নিয়োগ দুর্নীতি

রেলের আরেক সাবেক কর্মকর্তা কারাগারে

307 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে করা মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলে সাবেক অতিরিক্ত প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।
php glass

চট্টগ্রাম: নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে করা মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলে সাবেক অতিরিক্ত প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।
 
সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ এস এম আতাউর রহমানের আদালতে আত্মসমর্পনের পর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়া হয়।
 
রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সহকারী কেমিস্ট ও ফুয়েল চেকার পদে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে করা দুটি মামলায় সোমবার শুনানির দিন নির্ধারিত ছিল।
 
এদিন সকালে আদালতে হাজির হন সাবেক রেল কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান চৌধুরী।

দুদকের আইনজীবী (পিপি) মাহমুদুল হক বাংলানিউজকে বলেন, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সহকারী কেমিস্ট ও ফুয়েল চেকার পদে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে করা দুটি মামলায় পলাতক ছিলেন হাফিজুর। সোমবার আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন আবেদন করেন তিনি। আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পূর্ব রেলের সহকারী কেমিস্ট ও ফুয়েল চেকার পদে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে করা দুটি মামলায় সোমবার শুনানির দিন ধার্য ছিল।

ওই দুই মামলায় অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি হাফিজুর রহমান চৌধুরী সোমবার সকালে আদালতে হাজির হন।

এর আগে গত ফেব্রুয়ারি মাসে ফুয়েল চেকার পদের মামলার আসামি নিয়োগ প্রত্যাশী আনিসুর রহমান ও আবুল কাশেম আদালতে আত্মসমর্পন করলে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

এরপর গত ৩ মার্চ ইউসুফ আলী মৃধা আদালতে আত্মসমর্পন করলে তাকেও কারাগারে পাঠানো হয়।

পূর্ব রেলের সাবেক জিএম মৃধা ও হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে ১৩টি মামলা রয়েছে।

এর মধ্যে ‘সহকারী কেমিস্ট’ ও ‘ফুয়েল চেকার’ পদে নিয়োগে দুর্নীতির মামলায় মৃধাসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে বিচার কাজ শুরু হয়েছে।

সহকারী কেমিস্ট পদের মামলায় আসামিরা হলেন- পূর্ব রেলের তৎকালীন সিনিয়র ওয়েলফেয়ার অফিসার গোলাম কিবরিয়া, সাবেক অতিরিক্ত প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পূর্ব রেলের সাবেক জিএম ইউসুফ আলী মৃধা, সহকারী কেমিস্ট পদপ্রার্থী সুলতানা বেগম ও গণেশ চন্দ্র শীল।

ফুয়েল চেকার পদের মামলায় আসামিরা হলেন- পূর্ব রেলের সাবেক জিএম ইউসুফ আলী মৃধা, সাবেক জ্যেষ্ঠ ওয়েলফেয়ার কর্মকর্তা গোলাম কিবরিয়া, সাবেক অতিরিক্ত প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান চৌধুরী ও দুই নিয়োগ প্রত্যাশী আবুল কাশেম ও আনিসুর রহমান।

২০১২ সালের ৯ এপ্রিল মধ্যরাতে ঢাকায় বিজিবি সদর দপ্তরে সাবেক রেলমন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের সহকারী ওমর ফারুক তালুকদারকে বহনকারী গাড়িতে বিপুল পরিমাণ টাকা পাওয়ার ঘটনার পর ব্যাপক তোলপাড় শুরু হলে ওই গাড়িতে থাকা ইউসুফ আলী ও হাফিজুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

চাকরিচ্যুত হন রেলমন্ত্রীর সহকারী ওমর ফারুক তালুকদারও।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, ওই গাড়িতে ৭০ লাখ টাকা ছিল, যা আদায় করা হয়েছে রেলে নিয়োগ বাণিজ্যের মাধ্যমে।

এরপর পূর্ব রেলের নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগে ওই বছর ১৩ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম কোতোয়ালি থানায় ছয়টি মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৪ঘণ্টা, এপ্রিল ০৭, ২০১৪

ম্যানসিটি ছাড়লেন রেনেসাঁ যুগের অধিনায়ক কোম্পানি 
উপমন্ত্রী নওফেল সেজে ছাত্রলীগ নেত্রীকে অপহরণচেষ্টা!
রোজা মানুষের জন্য কেয়ামতের দিন সুপারিশ করবে
বাইবেল থেকে স্যামির ভবিষ্যদ্বাণী, চ্যাম্পিয়ন উইন্ডিজ
মুক্তিযোদ্ধাদের বয়সসীমা নির্ধারণের গেজেট-পরিপত্র অবৈধ


১৫তম নিবন্ধন প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ
কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার দাবিতে মানববন্ধন
৮ মামলায় নূর হোসেনের হাজিরা
ঈদের আগেই পাটকল শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবি
যৌন নিপীড়ন বন্ধে পাঠ্যসহ সর্বস্তরে সচেতনতা গড়ার তাগিদ