পোশাক কারখানায় ভাংচুরের ঘটনায় বিজিএমইএ’র উদ্বেগ

174 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
নগরীর আঁতুরার ডিপো এলাকায় ডে ফ্যাশন ও ডে অ্যাপারেলস লিমিটেড নামে দুটি পোশাক কারখানায় হামলা-ভাংচুরের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ।
php glass

চট্টগ্রাম: নগরীর আঁতুরার ডিপো এলাকায় ডে ফ্যাশন ও ডে অ্যাপারেলস লিমিটেড নামে দুটি পোশাক কারখানায় হামলা-ভাংচুরের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ।

শ্রমিক নামধারী কিছু উশৃঙ্খল ব্যক্তি কারখানায় ঢুকে ভাংচুর ও তৈরী পোশাক লুট করে নিয়ে যায় অভিযোগ করে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। 

বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি নাসিরউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী কারখানা ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, অ‌্যাকর্ড‘র নির্দেশনায় কারখানা বন্ধ করা হয়। যে কোন চালু কারখানা হঠাৎ করে বন্ধ করা বা স্থানান্তর করা যায় না এর জন্য সময়ের প্রয়োজন। 

অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্স‘র কারণে এ ধরণের শ্রমিক অসন্তোষ ঘটছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এর দায়-দায়িত্ব তাদেরকে নিতে হবে।

কারখানা বন্ধের আগে অন্তত ১৫ দিন আগে রিয়েকশন টাইম দেওয়া হলে  অনাকাঙ্খিত ঘটনা রোধ করা যেত বলে করে করছেন সংশ্লিষ্টরা। পাশাপাশি কারখানা নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে আরো তৎপর হওয়া প্রয়োজন বলেও মনে করেন তারা।

রোববার কারখানা দুটিতে হামলা-ভাংচুরের পর সোমবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম সেখানে পরিদর্শনে গেলে এসব কথা বলে বিজিএমইএ নেতারা।

এসময় বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি জনাব নাসিরউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, পরিচালক আবদুল ওয়াহাব, শেখ সাদী, সাব্বির মোস্তফা, অঞ্জন শেখর দাশ ও সাবেক প্রথম সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন চৌধুরী এসময় সঙ্গে ছিলেন। 

কারখানা দু’টির চেয়ারম্যান বিজিএমইএ পরিচালক আবদুল ওয়াহাব জানান, বর্তমান ভবনে ১৯৯৫ সাল থেকে কারখানা দু’টি পরিচালিত হয়ে আসছে। এ পর্যন্ত কখনো মজুরী বা অন্য কোন কারণে শ্রমিক অসন্তোষ হয়নি।

গত ১৫ মার্চ অ্যাকর্ড‘র পরিদর্শক দল একই ভবনে অবস্থিত ম্যানস্ এ্যাপারেলস্ লিমিটেড পরিদর্শনে গিয়ে ভবনটিকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে। একারণে মালিক পরে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ৫ এপ্রিল রিভিউ কমিটির বৈঠক হয়। বৈঠকে ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে জরুরী ভিত্তিতে খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

ফলে ডে ফ্যশন এবং ডে এ্যাপারেলস্ বন্ধ ঘোষণা করে ৮ এপ্রিল শ্রমিকদের বেতন ভাতা পরিশোধের ঘোষণা দেওয়া হয়। কিন্তু তার আগে ৬ এপ্রিল শ্রমিক নামধারী কয়েক’শ উশৃঙ্খল ব্যক্তি কারখানায় ঢুকে ভাংচুর শুরু করে এবং তৈরী পোশাক লুট করে নিয়ে যায় অভিযোগ করেন মালিকপক্ষ।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সিএমপি কমিশনার বিজিএমইএ নেতাদের সঙ্গে নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ কারখানার পরিদর্শনে যান। এসময় তিনি বলেন, কারখানার নিরাপত্তা বিধান অত্যন্ত জরুরি।

প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২২০১ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৭, ২০১৪

তাকে চাই আগে | আলেক্স আলীম
নিহত ১২ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীকে সম্মান জানালো জাতিসংঘ
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার
বাসে নারীকে যৌন হয়রানি, গোল্ডেন লাইনের চালক আটক
ফ্রান্সে পার্সেল বোমা হামলা, আহত ১৩


ভূমধ্যসাগর থেকে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ অভিবাসী উদ্ধার
পিকআপের নিচে চাপা পড়া সেই চালকের মৃত্যু
গ্রিন বন্ডে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়বে
পেস বোলারদের ভালো করতেই হবে: রুবেল
পুলিশি অভিযানে মৃত্যু, এসআইসহ ৬ পুলিশ প্রত্যাহার