ব্যতিক্রমী ইফতারে গ্রাহক টানছে বন্দরনগরীর রেস্টুরেন্টগুলো

820 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
ইফতারে নগরবাসীকে ভিন্ন স্বাদের আমেজ দিতে নিত্য নতুন আইটেম আর আকর্ষণীয় খাবারের আয়োজনে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের অভিজাত হোটেল-রেস্তোরাঁগুলো।

চট্টগ্রাম: ইফতারে নগরবাসীকে ভিন্ন স্বাদের আমেজ দিতে নিত্য নতুন আইটেম আর আকর্ষণীয় খাবারের আয়োজনে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের অভিজাত হোটেল-রেস্তোরাঁগুলো। গ্রাহকদের সুবিধার্থে এসব হোটেল-রেস্তোরাঁয় রাখা হয়েছে ইফতারের নানা প্যাকেজ। চিরায়ত মেন্যু ছোলা-মুড়ি-পেয়াঁজুর পাশাপাশি এসব প্যাকেজে থাকছে মুখরোচক সব আইটেম।

অভিজাত রেস্টুরেন্টগুলোর পাশাপাশি নগরীর বিভিন্ন ছোট-বড় হোটেল-ক্যান্টিনগুলোও মেতে উঠেছে ব্যতিক্রমী সব খাবারের আয়োজনে। স্বল্প দামে চাহিদামতো ইফতার আইটেম পরিবেশন এসব হোটেল-ক্যান্টিন কাছে টানছে গ্রাহকদের।

হোটেল পেনিনসুলা
আকর্ষণীয় আয়োজনে প্রতিবারই এগিয়ে থাকে নগরীর অভিজাত হোটেল পেনিনসুলা। এবারও ইফতার মেন্যুতে ঠাঁই পেয়েছে ভোজনরসিকদের পছন্দের সব খাবার।

হোটেল পেনিনসুলার বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী কামাল হোসাইন বাংলানিউজকে জানান, কিউকাম্বার রাইস, ফিরনি, প্রণ ও চিকেন ললিপপ, চিকেন স্প্রিং রোল, হালিম, শ্রীলঙ্কান রোল, শাম্মী কাবাব, চিকেন কাটি পরটা, চিকেন কাটলেটসহ বিভিন্ন ধরণের আইটেমে এবারের মেন্যু সাজানো হয়েছে। পার্সেলের পাশাপাশি রয়েছে ডালিয়া ও জিনিয়া ব্যাঙ্কুয়েট হলে ইফতারের সুযোগ। ব্যাঙ্ক‍ুয়েটের জন্য ৫৪৯ টাকা, ৬৪৯ টাকা ও ৮৯৯ টাকা করে তিনটি প্যাকেজ রয়েছে।

হোটেল আগ্রাবাদ

হোটেল আগ্রাবাদের বিশেষ আয়োজনে থাকছে প্রায় ৪৫ রকমের সুস্বাদু আইটেমের পাশাপাশি ব্যুফে ইফতারের আয়োজন। তবে, প্রতিবারের মতো এবারও হোটেলের বিখ্যাত হালিমের চাহিদা বেশী বলে জানিয়েছে হোটেল কর্তৃপক্ষ।

হোটেল আগ্রাবাদের বিপণন ব্যবস্থাপক সাহিন মাহমুদ নওশাদ বাংলানিউজকে জানান, বিশেষ আইটেমের মধ্যে রয়েছে জিরা পানি, দই জিরা পানি, জুস, হালিম আখনি, ল্যাম্ব শর্মা, চিকেন শর্মাসহ প্রায় ৪৫ ধরনের আইটেম।

এবার মাটন হালিম কেজিপ্রতি ৬৫০ টাকা, চিকেন ৫০০ ও বিফ হালিম ৬০০, স্পেশাল জিলাপি (৫০০ গ্রাম) ৩০০ টাকা, শ্রিম্প পাকুরা প্রতিটি ৩৫ টা্কা, চিকেন কাবাব রোল প্রতিটি ১৮০ টাকা, ফ্রাইড চিকেন প্রতিটি ৪০ টাকা, পুরানো ঢাকার শাটল কাবাব ১৫০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে বলে জানান তিনি।

অ্যাম্ব্রোসিয়া

ইফতারে পার্সিয়ান হালিম, তার্কিজ শর্মা, অ্যারাবিয়ান কাবাব, গোল্ডেন ফ্রাইড প্রন, বাস্কেট চিকেনসহ আরো বেশ কিছু আকর্ষণীয় খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে আগ্রাবাদের অভিজাত অ্যাম্ব্রোসিয়া রেস্টুরেন্টে। গ্রাহকদের কাছে টানতে প্রতিবারের মতো এবারও ব্যুফে ইফতারের আয়োজন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ঝালের পাশাপাশি আছে দই, ফিরনি, দইবড়া, রেশমী জিলাপি, পাটিসাপটা, ছানামঞ্জরী, লালমোহনসহ আরো বিভিন্ন ধরনের খাবার।

রোদেলা বিকেল

সুন্দর মনোরম পরিবেশ আর পরিচ্ছন্ন খাবারের নিশ্চয়তায় সবসময়ই এগিয়ে থাকে ‍নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের কাবাবা পাড়ার রেস্টুরেন্ট ‘রোদেলা বিকেল’র নাম।

সূর্যমুখী তেল, স্পেনের জাফরান, খাঁটি গুঁড়ো দুধ ও ঘিসহ সেরা উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয় এখানকার প্রতিটি খাবার।

ইফতারের বিশেষ আয়োজনে এখানে থাকছে তুরস্কের সানফ্লাওয়ার অয়েল, ইন্ডিয়ান হলুদ-মরিচ মসলায় তৈরি প্রিমিয়াম মাটন হালিম, রাঙামাটির দুই কেজি ওজনের রাতামোরগ দিয়ে তৈরি দেশি চিকেন হালিম, সিঙ্গাপুরের প্রিমা ব্র্যান্ডের ময়দা, তুরস্কের সানফ্লাওয়ার অয়েল, অস্ট্রেলিয়ান চিনি দিয়ে তৈরি জাফরানি মিল্ক জিলাপি, বঙ্গোপসাগরের টাটকা মাছ, সুনামগঞ্জের হাঁসের ডিম, ইন্ডিয়ান গরম মসলায় তৈরি মাছের কোপ্তা, ফার্মের মুরগির রান, টক দই দিয়ে তৈরি চিকেন ললিপপ, ইন্ডিয়ার এমডিএইচ ব্র্যান্ডের মরিচের গুঁড়া ও গরম মসলায় তৈরি চিকেন তন্দুরি, অস্ট্রেলিয়ান চিনি, দুবাইয়ের নিডো ব্র্যান্ডের গুঁড়ো দুধ দিয়ে তৈরি ইন্ডিয়ান লাচ্ছা পরোটা, বিশেষ মাটন ও দেশি মুরগির হালিম, মেজবানী গরুর মাংস, চিকেন বিরিয়ানি, লাচ্ছা পরোটা, স্পেশাল মিষ্টি দই ও টক দই, কিসমিস ফিরনি, স্পেশাল লাচ্ছি, পাটিসাপটা পিঠা, চিকেন ফিস এন্ড চিপস, বিফ রোল, চিকেন রোল, ভারতীয় আলু কিমা চপ, জালি কাবাবসহ আকর্ষণীয় সব আইটেম।

এছাড়া ক্রেতাদের সুবিধার্থে রয়েছে বিভিন্ন প্যাকেজের ব্যবস্থা।

হোটেল মেরিডিয়ান

রকমারি ইফতার আয়োজনে পিছিয়ে নেই মেরিডিয়ানও। স্পেশাল ও বিশেষ আইটেমের সমন্বয়ে এবারের রমজানে নানা খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে এখানে। থাকছে বিশেষ মাটন ও চিকেন হালিম, হায়দ্রাবাদী বিরিয়ানি, ফিরনি, বিশেষ জিলাপি, দইবড়া, সমুচা, বিভিন্ন ফলের জুসসহ মেরিডিয়ানের নিজস্ব আম্রপালির আমের জুস। রমজান উপলক্ষে রেস্টুরেন্টের নিচে ইফতার সামগ্রী বিক্রির জন্য খোলা হয়েছে বিশেষ বিক্রয় কেন্দ্র।

রয়েল সুইটস
ঘিয়ে ভাজা ব্যতিক্রমী আইটেমে নগরবাসীকে সবসময় কাছে টেনেছে বাটালি রোডের রয়েল সুইটস।  তবে, সব মেন্যু ছাড়িয়ে প্রতিবারই রোজায় চাহিদা বেড়ে যায় রয়েল জিলাপীর।  ইফতারীর অন্যান্য মেন্যুর মধ্যে রয়েছে রোল, অনথন, সমুচা, ফালুদা–ফিরনিসহ  বিভিন্ন মিষ্টান্ন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০১৪

প্লাজমা দিয়েও বাঁচানো গেল না করোনা রোগী
শর্ত মেনে করতে হবে নাটকের শুটিং
শাহ আমানত বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে প্রস্তুতি
টানা দ্বিতীয়বার সবচেয়ে দামি ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ
রাজাপু‌রে পু‌লিশ‌কে কু‌পি‌য়ে জখম


করোনায় শান্ত-মারিয়াম ফাউন্ডেশনের ইমামুল কবীরের মৃত্যু
ফ্লয়েডের এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না ওবামা
সোনাইমুড়ীতে ২৭টি অস্ত্রসহ গ্রেফতার ২ 
করোনায় ভারতে নতুন আক্রান্ত ৭৯৬৪, মৃত্যু ২৬৫ জনের
মহাদেবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নিহত