ঢাকা, শুক্রবার, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ রজব ১৪৪২

শিল্প-সাহিত্য

করোনা আমার লেখা থামিয়ে রাখতে পারেনি: ড. আতিউর রহমান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১
করোনা আমার লেখা থামিয়ে রাখতে পারেনি: ড. আতিউর রহমান

ঢাকা: বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেছেন, গত এক বছর আমি অনেক লিখেছি। কত লিখেছি আমি নিজেও বলতে পারি না।

করোনায় সবাইকে থামিয়ে রাখলেও, আমার লেখা থামিয়ে রাখতে পারেনি।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর বাংলা মোটরের উন্নয়ন সমন্বয় অডিটোরিয়ামে ‘ওরে মন, হবেই হবে: বঙ্গবন্ধু, রবীন্দ্রনাথ ও সমকালীন বাংলাদেশ’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।  

ড. আতিউর রহমান বলেন, আমি গত এক বছর ধরে নিরন্তর লিখছি। কত যে লিখছি আমি নিজেই জানি না। প্রতিনিয়তই লিখছি। করোনা মহামারি আমাকে আটকে রেখেছিল। কিন্তু মনের দিক থেকে আটকাতে পারেনি। আমি সর্বক্ষণ চিন্তা করেছি, ভেবেছি ও লেখেছি।

তিনি বলেন, অর্থনীতি নিয়ে লিখছি আর বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নিরন্তর লিখছি। সেই লেখাগুলোর একটি অংশ নিয়ে আজকে বই বের হলো। আরও কয়েকটি বই বের হতে যাচ্ছে। শুধুমাত্র করোনাকালীন অর্থনীতি নিয়ে যে সমস্ত লেখা লিখছি। সেই লেখাগুলো নিয়ে আরও একটি বই বের হচ্ছে তার নাম হলো করোনা কালের অর্থনীতি। খুব শিগগিরই বইটি বের হবে।

সাবেক গভর্নর ড. আতিউর বলেন, আমি সারা জীবন কাজ করেছি অর্থনীতি নিয়ে। অর্থনীতির মতো বিষয়টাকে পাঠকের কাছে সহজ করে তুলে ধরার চেষ্টা আমার বহুদিনের। আমার অর্থনীতি অনেক সময় অনেকের কাছে সাহিত্য হতে পারে।  

তিনি বলেন, বইটি আমি উৎসর্গ করেছি আমার শহীদ বন্ধু খুরশীদ আলীকে। খুরশিদ আমার ক্যাডেট কলেজের বন্ধু। আমার মতো এক সাধারণ পরিবার থেকে তিনি গিয়েছিল কলেজে। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে তিনি শহীদ হন। হয়তো তার কথা কেউ মনে রাখেনি। সেই জন্য আমার বইতে তার নাম খোদাই করে রাখলাম।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত  ছিলেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান, সমাজতাত্ত্বিক ও গবেষক খন্দকার সাখাওয়াত আলী, বাংলাপ্রকাশ কনসালটেন্ট রহিম শাহ, সোনালী ব্যাংক পরিচালক ও  এক্সপার্টস একাডেমি এমডি ইশতিয়াক চৌধুরী প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১
এমএমআই/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa