হাসিমুখে বাড়ি ফিরছেন ট্রেনযাত্রীরা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাসিমুখে বাড়ি ফিরছেন ট্রেনযাত্রীরা। ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: ঈদের আগে উপচে পড়া ভিড় বলতে যা বোঝায় তেমনটি ছিল না রেল স্টেশনে। রাতজেগে সংগ্রহ করা টিকিট অনুযায়ী নির্দিষ্ট বগিতে আসন নিচ্ছেন যাত্রীরা। হাসিমুখে হাত নেড়ে বিদায় জানাচ্ছেন স্বজনদের।

বুধবার (১৩ জুন) চট্টগ্রাম রেল স্টেশনের চিত্র ছিল এমন।

চাঁদপুরগামী মেঘনা এক্সপ্রেসে সন্তানকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ঈদ করতে যাচ্ছিলেন হাসনা বেগম। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, স্বামীকে বৃহস্পতিবার অফিস করতে হবে। তাই ছেলেকে নিয়ে তিনি আগেই বাড়ি ফিরছেন।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, একবার ঈদের আগের দিন ট্রেনের টিকিট কেটেও ভিড়ের কারণে সিটে বসতে পারেননি। এরপর থেকে আগেভাগে বাড়ি পৌঁছানোর চেষ্টা করেন তিনি।

বুধবার চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে ভিড় ছিল না যাত্রীদের। ছবি: সোহেল সরওয়ারস্টেশন ম্যানেজার মো. আবুল কালাম আজাদ বাংলানিউজকে জানান, এবার সচেতন যাত্রীরা আগেভাগে স্বস্তিতে বাড়ি ফিরছেন। তারপরও বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) শেষ কর্মদিবস হওয়ায় বিকেল থেকে ভিড় বাড়বে রেল স্টেশন ও ট্রেনে।

তিনি জানান, বুধবার সকাল থেকে সুবর্ণ এক্সপ্রেস, মহানগর গোধূলী, মহানগর এক্সপ্রেস, মেঘনা এক্সপ্রেস, সোনার বাংলা এক্সপ্রেসসহ নিয়মিত ট্রেনগুলো যথাসময়ে ছেড়ে গেছে। এর বাইরে ঈদ উপলক্ষে চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে দুইটি বিশেষ ট্রেন ছেড়ে গেছে। রাতের পাহাড়ীকা ও তূর্ণা এক্সপ্রেসও যথাসময়ে ছেড়ে যাবে আশাকরি।  

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৭ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৮
এআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঈদে বাড়ি ফেরা
ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে কুড়িগ্রামেও মামলা
এবার খাশোগির পরিবারের প্রতি সৌদি কিংয়ের সমবেদনা
২৯ ব্যাংকের ঋণের সুদ ১০ শতাংশের বেশি
ক্যাচ মিসেই জিম্বাবুয়ের হার
আক্ষেপ করে মাহাথির বললেন, পদত্যাগ করে ফেলতে পারি
চালকের ভুলে পাম্পে আগুন!
কৃত্রিম চাঁদ বানাবে চীন!  
মায়ের কোল থেকে শিশু কেড়ে নিলো পিকআপ
কবি জীবনানন্দ দাশের প্রয়াণ
ছেলেকে সেঞ্চুরি উৎসর্গ করলেন ইমরুল