অপহরণ মামলা

সেনা সদস্যকে আটকের পর বাহিনীতে ফেরত

777 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
নগরীর কোতোয়ালি থানার পাথরঘাটা থেকে আড়াই বছরের এক শিশুকে অপহরণের ঘটনায় আবু ওবায়েদ নামে এক সেনা সদস্যকে আটকের পর সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম: নগরীর কোতোয়ালি থানার পাথরঘাটা থেকে আড়াই বছরের এক শিশুকে অপহরণের ঘটনায় আবু ওবায়েদ নামে এক সেনা সদস্যকে আটকের পর সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ঢাকার মিরপুর থেকে ওই সেনা সদস্যসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়। পুলিশ চারজনকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করলেও সেনা সদস্যের বিষয়টি গোপন রাখে। শনিবার পুলিশ আটক সেনা সদস্যকে সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তরের বিষয়টি আদালতে লিখিতভাবে জানালে বিষয়টি ফাঁস হয়।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) মুহাম্মদ রেজাউল মাসুদ বাংলানিউজকে বলেন, কোতোয়ালি থানার একটি অপহরণ মামলায় গ্রেফতার হওয়া চারজনকে শনিবার আদালতে হাজির করা হয়েছে। একই ঘটনায় সেনাবাহিনীর একজন সিপাহী আটক থাকলেও তাকে বিধি অনুযায়ী এবং জিডিমূলে ওই বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বিষয়টি আদালতকে অবহিত করা হয়েছে।

তিনি জানান, খুন এবং ধর্ষণের মতো অপরাধ ছাড়া অন্য কোনো অভিযোগে কোনো সেনা সদস্য আটক হলে পুলিশ রেগুলেশন অব বেঙ্গল (পিআরবি) এর ৩২০ ধারা মতে তাকে সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করতে হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আবু ওবায়েদ ঢাকায় আর্মি স্টাফ কলেজে কর্মরত আছেন। তার বাড়ি কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলায়।

বৃহস্পতিবার রাতে আটক হওয়া বাকি চারজন হলেন, মো. ইয়াহিয়া (২৭), হুমায়ুন কবির (২৬), অনুপা (২৬) ও সাঞ্জু (৩৮)। তাদের সকলের বাড়ি সিলেট জেলায়।  এর মধ্যে অনুপা ও সাঞ্জু ঢাকার তেজগাঁও থানার তেজকুনিপাড়ার একটি ভাড়া বাসায় থাকেন।



তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা শিশুর নাম দেবরাজ। সে পাথরঘাটা এলাকার ওমান প্রবাসী রাজু দের ছেলে। 

সূত্র জানায়, ইয়াহিয়া ওমানে যাওয়ার ভিসার জন্য তার এলাকার এক বন্ধুকে কিছু টাকা দিয়েছিলেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে ইয়াহিয়া ভিসা পাননি। ওমানে ওই বন্ধুর রুমমেট ছিলেন অপহৃত শিশুর বাবা রাজু দে। সেই সূত্রে ইয়াহিয়ার সঙ্গে রাজু দের ফোনে বেশ কয়েকবার কথা হয়।

ফোনালাপে রাজু ইয়াহিয়াকে জানান, তার চিন্তা করার কিছু নেই। তিনি নিজে ভিসার দায়িত্ব নেবেন। এ সময় রাজু ইয়াহিয়াকে চট্টগ্রামে তার বাসার ঠিকানাও দেন।

এর মধ্যে ইয়াহিয়া ওমানে যাবেন না জানিয়ে রাজুর কাছে তার বন্ধুকে দেওয়া টাকা ফেরত চান। কিন্তু টাকা ফেরত না পেয়ে ইয়াহিয়া রাজুর আড়াই বছরের শিশুকে অপহরণ করে টাকা আদায়ের ফন্দি করেন।

পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ইয়াহিয়া নিজের এক বন্ধুসহ রাজু দের বাসায় গিয়ে দেবরাজকে অপহরণ এবং ৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন।

অপহরণের পর রাজু দের পরিবারের পক্ষ থেকে কোতোয়ালি থানায় ডায়েরি করা হয়।

পরে পুলিশ সদস্যরা রাজু দের পরিবারের আত্মীয় পরিচয়ে অপহরণকারীদের সঙ্গে মুক্তিপণের বিষয়ে দেন-দরবার করেন। এক পর্যায়ে তিন লাখ টাকা মুক্তিপণে দেবরাজকে ফিরিয়ে দিতে রাজি হন অপহরণকারীরা।

বৃহস্পতিবার রাতে অপহরণকারীরা মিরপুরে মুক্তিপণের টাকা নিতে এলে ডিএমপি’র ডিবি ও এন্টি কিডন্যাপিং স্কোয়াডের সদস্য এবং চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালি থানা পুলিশ পাঁচজনকে আটক করে।

সূত্র জানায়, ডিএমপি’র ডিবিতে জিডি মূলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আটক সেনা সদস্যকে সংশ্লিষ্ট লগ এরিয়ায় সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেন। বাকি চার সদস্যকে চট্টগ্রামে এনে শনিবার মহানগর হাকিম আহমদ সাঈদের আদালতে হাজির করা হয়।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) মুহাম্মদ রেজাউল মাসুদ বাংলানিউজকে জানান, চারজনের মধ্যে এক মহিলা অপহরণের দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। বাকি তিনজনসহ চারজনকেই কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

** অপহৃত শিশু উদ্ধার, আটক ৪

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, জুন ২৮, ২০১৪

রাজধানীতে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ
কক্সবাজারে আরো ৪৬ জন করোনা আক্রান্ত
শ্রীমঙ্গলে ৬৭ মামলায় ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা
আড়াইহাজারে দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু
সিলেটে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ৪৮ জন


নালিতাবাড়ীতে বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু
বগুড়ায় একদিনে সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত
সাবেক মেয়র কামরানের স্ত্রী করোনা আক্রান্ত
বাগেরহাটে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১
নিহত ৫ জনের পরিচয় শনাক্ত করেছে ইউনাইটেড কর্তৃপক্ষ