৫২টি ডিম দিয়েছে করমজলের কুমির ‘জুলিয়েট’

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজ

walton

বাগেরহাট: বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে ৫২টি ডিম দিয়েছে কুমির ‘জুলিয়েট’। 

শুক্রবার (২৯ মে) সকালে প্রজনন কেন্দ্রের পুকুর পাড়ে নিজ বাসায় এ ডিম দেয় জুলিয়েট। 

৫২টি ডিমের মধ্যে জুলিয়েটের নিজের বাসায় ১৪টি, পুরোতন ইনকিউবেটরে ২৬টি ও নতুন ইনকিউবেটরে ১২টি রাখা হয়েছে। ৮৫ থেকে ৯০ দিনের মধ্যে এসব ডিম থেকে বাচ্চা ফুটতে পারে বলে প্রজনন কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের আশা। এর আগে ২০১৯ সালের ৯ মে ৪৪টি ডিম দিয়েছিল জুলিয়েট।

করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির বাংলানিউজকে বলেন, সকালে জুলিয়েট নিজ বাসায় ৫২টি ডিম দেয়। আমরা ডিমগুলোকে তিনটি ভাগে ভাগ করে রেখেছি। এবারের ডিমগুলো থেকে বাচ্চা পাওয়ার জন্য আমরা প্রাকৃতিক উপায়, গতানুগতিক ইনকিউবেটর ও নিজেদের তৈরি ইনকিউবেটরের সহযোগিতা নিচ্ছি। যাতে ডিম থেকে বাচ্চা পাওয়া যায়, সেজন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। কারণ বিগত তিন বছর এখানে কুমিরের বাচ্চা হচ্ছে না। আশা করি এবার একটি ভালো ফল পাবো। 

২০০০ সালে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের শুরু হলে এখানে কুমিরে ডিম দেয় ২০০৫ সালে। এখন পর্যন্ত করমজলে বিভিন্ন সময় ২৯২টি কুমিরের ছানা জন্ম নিয়েছে। যার মধ্যে ১৯৫টি ছানা এখনো প্রজনন কেন্দ্রে রয়েছে। ৯৭টি কুমিরের ছানা সুন্দরবনের বিভিন্ন নদী ও খালে অবমুক্ত করা হয়েছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৫ ঘণ্টা, মে ২৯, ২০২০
এসআরএস

Nagad
সিলেটে ফ্লাইট বাড়ালো ইউএস-বাংলা
১৬ জুলাই গণতন্ত্র অবরুদ্ধ দিবস: পরিবহন শ্রমিক লীগ
দেশের মুদ্রণ ও প্রকাশনা শিল্পে ক্ষতি ৪ হাজার কোটি টাকা
শেয়ারে কারসাজি: তিন প্রতিষ্ঠান ও দুই ব্যক্তিকে জরিমানা
রাজশাহীতে চোখ রাঙাচ্ছে কীর্তিনাশা পদ্মা


রাজধানীতে এক কিশোরের আত্মহত্যা
চলনবিলের যেকোনো দুর্যোগে জনগণের পাশে আছে সরকার: পলক
রডের পরিবর্তে বাঁশ: নারী ইউপি সদস্য বরখাস্ত
কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে সিবিআই তদন্তের দাবি রিয়ার
‘সবার জন্য অনার্স-মাস্টার্স আর পিএইচডি ডিগ্রির প্রয়োজন নেই’