ঢাকা, বুধবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

জলবায়ু ও পরিবেশ

৮০ বছর পর বাংলাদেশে ধূসর নেকড়ের দেখা, পিটিয়ে হত্যা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৭ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০১৯
৮০ বছর পর বাংলাদেশে ধূসর নেকড়ের দেখা, পিটিয়ে হত্যা পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে নেকড়েটিকে। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: টানা আট দশক পর বাংলাদেশে দেখা মিললো বিরল প্রজাতির ভারতীয় ধূসর নেকড়ের। তবে, সেটি আর জীবন্ত নেই, পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। 

ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব ন্যাচারের তথ্যমতে, সর্বশেষ ১৯৪৯ সালে বাংলাদেশে ধূসর নেকড়ে দেখা গিয়েছিল।

রোববার (১৬ জুন) বন্যপ্রাণি বিশেষজ্ঞরা জানান, বাংলাদেশের সুন্দরবনের নিকটবর্তী একটি গ্রামে সম্প্রতি একটি ধূসর নেকড়ে ধরা পড়ে।

তবে, গবাদি পশুকে আক্রমণের অভিযোগে একে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়।  

চলতি জুন মাসের শুরুর দিকে বিরল প্রজাতির নেকড়েটি ধরা পড়লেও, এর মরদেহের ছবি বিশেষজ্ঞদের কাছে পাঠানোর পরই প্রাণিটিকে চিহ্নিত করা হয়।

ওয়াইল্ডলাইফ ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার কর্মকর্তা ওয়াই ভি ঝালা বার্তাসংস্থা এএফপি’কে বলেন, ছবি দেখে আমরা নিশ্চিত হয়েছি, এটা ভারতীয় ধূসর নেকড়ে।

তিনি বলেন, ভারতে এখনো প্রায় তিন হাজার ধূসর নেকড়ে আছে, যার কিছু আছে বন্দি অবস্থায়। ১৯৪০ সালের দিকে প্রাণিটি এর আদি বাসস্থান উত্তর ও উত্তর-পশ্চিম বাংলাদেশ থেকে বিলুপ্ত হয়ে যায়।

সুন্দরবন এলাকায় হত্যা করা নেকড়েটির ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি বলেন, নেকড়েটি পিটিয়ে হত্যার ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা খতিয়ে দেখছি, প্রাণিটি ওই এলাকায় একা নাকি দলবেঁধে এসেছিল।

গত কয়েক দশকে ডোরাকাটা হায়েনা, ব্ল্যাক বাকের মতো বেশ কয়েকটি প্রাণি বাংলাদেশ থেকে বিলুপ্ত হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৫ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০১৯
একে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa