ঢাকা, বুধবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

জলবায়ু ও পরিবেশ

বরগুনায় ৫০৯ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
বরগুনায় ৫০৯ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

বরগুনা: বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় সকাল থেকেই ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে হচ্ছে ভারী বৃষ্টিপাত।

এর ফলে উপকূলীয় এলাকায় দেখাতে বলা হয়েছে ৪ নম্বর বিপদ সংকেত। এছাড়া প্রস্তুত করা হয়েছে ৫০৯টি আশ্রয়কেন্দ্র। দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছেন ৭৪ হাজার স্বেচ্ছাসেবী।

এদিকে বৈরী আবহাওয়ার কারণে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানী এড়াতে বরগুনায় সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ভারী বৃষ্টিতে এরই মধ্যে বিভিন্ন এলাকায় পানি জমে গেছে।     

বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, দুর্যোগ মোকাবিলায় বৃহস্পতিবার রাতেও আমার সভা করেছি। ওই সভার মাধ্যমে জেলার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া প্রয়োজন হলে স্থানীয় বাসিন্দারা যাতে নিরাপদে থাকতে পারেন, সেজন্য বরগুনায় ৫০৯ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ঝড়ের সংকেত বাড়লে আমরা স্থানীয়দের নিরাপদে নিয়ে আসার জন্য কাজ করবো। একই সঙ্গে জেলায় ১৮টি খেয়াঘাটে যাত্রী পারাপারসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ করা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির (সিপিপি) বরগুনা সদর উপজেলার টিম লিডার মো. জাকির হোসেন মিরাজ বলেন, আমাদের সব স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রয়েছেন। এরই মধ্যে তারা বেশি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় প্রচারণা শুরু করেছেন। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী স্বেচ্ছাসেবীরা পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন।

এদিকে ঝড়ের প্রভাবে বরগুনার বিভিন্ন এলাকায় গাছ পড়ে বিদুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন  হয়ে গেছে। এছাড়া ভারী বর্ষণের কারণে বরগুনার বেশিরভাগ এলাকা তলিয়ে গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa