php glass

শামসুল ইসলামসহ ২১ জন কারাগারে

207 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমির ও সাবেক সাংসদ আ ন ম শামসুল ইসলাম ও সেক্রেটারি নজরুল ইসলামসহ আটক হওয়া ২১ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একইসঙ্গে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের সাতদিনের রিমান্ডের আবেদনের উপর শুনানির জন্য ১৮ মে সময় নির্ধারণ করেছেন আদালত।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমির ও সাবেক সাংসদ আ ন ম শামসুল ইসলাম ও সেক্রেটারি নজরুল ইসলামসহ আটক হওয়া ২১ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একইসঙ্গে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের সাতদিনের রিমান্ডের আবেদনের উপর শুনানির জন্য ১৮ মে সময় নির্ধারণ করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম রহমত আলী এসব আদেশ দেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মুহাম্মদ রেজাউল মাসুদ বাংলানিউজকে বলেন, সাবেক সাংসদ শামসুল ইসলামসহ ২১ জনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। তাদের রিমান্ডে নেয়ার আবেদনের শুনানি হবে ১৮ মে।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ৩টার দিকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে কোতয়ালী থানা থেকে চট্টগ্রাম আদালতে হাজির করা হয়। তাদের মহানগর হাকিম রহমত আলীর আদালতে নেয়া হলে জামায়াত নেতাদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন জানান। শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন।

সোমবার বিকেলে নগরীর দেওয়ানবাজার এলাকায় জামায়াতের কার্যালয়ে এক বৈঠক থেকে ২১ জনকে আটক করা হয়। এসময় তল্লাশি চালিয়ে বেশকিছু বিস্ফোরকও উদ্ধার করা হয়।

আটক হওয়া ২১ জনের মধ্যে আছেন, নগর জামায়াতের আমির আ ন ম শামসুল ইসলাম, সেক্রেটারি নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক আ জ ম ওবায়দুল্লাহ, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড.হাবিবুর রহমান, দক্ষিণ জেলা জামায়াত কার্যালয়ের কর্মচারী মো.মাঈনুদ্দিন ও নগর জামায়াতের কার্যালয়ের কর্মচারী আবু বক্কর সিদ্দিক, চট্টগ্রাম বন্দরের কর্মচারী আব্দুল হাকিম, বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণাগারের (বিসিএসআইআর) কর্মচারী এবিএম মনিরুজ্জামান, জামায়াত কার্যালয়ের মসজিদের মুয়াজ্জিন মো.সেলিম উদ্দিন, নগর জামায়াতের সদস্য জাকির হোসেন, ডা.সৈয়দ মো.আলম, আইয়ূব আলী ও আব্দুল মতিন, পতেঙ্গা ইসলামিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুল মোতালেব, ইসলামিয়া একাডেমির কর্মচারী সিদ্দিকুর রহমান, দেওয়ানবাজার ওয়ার্ড জামায়াতের প্রচার সম্পাদক শাহ আলম, দেওয়ানবাজার মসজিদের খাদেম ইব্রাহিম এবং জামায়াতের সক্রিয় সদস্য তৌহিদুল আলম, আবুল হাশেম ও ফারুক আজম।

জামায়াত কার্যালয় থেকে উদ্ধার করা বিস্ফোরকের মধ্যে আছে, দেড় কেজি পটাশ, দুই লিটার পেট্রল এবং বেশ কয়েকটি বোতল।

সোমবার গভীর রাতে কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ইমাম হোসেন বাদি হয়ে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের ৬ এর ১ (ক) ধারায় আটক ২১ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ২১ জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন জানান তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই রফিকুল ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২০ঘণ্টা, মে ১৩,২০১৪

সুবিধাজনক অবস্থানে রাজশাহী-খুলনা 
পাথরঘাটায় বিস্ফোরণে আহত তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক
সিডনিতে অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ ট্রেড কনফারেন্স
কাউখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু
সিলেটে মার্কেট-মোবাইল টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ড


হাবিবে মিল্লাতের সঙ্গে আইএফআরসির যুব চেয়ারম্যানের সাক্ষাৎ
দারুণ দিনে কোনালের কণ্ঠে রুনার গান
পেঁয়াজে নিম্নবিত্তের ভরসা টিসিবির ট্রাক সেলে 
খুলনায় চতুর্থ দিনে ৪ কোটি ২৯ লাখ টাকার কর আদায়
হৃদয়ের রেকর্ড সেঞ্চুরিতে সিরিজ জিতল যুবারা