নতুন প্রজাতির ‘বাদুড়’ পেলো বাংলাদেশ 

বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন, ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশের প্রথম রেকর্ড ‘বড় পাতানাক বাদুড়’। ছবি: ড. মনিরুল খান

walton

মৌলভীবাজার: অন্ধকার গুহা। নির্জন চারদিক। তার ভেতরই চুপ করে ঝুলে ছিল বাদুড়টি। সন্ধ্যা নামলেই তার ডানা মেলার শ্রেষ্ঠ সময়। খাদ্যানুসন্ধানে ঘুরে বেড়াবার আপন মুহূর্ত এদিক-ওদিক।

সেই নির্জন গুহাটি হয়ে রইলো একটি রেকর্ডের সাক্ষী। সম্প্রতি বাংলাদেশের বন্যপ্রাণী তালিকায় একটি স্তণ্যপায়ী প্রাণী যোগ হলো। এর নাম ‘বড় পাতানাক বাদুড়’। এর ইংরেজি নাম Great Roundleaf Bat এবং বৈজ্ঞানিক নাম Hipposideros armiger

প্রখ্যাত বন্যপ্রাণী গবেষক, লেখক ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মনিরুল খান বাংলাদেশে সর্বপ্রথম এ বাদুড়ের ছবিটি তার ক্যামেরায় ধারণ করেছেন।   

এ বাদুড়ের নামকরণ এবং ছবিধারণ সম্পর্কে বাংলানিউজকে তিনি বলেন, Great Roundleaf Bat এর বাংলায় কোনো প্রচলিত নাম নেই। তবে ‘বড় পাতানাক বাদুড়’ নামটি দেওয়া যেতে পারে। সম্প্রতি টেকনাফের একটি গুহা থেকে ছবিটি আমি তুলেছি। এর দৈর্ঘ্য প্রায় ৯ দশমিক ৮ সেন্টিমিটার এবং ওজন প্রায় ৬০ গ্রাম। 

তিনি আরও বলেন, এরা নিশাচর প্রাণী। আমাদের অন্যান্য বাদুড়ের মতোই ‘বড় পাতানাক বাদুড়’ এর আচার-আচরণ ও খাদ্যতালিকা। এরা বিভিন্ন জাতের পোকামাকড় অর্থাৎ ফুডঅ্যানিমেলই খায়। দিনে অন্ধকার জায়গায় বিশ্রাম নেয়। সব বাদুড়ের মতো এরাও সন্ধ্যায় খাবারের সন্ধানে বের হয়। 

বাংলাদেশ ছাড়াও এ বড় পাতানাক বাদুড়টির ভারত, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম প্রভৃতি দেশে বৈশ্বিক বিচরণ লক্ষ্য করা গেছে বলে জানান প্রখ্যাত বন্যপ্রাণী গবেষক ড. মনিরুল খান। 

বাংলাদেশ সময়: ২১৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ২০, ২০১৯ 
বিবিবি/এএ

Nagad
পাকুন্দিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ যুবকের মৃত্যু
জুলাইয়ের শেষে চূড়ান্ত পর্যায়ের পরীক্ষায় মডার্নার ভ্যাকসিন
আদাবরে চার মাসের শিশুকে গলা কেটে হত্যা
দেশে ১৫৬১ চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত, মোট মৃত্যু ৬৭
বরিশাল বিভাগে নাজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সই সেরা


মুগদা হাসপাতালে ফটো সাংবাদিকের ওপর হামলা
কাপ্তাইয়ে করোনা উপসর্গ নিয়ে চুয়েট টেকনিশিয়ানের মৃত্যু
স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ২০ চালক-যাত্রীকে অর্থদণ্ড
দৃষ্টি দিন চোখের সাজে 
মোহাম্মদপুরে সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে নারীর মৃত্যু