php glass

বৃত্ত ভাঙার চেষ্টায় রণজিৎ রক্ষিত, মুগ্ধ শ্রোতা

629 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
সবাই বলেন তিনি দ্রোহের কবিতা পড়েন, প্রেমের কবিতা পড়েন না। তাই শুক্রবার সন্ধ্যায় একক আবৃত্তিসন্ধ্যায় পিনপতন নীরবতার মধ্যে পাঁচমিশালী কবিতা শুনিয়েছেন বরেণ্য আবৃত্তিশিল্পী রণজিৎ রক্ষিত। তার পরিবেশনায় ছিল ছন্দ, সুর আর রূপের খেলা। সঙ্গে ছিল নয়টি স্থায়ী রস আর তেত্রিশটির মত অস্থায়ী রস।

চট্টগ্রাম: সবাই বলেন তিনি দ্রোহের কবিতা পড়েন, প্রেমের কবিতা পড়েন না। তাই শুক্রবার সন্ধ্যায় একক আবৃত্তিসন্ধ্যায় পিনপতন নীরবতার মধ্যে পাঁচমিশালী কবিতা শুনিয়েছেন বরেণ্য আবৃত্তিশিল্পী রণজিৎ রক্ষিত। তার পরিবেশনায় ছিল ছন্দ, সুর আর রূপের খেলা। সঙ্গে ছিল নয়টি স্থায়ী রস আর তেত্রিশটির মত অস্থায়ী রস।

রণজিৎ রক্ষিত বলেন, ‘শিক্ষকতা, মুক্তিযুদ্ধ, অভিনয় এসবের বাইরে দীর্ঘদিন ধরে আবৃত্তির সঙ্গে আছি। মাঝে মধ্যে বৃত্ত ভাঙার চেষ্টা করেছি।’

রণজিৎ রক্ষিতের বৃত্ত ভাঙার চেষ্টার প্রতিফলন দেখেছেন সবাই শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে। রণজিৎ রক্ষিত যখন এ সরল স্বীকারোক্তি দিচ্ছিলেন তখন মিলনায়তনে ভক্ত, অনুরাগীদের উপচে পড়া ভিড়।

বাংলা সাহিত্যের বাছাই করা ২৫টি কবিতার মধ্য দিয়ে নিজের সঞ্চিত ছন্দ, সুর, তাল, লয় ও রসের ঝাঁপি উজাড় করে দেন তিনি। অনুষঙ্গ হিসেবে ছিল পঙক্তির সঙ্গে মিল রেখে চলমান ছবি, নৃত্যশিল্পী প্রমা অবন্তীর নাচ, কিশোর নিবেদন দাশগুপ্তের তবলার বোল, প্রিয়ম চক্রবর্তীর মন্দিরাবাদন ইত্যাদি।

রবি ঠাকুরের ‘অন্তর মম’ দিয়ে আবৃত্তির সূচনা করেন রণজিৎ রক্ষিত। এরপর তাকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন খ্যাতিমান সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন। রণজিৎ রক্ষিত সম্পর্কে ড. সেন বলেন, ‘বাসার পাশে বাসা হওয়ায় ছোটবেলা থেকেই তাকে আমি চিনতাম। আশির দশকের উত্তাল সময়ে চট্টগ্রামের সংস্কৃতি অঙ্গনকে যারা ধরে রেখেছিলেন তাদের অন্যতম তিনি। তার কণ্ঠ অসাধারণ, ভরাট। দেশের বরেণ্য আবৃত্তিকারদের মধ্যে রণজিৎ একজন। তার কাজ ও সহস্র শিষ্যের মধ্য দিয়ে তিনি বাংলা ভাষাভাষীর কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।’



ড. সেন আরও বলেন, ‘গান যেমন মানুষকে জাগায় তেমনি নাড়া দেয়, আলোড়ন তোলে আবৃত্তি। কবিতা মানুষকে শুদ্ধ করে, অমৃতের স্পর্শ দেয়, অনির্বচনীয় আনন্দ দেয়, মহৎ প্রয়াসে ঝাঁপিয়ে পড়তে উদ্বুদ্ধ করে। বাংলা সাহিত্যে রবি ঠাকুরের অমর কবিতা-গান এখনো আমাদের মহৎ চেতনায় উজ্জীবিত করে। নজরুলকে আমি বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ স্বাধীনতার কবি মনে করি। শেকল ভাঙার রচনায় তার তুলনা নাই।’

বোধনের উপদেষ্টা ডা. মঈনুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘ডিসি হিলকে ঘিরে সাংস্কৃতিক বলয় করার যে আন্দোলন তা-ই ধ্বনিত হচ্ছে এ অনুষ্ঠানে। চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অনেকেই ঢাকায় চলে গেছেন। আমাদের হারানো ঐতিহ্য ফেরাতে হবে। রণজিৎ রক্ষিতের মতো আবৃত্তিকারদের যত বেশি অনুষ্ঠান হবে, তাদের কণ্ঠ যত বেশি মানুষের কাছে পৌঁছাবে ততই নারায়ণগঞ্জ কিংবা লক্ষ্মীপুরের মতো ঘটনা কমতে থাকবে।’

রণজিৎ রক্ষিতের বাছাই করা কবিতাগুলোর মধ্যে কণ্ঠে বেশি উপভোগ্য ছিল-মাইকেলের ‘কপোতাক্ষ নদ’ ও ‘প্রিয় বালিশের প্রতি’, রবির ‘নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ’, পূর্ণেন্দু পত্রীর ‘সেই গল্পটা’, চে’র ‘ফিদেলের জন্য গান’, শক্তির ‘অবনী বাড়ি আছো?’, হেলাল হাফিজের ‘প্রস্থান’ ও ‘নিখুঁত স্ট্রাটেজি’, জীবনানন্দের ‘আবার আসিব ফিরে’।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪০ঘণ্টা, জুন ০৭,২০১৪

খুলনায় কোরবানিযোগ্য পশু ৭ লাখ
রেলের ১ লাখ হাজার কোটি টাকার জমি বেদখল
কাপ্তাই হ্রদে সেকেন্ডে ছাড়া হচ্ছে ৩৩ হাজার কিউসেক পানি
এইচএসসির ফল জানা যাবে যেভাবে
সিরাজগঞ্জ চরাঞ্চলের সাড়ে ৯০০ গ্রাম প্লাবিত


কুড়িগ্রামে পানিবন্দি সাড়ে ৩ লাখ মানুষ
মেঘনার ভাঙন রোধে ১৬ কিলোমিটার বাঁধ হবে
বন্যাকবলিতদের জন্য রেডক্রিসেন্টের বিশেষ সহায়তা
অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী বিরোধীদল দরকার
তৃণমূল থেকে দলকে সুসংগঠিত করার নির্দেশ আ’লীগ নেতাদের