ঢাকা, সোমবার, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০, ১৯ জিলহজ ১৪৪১

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

নৌ-বাণিজ্য

চট্টগ্রাম বন্দরে আসছেন শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতি

মো.মহিউদ্দিন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৭ ঘণ্টা, জুলাই ৬, ২০১৭
চট্টগ্রাম বন্দরে আসছেন শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতি শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা

চট্টগ্রাম: শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা বাংলাদেশ আসছেন ১৩ জুলাই। দুই দিন পর (১৫ জুলাই) দেশের প্রধান সমুদ্র বন্দর চট্টগ্রাম বন্দর পরিদর্শনে আসার কথা রয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে নৌ-বাণিজ্য বাড়াতেই রাষ্ট্রপতির এই সফর বলে জানা গেছে।

চট্টগ্রাম সফরে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সেদেশের দুইজন মন্ত্রী, দুইজন প্রতিমন্ত্রী ও দুইজন উপমন্ত্রী সঙ্গে থাকবেন বলে জানা গেছে। রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তার বিষয়ে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এরই মধ্যে বৈঠক করেছেন রাষ্ট্রপতির প্রধান প্রটোকল অফিসার রিজভি হাসান।

 

গত মঙ্গলবার (৪ জুলাই) বন্দর ভবনের সম্মেলন কক্ষে বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম খালেদ ইকবালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তা প্রটোকলের দুই সদস্য, বন্দরের সদস্য (প্রকৌশল) জুলফিকার আজিজ, মো. জাফর আলম (প্রশাসন ও পরিকল্পনা), কামরুল আমিন( অর্থ) শাহীন রহমান (হারবার অ্যান্ড মেরিন) , প্রধান প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) নজমুল হক, পরিচালক (পরিবহন) গোলাম সরওয়ার, সচিব মো. ওমর ফারুক উপস্থিত ছিলেন।  

মো. জাফর আলম বাংলানিউজকে বলেন, শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতি চট্টগ্রাম বন্দর পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তার বিষয়ে প্রধান প্রটোকল অফিসার বৈঠক করেছেন।  

শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতি আগামী ১৩ জুলাই ঢাকা আসবেন জানিয়ে তিনি বলেন, ১৫ জুলাই (সম্ভাব্য) চট্টগ্রাম বন্দরে আসার কথা রয়েছে। তবে বিষয়টি এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।  

শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতির চট্টগ্রাম বন্দরে আসার বিষয়ে জানতে চাইলে চাইলে তিনি বলেন, চট্টগ্রামের সঙ্গে নৌ-বাণিজ্য বাড়াতে চায় শ্রীলংকা।   তাদের পক্ষ থেকেই বন্দরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে।

জানা গেছে, শ্রীলংকার প্রেসিডেন্টের আসন্ন সফর সামনে রেখে ঢাকা ও কলম্বোর মধ্যে পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ে গত ৩ জুলাই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।  রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় দুই দেশের পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে শ্রীলংকার পক্ষে নেতৃত্ব দেন ঢাকায় সফররত দেশটির পররাষ্ট্র সচিব ইসালা উইরাকুন। আর বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্র সচিব মো. শহিদুল হক।

বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে গত বছর অনুষ্ঠিত যৌথ অর্থনৈতিক কমিশন (জেইসি) সভার অগ্রগতি আলোচনার পাশাপাশি ব্যবসা-বাণিজ্যে অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) ও মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির (এফটিএ) সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে এফটিএ চুক্তি করতে চায় শ্রীলংকা। এবারের মাইথ্রিপালা সিরিসেনার ঢাকা সফরে এ বিষয়ে দুই দেশ সমঝোতায় পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৬ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০১৭

এমইউ/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa