চট্টগ্রামে চলছে অবরোধের দ্বিতীয় দিন, কাভার্ড ভ্যানে আগুন

43 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম/ ফাইল ফটো

walton

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা চতুর্থ দফা ৭২ ঘণ্টা অবরোধের দ্বিতীয় দিন চলছে। চট্টগ্রামে অবরোধের প্রথম দিন কোনো ধরনের উত্তাপ না থাকলেও মঙ্গলবার রাতের বিভিন্ন সময়ে ৭টি কাভার্ড ভ্যানে অগ্নিসংযোগ করেছেন অবরোধ সমর্থকরা।

php glass

চট্টগ্রাম: বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা চতুর্থ দফা ৭২ ঘণ্টা অবরোধের দ্বিতীয় দিন চলছে। চট্টগ্রামে অবরোধের প্রথম দিন কোনো ধরনের উত্তাপ না থাকলেও মঙ্গলবার রাতের বিভিন্ন সময়ে ৭টি কাভার্ড ভ্যানে অগ্নিসংযোগ করেছেন অবরোধ সমর্থকরা।

এছাড়া বুধবার সকাল পর্যন্ত নগরী কিংবা জেলার কোথাও কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে সীতাকুণ্ডের ফকিরহাট এলাকায় ৭টি কাভার্ড ভ্যানে অগ্নিসংযোগ করেছেন অবরোধ সমর্থকরা। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক জসীম উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার গভীর রাতে সীতাকুণ্ডের ফকিরহাটে এলাকায় ৭টি কাভার্ড ভ্যানে আগুন দেন অবরোধ সর্মথকরা। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এদিকে অবরোধের কারণে নগরীতে প্রয়োজনের তুলনায় গণপরিবহন কম চলাচল করায় কর্মমুখী মানুষদের বেশ দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) হারুন-অর রশিদ হাজারী বলেন, নগরীতে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাইনি।

তবে নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে নাশকতা এড়াতে পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, অবরোধের কারণে রাস্তায় গণপরিবহন সংখ্যায় কম হলেও টেম্পু, সিএনজি চালিত অটোরিকশা, টেক্সিসহ হিউম্যান হলার চলাচল করতে দেখা গেছে।

তবে গণপরিবহন অপর্যাপ্ততায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন কর্মস্থলগামী বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। বিশেষ করে কিছু শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা থাকায় বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

তবে চট্টগ্রামের সঙ্গে দেশের বিভিন্ন এলাকার রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক রয়েছে। চালু রয়েছে কল-কারখানা। খুলতে শুরু করেছে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি অফিস।

চট্টগ্রাম বন্দরের অভ্যন্তরীণ কার্যক্রম চললেও বাইরে পণ্য পরিবহন সীমিত আকারে চালু রয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

এদিকে জেলার কোথাও কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। মহাসড়কে সীমিত যান চলাচল করলেও দূরপাল্লার যান বন্ধ রয়েছে।

হাইওয়ে পুলিশের বারআউলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ জাকির হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার গভীর রাতে কয়েকটি কাভার্ড ভ্যানে অগ্নিসংযোগ করেছেন অবরোধকারীরা। এছাড়া মহাসড়কে আর কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। বিচ্ছিন্নভাবে কিছু যানবাহন চলাচল করছে। তবে দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এদিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কেও কোনো নাশকতার খবর পাওয়া যায়নি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জেলার মহাসড়কে তিন হাজার অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সীতাকুণ্ডে সার্বক্ষণিকভাবে বিজিবি মোতায়েন আছে। অন্যান্য উপজেলার জন্যও বিজিবি প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৩
সম্পাদনা: জনি সাহা, নিউজরুম এডিটর

রাজশাহীর আম রপ্তানিতে সহযোগিতা করবে বিজিএমইএ
ভালোবাসা ও সহযোগিতায় ছোঁয়া সুস্থ জীবন ফিরে পাবে
বিএনপিকে বাটি চালান দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না
বিএনপি সবকিছুতে সরকারের ছায়া খুঁজছে: আইনমন্ত্রী
দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পুরস্কার পেলেন ক্যালিস


আইএসের সঙ্গে সম্পৃক্ত ১৪০ শ্রীলঙ্কানকে খুঁজছে পুলিশ
ত্রিপুরায় দুই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
মেলায় ১০০ লিচু ৪০০ টাকা!
রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দল
এবার বিগ ব্যাশ থেকেও ওয়াটসনের অবসর