বৃক্ষরোপণ সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে

524 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, মরুকরণ প্রক্রিয়া রোধ ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণের কোনো বিকল্প নেই। তাই পরিবেশ ও নিজেদের জন্য বিনিয়োগ হিসেবে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিকে সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে।

রাজশাহী: জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, মরুকরণ প্রক্রিয়া রোধ ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণের কোনো বিকল্প নেই। তাই পরিবেশ ও নিজেদের জন্য বিনিয়োগ হিসেবে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিকে সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করতে হবে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের গ্রিন প্লাজায় শনিবার পক্ষকালব্যাপী বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষ মেলা-২০১৪ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এ কথা বলেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, বেশি বেশি বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে দেশের পরিবেশ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি অর্জন করা সম্ভব। সরকার রাজশাহী অঞ্চলের মরুকরণ প্রক্রিয়া ও ফারাক্কা বাধের বিরূপ প্রতিক্রিয়া রোধ করার জন্য একটি দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা বাস্তবায়নের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি বলেন, মানুষের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে হলে সবাইকে বেশি বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। গাছ মানুষের দুর্দিনের একটি বড় সঞ্চয়।

এসময় তিনি ইকোসিস্টেম বজায় রাখতে পদ্মার চরে দেশের সর্বশ্রেষ্ঠ পাখির অভয়াশ্রম গড়ে তুলতে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।



উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রীকে জানানো হয়, সামাজিক বন বিভাগের আওতায় বৃহত্তর রাজশাহী জেলায় সাত হাজার কিলোমিটার স্ট্রিপ বাগান ও ৩ হাজার ৭০০ হেক্টর ব্লক বাগান সৃষ্টি করা হয়েছে। এছাড়া এখন পর্যন্ত প্রায় ২ হাজার ৮০০ উপকারভোগীকে ১৫ কোটি ১৫ লাখ ৭৩ হাজার টাকা শেয়ার হিসেবে বিতরণ করা হয়েছে। 

রাজশাহী জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় সামাজিক বন বিভাগ এই বৃক্ষ মেলার আয়োজন করেছে। মেলায় বিভিন্ন ধরনের ফলজ, বনজ, ওষুধি, বিরল প্রজাতির ৪৩টিরও বেশি বৃক্ষের স্টল রয়েছে। উদ্বোধনের পর প্রতিমন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৃক্ষ মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।

অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বনায়ন কর্মসূচির কয়েকজন উপকারভোগী সদস্যের মাঝে শেয়ারের অর্থ বিতরণ করেন। পরে স্থানীয় শিল্পীরা মনোজ্ঞ নৃত্যানুষ্ঠান পরিবেশন করেন।

এর আগে বৃক্ষরোপণ অভিযান শুরু উপলক্ষে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি মহানগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্ট ও মনিচত্বর হয়ে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের গ্রিন প্লাজায় গিয়ে শেষ হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজশাহীর ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান শাহরিয়ার ফিরোজের সভাপতিত্বে রাজশাহীর অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মুনির হোসেন, সামাজিক বনাঞ্চল বগুড়ার বন সংরক্ষণ ড. লস্কর মাসুদুর রহমান, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আজহার আলী ও রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা অতিদ কুমার রূদ্র বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৯ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৪

রেলের বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তাকে বদলি
পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনের পাওয়ারকারে আগুন
ঢাকা-সিলেট ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক
৯ ঘণ্টা পর কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু
ত্রিপুরা-আসামে এখনই সিএএ চালু না করার নির্দেশ আদালতের


শেষ রক্ষা হলো না অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের
কমছে সবজির দাম
স্বস্তিতে সবজি, চড়া মাছ-মসলা-চালের বাজার
শীতেও মিলছে ইলিশ, ফিরেছে ২০ বছর আগের হারানো মৌসুম
ছোটপর্দায় আজকের খেলা