ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ক্রিকেট

অধিনায়ক বদলেও মুম্বাই গেরো কাটাতে পারল না কলকাতা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২০
অধিনায়ক বদলেও মুম্বাই গেরো কাটাতে পারল না কলকাতা ছবি: সংগৃহীত

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের নাম শুনলেই জুজুর ভয় পেয়ে বসে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে। বহুদিন থেকে এমনটাই হয়ে আসছে।

এবারও তার ব্যতিক্রম  হলো না। গ্রুপ পর্বের প্রথম দেখার পর দ্বিতীয় দেখাতেও হেরে গেছে কলকাতা।

ম্যাচের কয়েক ঘণ্টা আগে আচমকা দিনেশ কার্তিককে সরিয়ে নতুন অধিনায়ক হিসেবে এউইন মরগানকে নিয়োগ দিয়েছিল কলকাতা। কিন্তু রাতের ম্যাচে এই পরিবর্তন কোনো কাজেই আসেনি। বরং দাপুটে বোলিং আর ব্যাটিংয়ে ৮ উইকেট ও ১৯ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নিয়েছে মুম্বাই। এই নিয়ে দুই দলের ২৭বারের দেখায় মুম্বাইয়ের এটি ২১তম জয়।

আবুধাবির মন্থর উইকেটে শুরুতে ব্যাটিং করতে নেমে মাত্র ৬৫ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে কলকাতা। এরপর অধিনায়ক মরগান তার দলের এবং আইপিএলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় প্যাট কামিন্সকে নিয়ে ধাক্কা সামাল দেন। দুজনে মিলে ৮৭ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন, যার ওপর ভর করে কলকাতা ১৪৮ রানের সম্মানজনক সংগ্রহ পায়। মরগান ২৯ বলে করেন ৩৯ রান, ৩৬ বলে ৫৩ রান আসে কামিন্সের ব্যাট থেকে।

জবাব দিতে নেমে মুম্বাই শুরু থেকেই আগ্রাসী ব্যাটিং করতে থাকেন। দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও কুইন্টিন ডি কক ওভারপিছু প্রায় ১০ রান করে তুলেছেন। ১০.৩ ওভার পর্যন্ত স্থায়ী এই জুটিতে আসে ৯৪ রান। ৩৬ বলে ৩৫ রানের ইনিংস খেলে রোহিত বিদায় নিলেও ডি কক পাল্টা আক্রমণ জারি রাখেন। মাঝে সূর্যকুমার যাদব ১০ রান করে বিদায় নেওয়ার পর হার্দিক পান্ডিয়াকে নিয়ে বাকি পথ পাড়ি দেন ডি কক। শেষ পর্যন্ত ৪৪ বলে ৭৮ রানে অপরাজিত থাকেন এই বাঁহাতি প্রোটিয়া ওপেনার। পান্ডিয়ার ব্যাট থেকে আসে ১১ বলে ২১ রান।

টানা দুই ম্যাচে হারের পর পয়েন্ট টেবিলের চারে থাকা কলকাতা বেশ চাপেই পড়ে গেল। অন্যদিকে ৮ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এলো মুম্বাই। যদিও সমান পয়েন্ট দিল্লি ক্যাপিটালসেরও। তবে নেট রান রেটে এগিয়ে রোহিতের দল।

বাংলাদেশ সময়: ১০২৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa