ইউএসটিসিতে অচলাবস্থা কাটেনি, চতুর্থ দিনও বিক্ষোভ

112 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
চাকুরি বিধিমালা প্রণয়ণের দাবিতে শিক্ষক-চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিদের লাগাতার আন্দোলনে সৃষ্ট অচলাবস্থা কাটিয়ে উঠতে পারেনি বেসরকারি চট্টগ্রাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ইএসটিসি)।

চট্টগ্রাম: চাকুরি বিধিমালা প্রণয়ণের দাবিতে শিক্ষক-চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিদের লাগাতার আন্দোলনে সৃষ্ট অচলাবস্থা কাটিয়ে উঠতে পারেনি বেসরকারি চট্টগ্রাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ইএসটিসি)।

বুধবার লাগাতার আন্দোলনের চতুর্থ দিনও বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। প্রতিদিনের মতো সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করেছে শিক্ষক-চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিরা। এসময় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশও করে তারা।

এদিকে, আন্দোলনের চতুর্থ দিন বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের সঙ্গে আন্দোলনকারিদের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে, বৈঠকে বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার কোন কার্যকর উদ্যোগ ছাড়াই তা শেষ হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, প্রতিদিনের মতো সকাল নয়টা থেকেই আন্দোলনকারী শিক্ষক-চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারিদের কর্মবিরতি শুরু হয়। এসময় কালো ব্যাজ ধারণ করে আন্দোলনকারিরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। মিছিল শেষে বিশ্ববিদ্যালয় অডিটেরিয়ামে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘চাকুরি বিধিমালা না থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারিরা তাদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। মেরুদণ্ডহীন সিন্ডিকেট ও স্বেচ্ছাচারি ট্রাস্টি বোর্ডের কারণে চাকুরি বিধিমালা বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না।’

বক্তারা বলেন,‘বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জিত টাকা জনসেবা ফাউন্ডেশনের অ্যাকাউন্টে চলে যাওয়ায় নিত্য নতুন সংকটের সৃষ্টি হচ্ছে। চ্যান্সেলর দফতর, দুর্নীতি দমন কমিশন, সরকারি গোয়েন্দা, কর কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোর নজরদারির অভাবে জনসেবা ফাউন্ডেশনের তহবিল লুটপাট চলছে।’

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইউএসটিসি হাসপাতালের মহা পরিচালক  ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শওকত আলী, কমিউনিটি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. ফয়েজ আহমেদ খান, কম্পিউটার সায়েন্স অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন ড. রেজওয়ান করিম, সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. বদিউল আলম, সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. হাসান, শিশু বিভাগের অধ্যাপক দিদারুল আলম, মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. মোস্তফা কামাল, ফরেনসিক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. আলী, বিএমএ নেতা এস এম মাহবুবুল কবির, ফার্মেসি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. কিশোর মজুমদার, বিবিএ অনুষদের ডিন ড. কাজী আহমেদ নবী, শিক্ষক, চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব আনোয়ারুল ইসলাম বাপ্পী প্রমুখ।

জনসেবা ফাউন্ডেশনের অর্থ লুটপাটের অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চেয়ে ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আহমেদ ইফতেখারুল ইসলামকে ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

প্রসঙ্গত, চাকরি বিধিমালা প্রণয়ণের দাবিতে গত রোববার থেকে ইউএসটিসিতে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রেখে শিক্ষক-চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্দোলন চলছে। আন্দোলন চলাকালে প্রতিদিন চার ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করেছে তারা। তবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীভুক্ত হাসপাতালের কার্যক্রম চলছে।

আন্দোলনকারিদের সঙ্গে প্রশাসনের নিষ্ফল বৈঠক

চলমান অচলাবস্থা নিরসনে দুপুর একটার দিকে আন্দোলনকারিদের নিয়ে বৈঠক করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য ডা. রেজাউল করিম। এসময় তার সঙ্গে প্রো-ভিসি অধ্যাপক নুরুল আবছার ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক শামসুদ্দোহা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে কোন সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা জানতে চাইলে আন্দোলকারীদের সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব আনোয়ারুল ইসলাম বাপ্পী বাংলানিউজকে বলেন, ‘বৈঠকে ভিসি স্যার জানিয়েছেন, তিনি এ ব্যাপারে সমাধানের জন্য ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যানের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করতে চেয়ে সক্ষম হননি। তার সঙ্গে যোগাযোগ করা গেলে সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নিবেন।’

তবে, এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি সরাসরি সাক্ষাত ছাড়া কোন কিছু জানানো সম্ভব নয় বলে জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৭ ঘণ্ট, মে ২১, ২০১৪

মাগুরায় যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
কক্সবাজার সৈকতের বালিয়াড়ি তৈরিতে হচ্ছে সাগরলতা বনায়ন 
ঠাকুরগাঁওয়ে করোনা সন্দেহে ১৪ জনের নমুনা সংগ্রহ 
নদী তীরের মাটি কাটায় সোয়া লাখ টাকা জরিমানা
ব্যক্তি উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ করলো ‘সহযোগী’


উপোস থাকবে না রাস্তার কুকুরগুলোও
দেশের ৯ জেলায় ছড়িয়েছে করোনা সংক্রমণ 
না’গঞ্জের পুরাতন পালপাড়ায় অঘোষিত লকডাউন 
র‌্যাব সদস্য করোনা আক্রান্ত, টেকনাফে ১৫ বাড়ি-দোকান লকডাউন
তালিকা টাঙিয়ে হঠাৎ ১৮৯ পোশাক শ্রমিককে অব্যাহতি