মাশরাফির ঢাকাকে হারিয়ে শীর্ষেই রইল চট্টগ্রাম

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা পর্ব শেষে বঙ্গবন্ধু বিপিএল গিয়েছিল বন্দরনগরী চট্টগ্রামে। শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) আবারও শুরু হয়েছে ঢাকা পর্ব। চলতি আসরের ২১তম ম্যাচে মিরপুরে মুখোমুখি হয় মাশরাফির ঢাকা প্লাটুন এবং ইমরুল কায়েসের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

মাশরাফি-তামিম-আফ্রিদি-পেরেরাদের ঢাকাকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে ইমরুল-সিমন্সদের চট্টগ্রাম। আট ম্যাচের ৬টিতে জেতা চট্টগ্রাম ১২ পয়েন্ট নিয়ে আছে টেবিলের শীর্ষে। ঢাকা নিজেদের ৭ ম্যাচের চারটিতে জিতে তুলেছে ৮ পয়েন্ট।

টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন চট্টগ্রামের দলপতি ইমরুল। ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে মাশরাফির দল তোলে ১২৪ রান। জবাবে, ১৮.৪ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে চট্টগ্রাম।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালোই করেছিলেন ঢাকার দুই ওপেনার তামিম ইকবাল আর এনামুল হক বিজয়। তারা ৩২ রানের জুটি গড়েন। ১৩ বলে ১৪ রান করে ফেরেন বিজয়। আর ২৭ বলে ২১ রান করে ফেরেন তামিম।

তিন নম্বরে নামা মেহেদি হাসান কোনো রান পাননি। চার নম্বরে নেমে মুমিনুল ৩৪ বলে ৩২ রান করেন। জাকের আলি ৩, শহিদ আফ্রিদি ০, শাদাব খান ০, থিসারা পেরেরা ৬ রান করেন। ওয়াহাব রিয়াজ আর মাশরাফি ১৯ বলে ৩১ রানের জুটি গড়েন। রিয়াজ ১৫ বলে করেন ২৩ রান। ১২ বলে ১৭ রান করে অপরাজিত থাকেন মাশরাফি।

চট্টগ্রামের রায়ান বার্ল ১ ওভারে ১ রান দিয়ে তুলে নেন দুটি উইকেট। ৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে দুটি উইকেট পান মুক্তার আলি। ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে একটি উইকেট তুলে নেন নাসুম আহমেদ। ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে একটি উইকেট পান লিয়াম প্লাংকেট। রুবেল হোসেন ৩ ওভারে ২৭ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। মেহেদি হাসান রানা ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি।

ছবি: বাংলানিউজ১২৫ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে চট্টগ্রামের ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দীকি ব্যক্তিগত ৮ রানে বিদায় নেন। আরেক ওপেনার লেন্ডল সিমন্স ১২ বলে করেন ১৫ রান। চ্যাডউইক ওয়ালটন ১৬ বলে একটি চার আর তিনটি ছক্কায় ২৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন। রায়ান বার্ল ১৬ বলে করেন ১৩ রান।

দলপতি ইমরুল কায়েস ৫৩ বলে ৫টি চার আর দুটি ছক্কায় ৫৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৫ রানে অপরাজিত থাকেন নুরুল হাসান সোহান।

ঢাকার দলপতি মাশরাফি ৪ ওভারে ১৪ রান দিয়ে তুলে নেন একটি উইকেট। মেহেদি হাসান ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে পান একটি উইকেট। ওয়াহাব রিয়াজ ৩.৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে পান দুটি উইকেট। শহীদ আফ্রিদি ২ ওভারে ১১ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। থিসারা পেরেরা ১ ওভারে ১৮ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৯
এমআরপি

নৌযানে যাত্রী কম, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি
বেসরকারি খাতকে সহায়তা করতে অর্থায়ন বাড়িয়েছে এডিবি
তাদের কণ্ঠে করোনাকালীন গান ‘যখন যুদ্ধে আছি’
নীলফামারীতে নতুন করোনা পজেটিভ ১৭ জন
মালিঙ্গাকে পাশে পেলেন নিষিদ্ধ লঙ্কান পেসার মাদুশঙ্কা


সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন চলছে
ওয়ালটন এসিতে বিদ্যুৎ খরচ ঘণ্টায় মাত্র ৩.৭৪ টাকা
করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে একজনের মৃত্যু
কোভিড-১৯ থেকে বাঁচতে নিকোটিন!
লিফট-সিড়ি থেকেও হতে পারে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ!