুত এবং সহজে সমাধান পাবেন।

সিইসি বলেন, নির্বাচন মানে প্রতিযোগিতা। খেলার মাঠের মতো। দুটি পক্ষ থাকবে। এক পক্ষ বিজয়ী হবে, অন্যপক্ষ হেরে যাবে। তাই একে অপরের প্রতি সম্নান রেখে শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন করবেন। যদি প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে সংঘাত তৈরি করেন, তাহলে স্থায়ীভাবে শত্রুতা সৃষ্টি হয়ে যাবে। তখন সামাজিকভাবে সমস্যার মুখোমুখি হবেন।

নগরের কাজীর দেউড়ির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন হলে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী ও নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, চট্টগ্রাম বিভাগের ৫৮টি সংসদীয় আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা, তিন বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮
এসইউ/টিসি

সাতক্ষীরার মঞ্চ মাতিয়েছে ‘ওরা কদম আলী’
হেটমায়ার-গেইলের ব্যাটে সমতায় ফিরলো উইন্ডিজ
পাবনা ও নাটোর জেলার আয়োজনে ৬ দিনব্যাপী বইমেলা 
সুদানে জরুরী অবস্থা জারি
বরিশালে কিশোর দিনমজুরের আত্মহত্যা


আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসায়ী আটক, দুই ডিবি পুলিশ আহত
লঞ্চের টিকিট কালোবাজারী, ২ জনকে কারাদণ্ড
পরিকল্পিত আবাসন গড়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
নারায়ণগঞ্জের মন্দিরে আগুন, আতঙ্কে আহত ১০
কুমিল্লায় হাসপাতালের ল্যাবে অগ্নিকাণ্ড