বিকল্প জ্বালানী উৎপাদন খাতে বিনিয়োগের আহ্বান শিল্পমন্ত্রীর

150 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
চাহিদা মোকাবেলায় বিকল্প জ্বালানী উৎপাদন খাতের বিনিয়োগকে উত্তম বিনিয়োগ মন্তব্য করে এ খাতে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু।
php glass

চট্টগ্রাম: চাহিদা মোকাবেলায় বিকল্প জ্বালানী উৎপাদন খাতের বিনিয়োগকে উত্তম বিনিয়োগ মন্তব্য করে এ খাতে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু।

বুধবার দুপুরে নগরীর বায়েজিদ এলাকায় এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান তিনি। সিভিও পেট্রোক্যামিক্যাল রিফাইনারী লিমিটেড’র ‌উৎপাদন কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে দেশে দ্রুত বিদ্যুৎ ও জ্বালানীর চাহিদা বাড়ছে। তিন হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ থেকে ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ  উৎপাদনে বর্তমান সরকার সক্ষম হলেও চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে না।

বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ার পাশাপাশি চাহিদাও বাড়ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,‘তিন হাজার মেগাওয়াট দিয়ে এক সময় দেশের শিল্প-কারখানাসহ জাতীয় চাহিদা মেটানোর চেষ্টা করা হলেও বর্তমানে ১০ হাজার মেগাওয়াট দিয়েও এ চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে না।‘

‘এ অবস্থায় বিকল্প জ্বালানীর উপর চাপ বাড়ছে। এ চাহিদা মোকাবেলায় বিকল্প জ্বালানী উৎপাদন খাতে বিনিয়োগ একটি উত্তম বিনিয়োগ। আশা করি চট্টগ্রামের উগ্যোক্তারা এ ধরণের বিনিয়োগের সুযোগ গ্রহণ করবেন এবং বিকল্প জ্বালানী উৎপাদনে দেশের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কার্যকর অবদান রাখবেন।‘

পরিবেশের ভারসাম্য ঠিক রাখতে সরকার সবুজ প্রযুক্তির উপর গুরুত্ব দিচ্ছে উল্লেখ করে আমীর হোসেন বলেন, এক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে শিল্প স্থাপনে ব্যয় কিছুটা বেশি হলেও দীর্ঘ মেয়াদে এর সুফল অনেক বেশি।

তিনি বলেন,‘সবুজ প্রযুক্তি ও জ্বালানী নির্ভর তৃতীয় শিল্প বিপ্লবের ঢেউ শিল্পোন্নত দেশগুলো থেকে বর্তমান উন্নয়নশীল দেশগুলোতেও লাগছে। বিশ্বায়নের এ প্রক্রিয়া থেকে বাংলাদেশ কোনভাবেই বিচ্ছিন্ন নয়। তৃতীয় শিল্প বিপ্লবের সুফল কাজে লাগাতে হবে। আর এর ‍সুফল পেতে হলে সবুজ প্রযুক্তি ও জ্বালানী ব্যবহারে দিকে যেতে হবে। এজন্য পরিবেশবান্ধব উৎপাদনের সক্ষমতা বাড়াতে হবে।‘

সিভিও পেট্রোক্যামিকেল রিফাইনারি স্থাপনকে মহতি উদ্যোগ আখ্যায়িত করে মন্ত্রী বলেন, এ রিফাইনারিতে উৎপাদিত পেট্রোক্যামিকেল আমদানি করলে প্রতি বছর সাড়ে ৩০০ কোটি টাকা সরকারের খরচ হতো। এটি চালুর ফলে এ ‍অর্থ সাশ্রয় হবে। এছাড়া সরকার প্রতি বছর প্রায় ৬০ কোটি টাকা রাজস্ব পাবে।

সভাপতির বক্তব্যে প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা ও সাংসদ মাঈনুদ্দিন খান বাদল বলেন, অনেক প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেল করে এ প্রতিষ্ঠান তার সততা দিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

তিনি শেয়ার হোল্ডারদের উদ্দেশ্যে বলেন,‘আমাদের উপর আস্থা রাখুন। আমরা সফল হবো।‘

ঢাকা ও কুমিল্লায় চাহিদার ৭০ শতাংশ গ্যাস সরবরাহ করা হলেও চট্টগ্রামে চাহিদার ৪০ শতাংশ গ্যাস সরবরাহ হয় জানিয়ে তিনি বলেন, যখন গ্যাসের উৎপাদন কম ছিল তখন যে পরিমাণ গ্যাস দেওয়া হতো এখন তার চেয়ে আরো কম দেওয়া হচ্ছে।

চট্টগ্রামের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে উল্লেখ করে বাদল মঞ্চে উপস্থিত শিল্পমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, চট্টগ্রামে গ্যাসের তীব্র সংকট। সংকট সমাধানে গুরুত্ব না দিলে চট্টগ্রামে অচিরেই সমস্যা দেখা দেখা দিতে পারে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমরা বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতেই যুদ্ধ করে এদেশ স্বাধীন করেছি। তাই অর্থনৈতিকভাবে আমাদের সমৃদ্ধ হতে হবে।

এ প্লান্ট প্রতিষ্ঠিত হলে বৈদেশিক মুদ্রা বাঁচবে উল্লেখ করে তিনি গুণগত মান ঠিক রেখে পণ্য উৎপাদনের আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের ডিএমডি নিজাম উদ্দিন মাহমুদ হোসাইন জানান, এক সময়ের চিটাগাং ভেজিটেবল অয়েল ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডকে সিভিও পেট্রোক্যামিকেল রিফাইনারি লিমিটেড এ রূপান্তর করা হয়। নতুন আঙ্গিকে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে এবং পণ্য বৈচিত্রকরণের উদ্দেশ্যেই এ রূপান্তর।

জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতিপ্রাপ্ত রিফাইনারি প্লান্টের দৈনিক উৎপাদন ক্ষমতা ১৫০ মেট্রিক টন। এতে বছরে ৫০ হাজার মেট্রিক টন গ্যাস কনডেনসেট কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করে পেট্রল, ডিজেল, অকটেন, এমটিটি ও থিনার উৎপাদন করা হবে। প্রতিষ্ঠানটি এরইমধ্যে বিপিসি, পেট্রো বাংলা, পরিবেশ অধিদপ্তর, বুয়েটসহ অন্যান্য সরকারি সংস্থার সনদ পেয়েছে বলেও জানান তিনি। 

পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু করতে জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় কাঁচামাল হিসেবে ৩ হাজার মেট্রিক টন গ্যাস কনডেনসেট বরাদ্দ দিয়েছে বলেও জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান শামসুল আলম শামীম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এইচ এম হাবীব উল্লাহ, পরিচালক নুরুল আলম আনসারী, মো.আমীন, এমরানুল হক, চিফ কনসালটেন্ট ইঞ্জিনিয়ার এ এফ এম ইসহাক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়:১৬০৫ঘণ্টা, এপ্রিল ০২, ২০১৪

৮ মাত্রার ভূমিকম্পে কাঁপলো পেরু
ধানের দামের প্রভাব পাইকারি বস্ত্রের বাজারেও!
খালেদাকে দেশের সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে: তথ্যমন্ত্রী
নান্দাইলে ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন
খুলনায় ঈদ পোশাকে গলাকাটা দাম!


শ্রীলঙ্কা থেকে আইএসের নৌকা যাত্রার খবরে কেরালায় সতকর্তা
ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে: কাদের
ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল
সাদুল্যাপুরে কাপড় ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা
ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে পুড়ে শিশুর মৃত্যু