২৫ বিদ্যালয়ে বই দিল বিকাশ ও বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অতিথিদের সঙ্গে বই হাতে শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রাম: বইয়ের আলোয় আলোকিত করার লক্ষ্যে বিকাশ লিমিটেডের সহায়তায় নগরীর ২৫টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই বিতরণ করেছে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র।

বুধবার (১১ এপ্রিল) সকাল ১১টার দিকে থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রামে (টিআইসি) মিলনায়তনে বই বিতরণ করে এ দুই প্রতিষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খ্যাতিমান কবি-সাংবাদিক আবুল মোমেন, বিকাশ লিমিটেডের চিফ এক্সর্টানাল অ্যান্ড করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেজর জেনারেল শেখ মো. মনিরুল ইসলাম (অব.), চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ড. মুস্তাফিজুর রহমান এবং বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের চট্টগ্রাম মহানগরের সংগঠক আলেক্স আলীম।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের যুগ্ম-পরিচালক (প্রোগ্রাম) মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ সুমন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো হলো এপিবিএন পাবলিক স্কুল, অর্পণাচরণ, কৃষ্ণকুমারী, পতেঙ্গা, কাপাসগোলা, আলকরণ নূর আহমদ, আলকরণ সুলতান আহামদ দেওয়ান, পোস্তারপাড়,  রেলওয়ে হাসপাতাল কলোনি, চর চাকতাই,  পাথরঘাটা মেনকা, হালিশহর মহব্বত আলী, হালিশহর আহমদ মিয়া, ফতেয়াবাদ, শহীদনগর সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,  চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বাংলাদেশ নৌবাহিনী স্কুল অ্যান্ড কলেজ, শহীদ লে. জি.এম মুসফিকুর বীর উত্তম উচ্চ বিদ্যালয়,  একে খান ইউসেপ-টেকনিক্যাল স্কুল, ইউসেপ-মাবিয়া রশিদিয়া স্কুল,  ইউসেপ-আমবাগান স্কুল,  ইউসেপ-আমির হোসেন দোভাষ স্কুল, বাংলাবাজার, ইউসেপ-পাহাড়তলী স্কুল, প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এবং নেভি অ্যাংকরেজ চট্টগ্রাম।

স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য পরিচালিত বইপড়া কর্মসূচি ‘দেশভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রম’র সঙ্গে ২০১৪ সাল থেকেই সম্পৃক্ত আছে বিকাশ। এ পর্যন্ত বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের এ কর্মসূচিতে প্রায় ১ লাখ ৭৮ হাজার বই দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিকাশ বিশ্বাস করে সহজ, নিরাপদ ও সাশ্রয়ী মূল্যে মোবাইল আর্থিক সেবা প্রদানের মাধ্যমে তারা যেমন মানুষের জীবনমান উন্নত করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে, তেমনি বইপড়া কর্মসূচিতে যুক্ত থেকে মানুষের আত্ম-উন্নয়নসহ সামগ্রিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারছে।

দেশে আলোকিত মানুষ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র গত ৪০ বছর ধরে সারা দেশে স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য নানাবিধ উৎকর্ষ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। দেশভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রম এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কর্মসূচি। বর্তমানে সারা দেশে এ কর্মসূচির আওতায় প্রায় ২ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ২ লাখ শিক্ষার্থী রয়েছে।

২০১১ সালে কার্যক্রম শুরু করা বিকাশ ব্যাংকিং সেবা বাংলাদেশের একটি বিশাল জনগোষ্ঠীকে নানা ধরনের মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস দিয়ে আসছে। বিকাশ-ব্র্যাক ব্যাংক, ইউএস ভিত্তিক মানি ইন মোশন, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের অন্তর্গত প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স করপোরেশন এবং বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের যৌথ মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৮
জেইউ/টিসি

সিলেট-৪ আসনে ৩ দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ৮ জন
শেরপুরে ৭০ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
অর্থমন্ত্রীর কাছে ২০০ কোটি টাকা চাইলেন আলমগীর
বহু ধর্ষণের কথা স্বীকার উবার চালক শাহ জামালের
৭০০০ কলার মোচায় তৈরি গণেশপ্রতিমা
খিলগাঁওয়ে ‘তরঙ্গ’ বাসের ধাক্কায় নিহত ১, বাসে আগুন
চিত্রশিল্পী মকবুল ফিদা হুসেনের জন্ম
‘বেড়িবাঁধ কাম সড়ক পাল্টে দেবে অর্থনীতি’
‘শেখ হাসিনার উন্নয়ন বার্তা জনগণকে পৌঁছে দিচ্ছি’
মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় পেয়ে খুশি সীতাকুণ্ডের মানুষ