ঢাকা, বুধবার, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ক্রিকেট

মাহমুদউল্লাহদের হারিয়ে বড় জয় তুলে নিল নাজমুলরা

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২০
মাহমুদউল্লাহদের হারিয়ে বড় জয় তুলে নিল নাজমুলরা নাজমুল একাদশের উইকেট উদযাপন। ছবি: শোয়েব মিথুন

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের চতুর্থ ম্যাচে জয় পেয়েছে নাজমুল একাদশ। মাহমুদউল্লাহ একাদশকে ১৩১ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে নাজমুলের দল।

মিরপুরে আগে ব্যাট করতে নেমে আফিফ হোসেন ও মুশফিকুর রহিমের অর্ধশতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৬৪ রান করে নাজমুলের দল। জবাবে নাজমুল একাদশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ১৩৩ রানে অলআউট হয় মাহমুদউল্লাহ একাদশ।  

২৬৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই চাপে পড়ে যায় মাহমুদুল্লাহরা। কোনো ব্যাটসম্যানই উল্লেখযোগ্য রান করতে পারেনি। ৩২.১ ওভারে মাত্র ১৩৩ রানে অলআউট হয় মাহমুদুল্লাহ দল। আর এতেই ১৩১ রানের বিশাল জয় পায় নাজমুলের দল। মাহমুদউল্লাহ একাদশের লিটন দাস ও নুরুল হাসান সোহান সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন।

নাজমুল একাদশের আবু জায়েদ রাহি ও নাসুম আহমেদ ৩টি, রিশাদ আহমেদ ২টি ও আল আমিন হোসেন ১টি করে উইকেট নেন।

মিরপুরে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি নাজমুল একাদশের। স্কোরবোর্ডে ৩১ রান যোগ হতেই প্যাভিলিয়নে ফেরত যান সৌম্য সরকার (৮), নাজমুল হোসেন শান্ত (৩) ও পারভেজ হোসেন ইমন (১৯)। চাপে পড়ে যায় নাজমুল একাদশ।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে আফিফ হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে সেই চাপ সামাল দেন গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান মুশফিকুর রহিম। শতরানের জুটি গড়েন তারা। অর্ধশতক তুলে নেন আফিফ।

বেশ আস্থার সঙ্গে ব্যাট করতে থাকেন এই ২১ বছর বয়সী বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। তবে অল্পের জন্য সেঞ্চুরি করতে পারেননি তিনি। মুশফিকের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে ব্যক্তিগত ৯৮ রানের সময় রান আউটের শিকার হন আফিফ। ভাঙে ১৪৭ রানের চতুর্থ উইকেট জুটি।

আফিফের বিদায়ের পর অর্ধশতক তুলে নেন মুশফিফ। তবে ইনিংস আর বড় করতে পারেননি তিনি। দলীয় ১৮৭ রানের মাথায় ৫২ রান করে ফেরত যান মুশি। ইরফান শুক্কুর ও তৌহিদ হৃদয় ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে আরও ৫০ রান যোগ করেন।

হৃদয় ২৭ রান করে আউট হলে ৭০ রানের সপ্তম উইকেট জুটি ভাঙে। শেষ পর্যন্ত ৮ উকেটে ২৬৪ রান করে নাজমুল একাদশ। ইরফান ৩১ বলে ৪৮ রানে অপরাজিত থাকেন।  

মাহমুদুল্লাহ একাদশের রুবেল হোসেন ৩টি এবং এবাদত হোসেন ২টি ও সুমন খান ১টি উইকেট নেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২০
আরএআর/ইউবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa