চর্বি সবসময় ক্ষতিকর নয়!

201 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
বিজ্ঞানীরা বলছেন, মেরু ভল্লুক যে ধরনের উচ্চ চর্বিযুক্ত খাবার খায় তা কোনো মানুষ খেলে নিশ্চিত হার্ট অ্যাটাক করতো। কিন্তু মেরু অঞ্চলের এ প্রাণিটি এসব খাবার খেয়ে টিকে আছে কিভাবে? নতুন একটি গবেষণায় এ প্রশ্নের জবাব পাওয়া গেছে।

ঢাকা: বিজ্ঞানীরা বলছেন, মেরু ভল্লুক যে ধরনের উচ্চ চর্বিযুক্ত খাবার খায় তা কোনো মানুষ খেলে নিশ্চিত হার্ট অ্যাটাক করতো। কিন্তু মেরু অঞ্চলের এ প্রাণিটি এসব খাবার খেয়ে টিকে আছে কিভাবে? নতুন একটি গবেষণায় এ প্রশ্নের জবাব পাওয়া গেছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, ভল্লুকের কোষে এমন এক ধরনের বিবর্তিত জিন আছে যা উচ্চ চর্বিযুক্ত বিশেষ খাবার খেলেও দেহের কোনো ক্ষতি করতে পারে না। ভল্লুক সাধারণত সিল ও ব্লুব্বার জাতীয় সামুদ্রিক প্রাণী বেশি খেয়ে থাকে। এ দুটি প্রাণীর মাংসে প্রচুর পরিমাণে চর্বি রয়েছে।

৮ মে বিজ্ঞানবিষয়ক জার্নাল ‘সেল’ এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন ছাপে। সেখানে মেরু ভল্লুক ও বাদামি ভল্লুকের মধ্যে যে যথেষ্ট মিল আছে এবং মোটামুটি একই সময়ে তাদের পৃথিবীতে আসা সেটি উঠে আসে।

গবেষণা টিমের নেতৃত্ব দিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার বিবর্তন জীববিজ্ঞানী রাসমাস নেলসন। গবেষণায় তারা গ্রিনল্যান্ড থেকে সম্পূর্ণ জেনোমোর ৭৯টি মেরু ভল্লুক এবং বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে ১০টি বাদামি ভল্লুকের ওপর গবেষণা চালান। গবেষকরা আবিষ্কার করেছেন এই দুই প্রজাতির ভল্লুক একই জাত থেকে ৫ লক্ষ বছর আগে জন্ম। আগে বলা হয়েছিল ৫০ লক্ষ বছর।

গবেষণায় দেখা গেছে, বাদামি ভল্লুক থেকে আলাদা হওয়ার পর থেকে মেরু ভল্লুকের জিন পরিবর্তন হয়ে যায়। আর এ জিন হার্টের কার্যকারিতা ও ফ্যাটি অ্যাসিডের মেটাবলিজম ধরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

মেরু ভল্লুকের চর্বিযুক্ত খাবার গ্রহণের পর জিনের এমন অদ্ভূত পরিবর্তন আগে দেখা ধরা পড়েনি। এখন মানুষের হার্ট অ্যাটাকের জেনেটিক কারণ খতিয়ে দেখতে গবেষকরা পরামর্শ দিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৩১০ ঘণ্টা, মে ১১, ২০১৪

বৃহস্পতিবার ঢাকাবাসীকে ইভিএমের ব্যবহার শেখাবে ইসি
বিএনপির ভোট করার অভ্যাস নেই: আইনমন্ত্রী 
পিকআপভ্যানের মুরগির খাঁচা থেকে গাঁজা জব্দ, আটক ৩
ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট খেলতে নেমে শাস্তি পেলেন ফিল্যান্ডার
‘নির্দেশ মানতে গিয়ে মার খেতে হয়েছে’


সিলেটে বাসচাপায় বৃদ্ধ নিহত
ওয়ারীতে শ্রমিকদল নেতা গুলিবিদ্ধ
মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী হত্যা মামলায় ৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ
‘করোনা ভাইরাস রোধে প্রবেশদ্বারে স্ক্যানার বসানো হয়েছে’
‘ধর্ম ব্যবহার করে কেউ যেনো সাম্প্রদায়িকতা না ছড়ায়’