হাকালুকিতে পাখিশুমারি, গত বছরের চেয়ে বেড়েছে জলচর পাখি

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাকালুকিতে মহাবিপন্ন বেয়ারের-ভুতিহাঁস। ছবি- বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব

walton

মৌলভীবাজার: সিলেট-মৌলভীবাজার জুড়ে বিস্তৃত এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ মিঠাপানির জলাভূমি হাকালুকি হাওরে পাখিশুমারি করা হয়েছে। শুমারি অনুসারে গতবছরের তুলনায় এ বছর জলচর পাখির সংখ্যা বেড়েছে। পাওয়া গেছে ৫৩ প্রজাতির পাখি। 

গত ২৮ ও ২৯ জানুযারি দুই দিনব্যাপী বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব ও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচার (আইইউসিএন) বাংলাদেশ’র যৌথ উদ্যোগে হাকালুকির ৪০টি বিলে এ পাখিশুমারি করা হয়। 

বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব ও আইইউসিএন এর ড. পল থমসন, ইনাম আল হক, ওমর শাহাদাত, শাহেদ ফেরদৌস, শফিকুর রহমান, তারেক অণু প্রমুখ এ শুমারিতে অংশগ্রহণ করেন।

শুমারি নিয়ে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও পাখি বিশেষজ্ঞ ইনাম আল হক বাংলানিউজকে বলেন, অতি সম্প্রতি হাকালুকির হাওরের পাখি গণনায় সর্বমোট ৫৩ প্রজাতির ৪০ হাজার ১২৬ জলচর পাখি পাওয়া গেছে। এ সংখ্যা ২০১৯ সালের চেয়ে কিছুটা বেশি। গত বছর আমরা পেয়েছিলাম ৩৭ হাজার ৯৩১টি পাখি। তবে এর আগে ২০১৭ ও ২০১৮ সালে এ দুই বছরের চেয়ে পাখির সংখ্যা বেশি ছিল। ২০১৮ সালে পাখি পাওয়া গিয়েছিল ৪৫ হাজার ১০০টি। ২০১৭ সালে মিলেছিল ৫৮ হাজার ২৮১টি পাখি। 

‘পাখিসমৃদ্ধ বিলের মধ্যে প্রথম হলো চোকিয়া বিল। এ বিলে আমরা মোট ৫ হাজার ৪৩০টি পাখি পেয়েছই। দ্বিতীয় স্থানে আছে চ্যাতলা বিল। আমাদের গণনায় এই বিলে পাওয়া গেছে ৫ হাজার ১৪৭টি পাখি। এরপরপরই ফুটবিল ও বালিয়াজুরি বিলে যথাক্রমে ৪ হাজার ৯৮৩ ও ৩ হাজার ৩০৫টি জলচর পাখির বিচরণ লক্ষ্য করা গেছে।’

টেলিস্কোপ কাঁধে নিয়ে হাকালুকির পাখিশুমারিতে অংশ নিচ্ছেন ড. পল থমসন।। ছবি- বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব

এ পাখি বিশেষজ্ঞ আরও বলেন, অত্যন্ত আশার কথা হলো শুমারিতে হুমকির মুখে আছে এমন ৬ প্রজাতির পাখি পাওয়া গেছে। এগুলো হলো- ‘মহাবিপন্ন’ বেয়ারের-ভুতিহাঁস (Baer’s Pochard,  ‘সংকটাপন্ন’ পাতি-ভুতিহাঁস (Common pochard) ও ‘প্রায়-সংকটাপন্ন’ মরচেরঙ-ভুতিহাঁস (Ferruginous Duck), ফুলুরি-হাঁস (Falcated Duck), কালামাথা-কাস্তেচরা (Black-headed Ibis), উত্তুরে-টিটি (Vanellus vanellus) ও উদয়ী-গয়ার (Oriental Darter)।

হাকালুকির যে সব বিলে পাখিশুমারি হয়েছে সেগুলো হলো- হাওয়াবন্যা, কালাপানি, রঞ্চি, দুধাই, গড়কুড়ি, চোকিয়া, উজান-তরুল, ফুট, হিংগাউজুড়ি, নাগাঁও, লরিবাঈ, তল্লার বিল, কাংলি, কুড়ি, চেনাউড়া, পিংলা, পরোটি, আগদের বিল, চেতলা, নামা-তরুল, নাগাঁও-ধুলিয়া, মাইছলা-ডাক, চন্দর, মালাম, ফুয়ালা, পলোভাঙা, হাওড় খাল, কইর-কণা, মোয়াইজুড়ি, জল্লা, কুকুরডুবি, বালিজুড়ি, বালিকুড়ি, মাইছলা, গড়শিকোণা, চোলা, পদ্মা, কাটুয়া, তেকোণা, মেদা, বায়া, গজুয়া, হারামডিঙা, গোয়ালজুড়। 

শুমারিকালে হাওড়খাল বিলে বিষটোপ দিয়ে মারা পাখির সন্ধানও মেলে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব। পাখি ও জীববৈচিত্র্যের জন্য এ ধরনের কর্মকাণ্ড হুমকি বলে উল্লেখ করেছে তারা। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২০
বিবিবি/এইচজে

লাম্পি স্কিন রোগে ২০ গরুর মৃত্যু, দিশেহারা খামারিরা
আগরতলায় ঘূর্ণিঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি
আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ দ্রুত মেরামত করা হবে
অপ্রয়োজনে ঘোরাঘুরি না করতে তথ্যমন্ত্রীর অনুরোধ
নিয়ম মেনে সীমিত অফিস ১৫ জুন পর্যন্ত, অন্য নিষেধাজ্ঞা বহাল


দুর্যোগে নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করা বিএনপির রাজনীতি
ঢাকা ছাড়লেন ১৭০ ভারতীয় নাগরিক
কুষ্টিয়ায় ৭২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত, ফসলের ক্ষতি
১২টি করোনা টেস্টিং বুথ বসানোর উদ্যোগ মেয়র নাছিরের
আড়াইহাজারে দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ একজন নিহত