সংবাদ সম্মেলনে শ্রমিক লীগ

ছালাম আ’লীগে ‘অবৈধ অনুপ্রবেশকারী’

119 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামকে আওয়ামী লীগে ‘অবৈধ অনুপ্রবেশকারী’ বলে দাবি করেছে নগর শ্রমিক লীগ। তাদের আরও দাবি, সামরিক-বেসামরিক ওয়ান ইলেভেন চক্র ষড়যন্ত্র করতে তাকে আওয়ামী লীগের ঢুকিয়ে দিয়েছে।
php glass

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামকে আওয়ামী লীগে ‘অবৈধ অনুপ্রবেশকারী’ বলে দাবি করেছে নগর শ্রমিক লীগ। তাদের আরও দাবি, সামরিক-বেসামরিক ওয়ান ইলেভেন চক্র ষড়যন্ত্র করতে তাকে আওয়ামী লীগের ঢুকিয়ে দিয়েছে।

ছালামের অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন ও শ্রমিক-কর্মচারী সমাবেশের ডাক দিয়েছে নগর শ্রমিক লীগ। ৯ এপ্রিল সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সিডিএ ভবনের সামনে এ কর্মসূচী পালনের ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি।

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ কর্মসূচীর ঘোষণা দিয়ে নগর শ্রমিক লীগের নেতারা বলেছেন, এরপরও দুর্নীতিবাজ সিডিএ চেয়ারম্যানকে অপসারণ করা না হলে সিডিএ ভবন ঘেরাওসহ আরও কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে।

আবদুচ ছালামের অপসারণ এবং সিডিএ কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমানের চাকুরিচ্যুতি ও সিবিএ নেতাদের বদলি আদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নগর শ্রমিক লীগের সভাপতি বখতেয়ার উদ্দিন খান।

এতে সিডিএ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিএনপি-জামায়াতপন্থী শ্রমিক নেতাদের পৃষ্ঠপোষকতা ও সিডিএ কর্মচারী লীগের নেতাদের হয়রানির অভিযোগ তোলা হয়।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সিডিএ চেয়ারম্যানের কাছে কর্মচারী লীগের পক্ষ থেকে কর্মচারীদের দাবি ও সমস্যা তুলে ধরা হলেও গত পাঁচ বছরে তিনি একটি দাবিও পূরণ করেননি। তিনি জামায়াত-বিএনপিপন্থী জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের অর্ন্তভুক্ত সিডিএ এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন এবং সিডিএ কর্মচারী লীগের কতিপয় পদত্যাগী সদস্যকে নিয়ে সিবিএ ও নন সিবিএ ব্যানারে বিভিন্ন সভায় উপস্থিত হন। সিডিএ কর্মচারী লীগের নেতাদের তিনি বিভিন্নভাবে দমন-পীড়ন শুরু করেন।

এতে আরও বলা হয়, সিডিএ চেয়ারম্যান কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমানকে রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষে শ্রম আইনের ১৮৭ ধারা লংঘন করে বদলি করেন। বদলি আদেশের বিরুদ্ধে মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় শ্রম আইনের ২২৮ ধারা অমান্য করে গত ১৩ মার্চ হাবিবুর রহমানকে চাকুরিচ্যুত করা হয়। চেয়ারম্যান মূলত সিডিএকে বিএনপি-জামায়াতের ঘাঁটিতে পরিণত করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে সিডিএ চেয়ারম্যানের বিভিন্ন দুর্নীতির বর্ণনা দিয়ে নগর শ্রমিক লীগের নেতারা বলেন, চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য আবদুচ ছালাম প্লট বরাদ্দ নীতিমালা লঙ্ঘণ করে মন্ত্রী-এমপি ও তার আত্মীয়স্বজনকে ৬০টি প্লট বরাদ্দ দেন।

দুর্নীতির মাধ্যমে অযোগ্য ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ দেয়ায় বহদ্দারহাটে নির্মাণাধীন  ফ্লাইওভার ধসে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেন শ্রমিক লীগের নেতারা।

নিজ দলের নেতার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে নগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ‍মাহবুবুল হক চৌধুরী এটলি বলেন, আবদুচ ছালাম ওয়ান ইলেভেন পরবর্তী দলের মধ্যে ষড়যন্ত্রকারীদের একজন। তিনি কখনও রাজনীতি করেননি। তিনি আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী। ক্ষমতা দখলকারী সামরিক-বেসামরিক চক্র দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন এবং বিভেদ সৃষ্টির জন্য তাকে আওয়ামী লীগে ঢুকিয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা সরকারী, আওয়ামী লীগ কিংবা সিডিএ’র বিরুদ্ধে নয়। আমরা দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্নকারী আবদুচ ছালামের অপসারণ চাই।

সংবাদ সম্মেলনে ওয়াসা কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, নগর শ্রমিক লীগ নেতা আবুল হোসেন আবু, সিডিএ কর্মচারী লীগের সভাপতি বিমান বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য ২০০৫ সালে তৎকালীন মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর হাত ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় হন শিল্পপতি আবদুচ ছালাম। মহিউদ্দিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের সুবাদে ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তিনি বাগিয়ে নেন সিডিএ চেয়ারম্যানের পদ। ছালামকে নিয়োগের মাধ্যমে সিডিএ’র ইতিহাসে প্রথমবারের মত রাজনৈতিক নিয়োগের ঘটনা ঘটে।

২০১০ সালের মাঝামাঝিতে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মহিউদ্দিন পরাজিত হবার পর নগর আওয়ামী লীগে বিভক্তি দেখা দেয়। ছালাম তৎকালীন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী আফছারুল আমিনের হাত ধরে মহিউদ্দিন বিরোধী গ্রুপে যোগ দেন।

এরপর থেকে মহিউদ্দিনের অনুসারী সিডিএ কর্মচারী লীগ, নগর শ্রমিক লীগ সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামের পদত্যাগ দাবি করে আসছে। তাদের অভিযোগ, সিডিএ চেয়ারম্যান নজিরবিহীন দুর্নীতি ছাড়াও জামায়াত-শিবিরকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছেন।

২০১২ সালের নভেম্বরে নগরীর বহদ্দারহাটে নির্মাণাধীন ফ্লাইওভার ধসে পড়ার পর সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামের গ্রেপ্তার দাবি করেছিলেন এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২০ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫,২০১৪

যে ১২ ট্রেনের টিকিট মিলছে কমলাপুরে
ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু
ছোটপর্দায় আজকের খেলা
অ্যাপসে রেলের টিকিট সাড়ে ১৩ হাজার, ‘মিলছে না একটিও’
দিনাজপুরের সুস্বাদু লিচু এখন বাজারে


অপেক্ষার পালা শেষ, কমলাপুরে টিকিট বিক্রি শুরু
গাংনীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
নেই চিরচেনা রূপ, তবুও কমলাপুরে রাত জেগে টিকিটের অপেক্ষা
ময়লা ফেলায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
শিক্ষার মান উন্নয়নে এগিয়ে যাচ্ছে ফেনী ইউনিভার্সিটি