ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯

রাসেল ঝড়ে চট্টগ্রামের স্বপ্নভঙ্গ, ফাইনালে রাজশাহী

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪১৯ ঘণ্টা, জানুয়ারী ১৬, ২০২০
রাসেল ঝড়ে চট্টগ্রামের স্বপ্নভঙ্গ, ফাইনালে রাজশাহী

ঢাকা: ফাইনালে উঠতে হলে জিততেই হবে ম্যাচ। এমন সমীকরণ সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে মাঠে নামে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও রাজশাহী রয়্যালস। আর ম্যাচে আন্দ্রে রাসেলের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে চট্টগ্রামকে ২ উইকেটে হারিয়ে বিপিএলের ফাইনাল ওঠে রাজশাহী। আগামী শুক্রবারের (১৭ জানুয়ারি) ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ খুলনা টাইগার্স।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে ক্রিস গেইলের অর্ধশতকে ৯ উইকেটে ১৬৪ রান করে চট্টগ্রাম। জবাবে ব্যাট করতে নেমে আন্দ্রে রাসেলের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ৪ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় রাজশাহী।

১৬৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে রাজশাহী। আফিফ হোসেন ২ রান করে রুবেলের বলে, আর লিটন দাস ৬ রান করে রান আউট হলে ১৪ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারায় রাজশাহী।

এরপর অলোক কাপালি ৯ রান করে বিদায় নিলে ৩৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে রাজশাহী। ইরফান শুক্কর ও শোয়েব মালিক চতুর্থ উইকেট জুটিতে চাপ সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে শোয়েব মালিক ১৪ রান করে জিয়ার বলে আউট হন। স্কোরবোর্ডে রান তখন ৪ উইকেটে ৮০।

৪৫ রান করা ইরফান শুক্কর মেহেদী হাসান রানার বলে আউট হন। মোহাম্মদ নেওয়াজ (১৪), ফরহাদ রেজা (৬) ও কামরুল ইসলাম রাব্বি (০) একে একে বিদায় নিলে রাজশাহীর জয়ের আশা শেষ হয়ে যায়।

তবে একপ্রান্ত আগলে ছিলেন আন্দ্রে রাসেল। রাজশাহীর ম্যাচ জয়ে শেষ আশায় আলো হয়েছিলেন তিনি। জয়ের জন্য ওভারপ্রতি ১৭ রান করে তুলতে হবে। এ অবস্থায় জয়ের প্রদীপটা জ্বালিয়ে রাখেন এই ক্যারিবীয়। জয়ের জন্য শেষ দুই ওভারে রাজশাহীর প্রয়োজন ছিল ৩১ রান। চট্টগ্রামের রানার করা ১৯তম ওভারে ২৩ রান তুলে ম্যাচ হাতের মুঠোয় নিয়ে আসেন রাসেল। ২২ বলে ৫৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে ৪ বল হাতে রেখে রাজশাহীকে অবিশ্বাস্য এক জয় এনে দেন এ অলরাউন্ডার।   

২২ বলে ২টি চার ও ৭টি বিশাল ছয়ের সাহায্যে ৫৪ রানে আপরাজিত ছিলেন রাসেল। এমরিত ও রুবেল ২টি এবং রানা মাহমুদউল্লাহ ও জিয়া ১টি করে উইকেট নেন।

এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ক্রিস গেইলের ব্যাটে ভালো সূচনা পায় চট্টগ্রাম। জিয়াউর রহমান ৬ ও ইমরুল কায়েস ৫ রান করে আউট হলেও গেইল ঠিকই ঝড়োগতিতে ব্যাট করতে থাকেন। ২১ বলে অর্ধশতক তুলে নিয়ে বড় ইনিংস খেলার আভাস দেন।

তবে গেইল এরপর আর ইনিংস বড় করতে পারেননি। ২৪ বলে ৬০ রান করে দলীয় ৯৭ রানের মাথায় আউট হন গেইল। ৬টি চার ও পাঁচটি ছয়ের সাহায্যে গেইল এই রান করেন। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৫২ রান আসে গেইল-মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ১৮ বলে ২৩ রান করে বিদায় নেন দলীয় ১১৩ রানের মাথায়। এরপর রাজশাহীর নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে সুবিধা করতে পারেনি চট্টগ্রাম। আসিলা গুনারত্নে ২৫ বলে ৩১ রানের ইনিংস খেললে চট্টগ্রামের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯ উইকেটে ১৬৪ রান।

রাজশাহীর মোহাম্মদ ইরফান ও মোহাম্মদ নেওয়াজ ২টি এবং কামরুল ইসলাম রাব্বি, আফিফ হোসাইন ও অলোক কাপালি ১টি করে উইকেট নেন। আন্দ্রে রাসেল ম্যাচ সেরা হয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২৩১৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০২০
আরএআর/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa