php glass

নতুন সূচি প্রণয়নে দেরি: বিলম্বে পৌঁছবে ট্রেনও

956 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton
বুধবার থেকে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলে নতুন সূচিতে বিক্রি হবে রেলের টিকেট। ওয়ার্কিং টাইম টেবিল ৫০ অনুযায়ী ১৫ জুন থেকে তা কার্যকর হবে।

চট্টগ্রাম: বুধবার থেকে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলে নতুন সূচিতে বিক্রি হবে রেলের টিকেট। ওয়ার্কিং টাইম টেবিল ৫০ অনুযায়ী ১৫ জুন থেকে তা কার্যকর হবে। 

গত বছর ১০ জুন থেকে কার্যকর হলেও এবছর কিছুটা দেরিতে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের ওয়ার্কিং টাইম টেবিল কার্যকর হচ্ছে। নতুন সূচি অনুয়ায়ী প্রতিটি ট্রেন গন্তব্যে পৌঁছবে ১০ থেকে ৪০ মিনিট বিলম্বে। 

রেলওয়ের বেশকয়েকটি প্রকল্পের কাজ দীর্ঘায়িত হওয়ায় সূচি প্রণয়নে দেরি হয়েছে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। 

তবে ওয়ার্কিং টাইম টেবিল কিছুটা দেরিতে কার্যকর হলেও এটি বাস্তবায়ন হলে বিভিন্ন ট্রেনের শিডিউল আগের চেয়ে অনেক বেশি কার্যকর হবে বলে মনে করছেন রেলওয়ের মহাপরিচালক তাফাজ্জল হোসেন।

তিনি জানান, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের ৩৩ টি আন্ত:নগর এবং ৩৬ টি মেইল ও এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ১৫ জুন থেকে নতুন সূচিতে চলবে ট্রেন।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, পূর্বাঞ্চলের ৪০টি আন্ত:নগর ট্রেনের মধ্যে ৬টি ট্রেনের যাত্রা ও গন্তব্যে পৌঁছার সময়, ৩টির যাত্রার সময় এবং ১৫টির কেবল গন্তব্যে পৌঁছার সময় পরিবর্তন হয়েছে। অন্যদিকে ৬৬টি মেইল ও এক্সপ্রেস ট্রেনের মধ্যে ১১টি ট্রেনের যাত্রা ও গন্তব্যে পৌঁছার সময় পরিবর্তন হয়েছে। এছাড়াও মেইল ও এক্সপ্রেস ট্রেনের মধ্যে শুধুমাত্র যাত্রার সময় পরিবর্তন হয়েছে ৪টি ট্রেনের এবং কেবল গন্তব্যে পৌঁছার সময় পরিবর্তন হয়েছে ২১টি ট্রেনের।

রেলওয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মূলত ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের ডাবল লাইন নির্মাণের দুটি প্রকল্পের কাজ চলমান থাকায় বেশির ভাগ ট্রেনের গন্তব্যে পৌঁছার সময় বাড়ানো হয়েছে।

৪০ মিনিট বিলম্বে গন্তব্যে পৌঁছবে ট্রেন: 
নতুন টাইম টেবিল-এ গড়ে ১০-৪০ মিনিট পর্যন্ত সময়সূচির পরিবর্তন করা হয়েছে। গন্তব্যে পৌঁছার সময় বাড়ানোর কারণে পূর্বাঞ্চলের বিভিন্ন রুটে ট্রেন আগের তুলনায় সর্বোচ্চ ৪০ মিনিট পর্যন্ত বিলম্বে পৌঁছবে।

চলতি বছরের মধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের ডাবল লাইন নির্মাণের কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। ফলে আগামী বছরের শুরুতে বর্ধিত সময় কমে আসবে বলে আশা করছেন রেলের কর্মকর্তারা।

রেলওয়ের মহাপরিচালক তাফাজ্জল হোসেন বাংলানিউজকে বলেন ঢাকা-চট্টগ্রাম ডাবল লাইন প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর আবেদনের প্রেক্ষিতে বিভিন্ন ট্রেনের যাত্রা ও গন্তব্যে পৌঁছার সময়সূচি বাড়ানো হয়েছে।

প্রকল্পের কাজ শেষ হলে রেলের শিডিউল বিপর্যয় কমে যাওয়ার পাশাপাশি পূর্বাঞ্চলের ট্রেনগুলো গন্তব্যে পৌঁছার সময় কমে আসবে আশা করছেন তিনি।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান পরিবহন কর্মকর্তা মিহির কান্তি গুহ বাংলানিউজকে জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে বর্তমানে টঙ্গী-ভৈরব বাজার এবং লাকসাম-চিনকি আস্তানা পর্যন্ত ডাবল রেললাইন নির্মাণ কাজ চলছে। প্রকল্পের সিংহভাগ কাজ শেষ হওয়ায় প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে লাকসাম-চিনকিআস্তানা পর্যন্ত ৩০ মিনিট এবং টঙ্গী-ভৈরব বাজার পর্যন্ত ২০ মিনিট অতিরিক্ত সময়ের আবেদন করে।

এজন্য নতুন ওয়ার্কিং টাইম টেবিল-এ সব ধরণের ট্রেনের গন্তব্যে পৌঁছার সময় বাড়ানো হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ডাবল লাইনের ট্র্যাক বসানোর কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। বর্তমানে কম্পিউটার বেইজড ইন্টারলকিং (সিবিআই) পদ্ধতি প্রয়োগ করার প্রয়োজনে সময় চাওয়া হয়েছে।

নতুন টাইম টেবিল অনুযায়ী আন্ত:নগর ট্রেনের মধ্যে এগারসিন্ধুর প্রভাতী ট্রেনের যাত্রার সময় ১ ঘন্টা ১০ মিনিট কমিয়ে সকাল ৭টা এবং গন্তব্যে পৌঁছার সময় ১ ঘন্টা কমিয়ে আনা হয়েছে। এছাড়া নোয়াখালীগামী উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচি এক ঘন্টা কমিয়ে ৩টা ২০ মিনিটে, ঢাকাগামী মহানগর গোধুলি ট্রেনের যাত্রার সময় ১ ঘন্টা বাড়িয়ে বিকাল ৪টা ২০ মিনিট করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়:২০৫৫ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০১৪

জামালগঞ্জে বজ্রপাতে বাবা-ছেলের মৃত্যু
ক্রিকেট কোনো খেলা নয়
কেউ যাবে সাগরে, কেউ আনে মাছ
গণপরিবহনে নৈরাজ্য, চলছে সিটিংয়ের নামে প্রতারণা
ইরানি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি যুক্তরাষ্ট্রের


কুড়িগ্রামে চরম দুর্ভোগে পানিবন্দি সাড়ে ৭ লাখ মানুষ
আইসিসির হল অব ফেমে শচীন
সবুজে মিশে থাকে সুমিষ্ট ‘সোনা-কপালি হরবোলা’
বিকেলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক
সুশিক্ষার মাধ্যমে মানুষের মধ্যে মানবিক মূল্যবোধ তৈরি হয়