php glass

‘গণমাধ্যমে নারীকে নিয়ে সংবাদের চেয়ে ছবির ব্যবহার দ্বিগুণ’

173 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
বাংলাদেশের গণমাধ্যমে নারীদের নিয়ে প্রতিবেদনের চেয়ে তাদের ছবি ব্যবহারের হার দ্বিগুণ বলে মত দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. গীতি আরা নাসরিন।

 চট্টগ্রাম:বাংলাদেশের গণমাধ্যমে নারীদের নিয়ে প্রতিবেদনের চেয়ে তাদের ছবি ব্যবহারের হার দ্বিগুণ বলে মত দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. গীতি আরা নাসরিন।

একটি পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদন তুলে ধরে তিনি জানান, সংবাদপত্রে মাত্র ১৬ শতাংশ, টেলিভিশনে ১৪ শতাংশ ও রেডিওতে ২২ শতাংশ নারী সংবাদের বিষয় হয়েছেন। পরিমাণবাচক বিশ্লেষণে দেখা যায় সংবাদে নারীকে উদ্ধৃত করার হার পুরুষের তুলনায় কম হলেও ছবি ব্যবহারের হার পুরুষের তুলনায় প্রায় দ্বিগুন।  

মঙ্গলবার দুপুরে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ (বিএনপিএস) আয়োজিত এক মত বিনিময় সভায় তিনি এ পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদন তুলে ধরেন।

একই মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, নারী ও গ্রাম এখনো উপেক্ষিত। আর গ্রাম ও নারীর প্রতি এ অবহেলা সমাজের কাঠামোগত সমস্যা। বর্তমানে গণমাধ্যম মুষ্টিমেয় ক্ষমতাশালী অংশেরই প্রতিনিধত্ব করছে। গণমাধ্যমকে সত্যিকার অর্থেই জনগণের মাধ্যম হিসেবে গড়ে তুলতে পারলেই এই বৈষম্য দূর হবে।

নগরীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনের সেমিনার হলে ‘সংবাদে নারী ও গ্রাম: যথাযথ উপস্থাপনা নিশ্চিতকরণ’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক ড. গীতি আরা নাসরিন।

এ বিষয়ে গণমাধ্যম পরীবিক্ষণের ফলাফল উপস্থাপন করে গীতি আরা নাসরিন বলেন, পাঁচটি জাতীয় ও পাঁচটি আঞ্চলিক সংবাদপত্র, সরকারি-বেসরকারি পাঁচটি টেলিভিশন চ্যানেল এবং একটি বেতার কেন্দ্রের সংবাদ বাছাই করা হয়। বাংলাদেশের মোট আয়তনের মাত্র আট শতাংশ নগর। কিন্তু পরীবিক্ষণে দেখা যায় বিপরীতভাবে সংবাদপত্রে আট দশমিক ৮৩ শতাংশ, টেলিভিশনের আট দশমিক ৬৪ শতাংশ এবং রেডিওর মাত্র এক দশমিক ৯২ শতাংশ সংবাদ গ্রাম বিষয়ে।

২০১৩ সালের ১ থেকে ৮ জুলাই এবং ২৮ জুলাই থেকে ৪ অগাস্ট এই পরীবিক্ষণের জন্য ৭ হাজার ১২৩টি প্রতিবেদন পর্যবেক্ষণ করা হয় জানিয়ে গীতি আরা বলেন, সার্বিক বিবেচনায় নারীও সমানভাবে উপেক্ষিত। পরীবিক্ষণে দেখা যায়, সংবাদপত্রে মাত্র ১৬ শতাংশ, টেলিভিশনে ১৪ শতাংশ ও রেডিওতে ২২ শতাংশ নারী সংবাদে বিষয় হয়েছেন। পরিমাণবাচক বিশ্লেষণে দেখা যায় সংবাদে নারীকে উদ্ধৃত করার হার পুরুষের তুলনায় কম হলেও ছবি ব্যবহারের হার পুরুষের তুলনায় প্রায় দ্বিগুন।

তিনি বলেন, নারী প্রধান প্রতিবেদন তৈরির হার যেমন কম ঠিক তেমনি গণমাধ্যমে কর্মরত নারীদের মধ্যে মাত্র তিন দশমিক ৩৩ শতাংশ নারী প্রতিবেদক। বাকিরা শুধুই  সংবাদ পাঠক। নারীর প্রতি এ অবহেলা একটি বৈষম্যমূলক সমাজের কাঠামোগত সমস্যা। গণমাধ্যম মুষ্টিমেয় ক্ষমতাশালী অংশেরই প্রতিনিধত্ব করছে। গণমাধ্যমকে সত্যিকার অর্থেই জনগণের মাধ্যম হিসেবে করে তুলতে সমন্বিত চেষ্টা প্রয়োজন।

কবি কামরুল হাসান বাদলের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বিএনপিএসের পক্ষে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শরীফ চৌহান। সভায় প্যানেল আলোচক ছিলেন পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ডা. একিউএম সিরাজুল ইসলাম, অধ্যাপিকা রিতা দত্ত, ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সস্টিটিউশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সাবেক সভাপতি দেলোয়ার মজুমদার, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সাদাফ নূর এ ইসলাম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন নিপু।

সভায় পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ডা. একিউএম সিরাজুল ইসলাম বলেন, রাষ্ট্রীয়ভাবেই আমাদের দেশে গ্রাম ও নারী উপেক্ষিত। সব ক্ষমতার কেন্দ্র ঢাকায় হওয়ায় প্রচলিত ধারণা হল, ঢাকাকে নিয়ন্ত্রণে রাখা গেলে সব নিয়ন্ত্রণে থাকবে। গ্রামে পাঠক-দর্শক নেই এমন ধারণা থেকেই সংবাদে গ্রামীণ জনগোষ্ঠী প্রাধান্য পায় না।

অধ্যাপিকা রিতা দত্ত বলেন, গ্রামই আমাদের জীবন। শুধু শহরেই ঘটনা ঘটে না। গ্রামেও ঘটনা ঘটে। গ্রামীণ নারী, গ্রামীণ পরিবেশ ও গ্রামের খবর বেশি করে ছাপাতে হবে।

ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন চট্টগ্রামের সাবেক সভাপতি দেলোয়ার মজুমদার বলেন, প্রচলিত সমাজ ব্যবস্থার পরিবর্তন চাই। সমাজ মানস, শিক্ষা ও কাজের সুযোগ এবং ক্ষমতায়নে পিছিয়ে থেকেও নারী নিজ যোগ্যতায় স্ব স্ব ক্ষেত্রে টিকে আছে এবং এগিয়ে যাচ্ছে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপিকা লতিফা কবির, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রাজীব নন্দী, প্রত্যয় ৭১‘র সাধারণ সম্পাদক লুবনা হারুন, আইনজীবী মিলি চৌধুরী, সাংবাদিক লতিফা আনসারী রুনা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৪ ঘণ্টা, মে ২০, ২০১৪

কসবায় দুইটি ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত ১০
আসামি ধরতে গিয়ে হামলায় ৩ পুলিশ জখম
আড়িয়াল বিলে বিমানবন্দরের সম্ভাবনা বহু দূরে চলে গেছে 
রাস্তায় আন্দোলন করে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা যাবে না
বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ এখন ভালো: গণপূর্তমন্ত্রী


মুক্তি পেল দণ্ডিত ১২১ শিশু
বড় ভাইকে গলা কেটে হত্যা, সৎভাই আটক
উন্মোচিত হলো নুমাইর আতিফ চৌধুরীর ‘বাবু বাংলাদেশ’
চুরির দায়ে বেনাপোল কাস্টমস হাউজের ৫ সদস্য বরখাস্ত 
বিএনপি জাতীয়তাবাদী শক্তির প্লাটফর্ম: গয়েশ্বর