নভেম্বরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলা

দীপন নন্দী, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বইমেলার একটি স্টলের ফাইল ছবি

walton

ঢাকা: বইপ্রেমীদের জন্য সুখবর। এবার বাংলাদেশে বসতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক বইমেলা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে চলতি বছরের নভেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত হবে ‘বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলা’। যাতে বিশ্বের ২৫টিরও বেশি দেশের অংশগ্রহণ থাকবে।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলার আয়োজন করবে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়। ২০২০ সাল থেকে শুরু হতে যাওয়া আন্তর্জাতিক এ বইমেলা প্রতিবছর করারও পরিকল্পনা রয়েছে মন্ত্রণালয়ের।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, নভেম্বরের ২২ থেকে ২৮ তারিখ পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলা বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। একই সঙ্গে বাংলা একাডেমির আয়োজনে সে সময় আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলনও অনুষ্ঠিত হবে।

নভেম্বর মাসে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে এরইমধ্যে একটি কমিটি গঠন করেছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়। যার আহ্বায়ক হিসেবে রয়েছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও সদস্য-সচিব হিসেবে থাকছেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলার বিষয়ে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমরা আনন্দের সঙ্গে জানাতে চাই, ২২ থেকে ২৮ নভেম্বর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে। একটি পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক বইমেলা বলতে যা বোঝায়, এ মেলা তেমনই হবে। যাতে বাংলাদেশের প্রকাশনীর পাশাপাশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রকাশকরা অংশ নেবেন। এর ফলে বিশ্ব সাহিত্যের সঙ্গে বাংলাদেশের সাহিত্যের একটি মেলবন্ধন ঘটবে।’

‘বইমেলার পাশাপাশি বাংলা একাডেমি একই সময় আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলনেরও আয়োজন করবে। যাতে বিশ্বের খ্যাতনামা সাহিত্যিকরা অংশ নেবেন।’

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বইমেলার আয়োজনের জন্য সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলার আয়োজক পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ডের সহায়তা ও পরামর্শ চেয়েছে।

এ বিষয়ে পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশু শেখর দে বাংলানিউজকে বলেন, এ বিষয়ে গত নভেম্বরে আমাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো বাংলাদেশকে এ আয়োজন করার জন্য।

জানা গেছে, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ মেলা আয়োজনের জন্য আন্তর্জাতিক পাবলিশার্স অ্যাসোসিয়েশনের অনুমোদন চেয়ে আবেদন জানিয়েছিলো। এ সংস্থাটিই আন্তর্জাতিক বইমেলার জন্য দিন নির্দিষ্ট করে। তাদের কাছ থেকে ২২ থেকে ২৮ নভেম্বর তারিখটি পাওয়া গেছে এবং এর পর থেকে প্রতি বছর এ সময়েই এ আন্তর্জাতিক বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে চলে অমর একুশে গ্রন্থমেলা। অমর একুশে চেতনাবহনকারী এ মেলায় শুধুমাত্র বাংলাদেশি প্রকাশকরা অংশ নেন। এর পাশাপাশি জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হতো ঢাকা বইমেলা। ১৯৯৫ সালে শুরু হওয়া এ মেলা ২০০৮ সাল থেকে ঢাকা আন্তর্জাতিক বইমেলা হিসেবে পরিচিতি পায়। কিন্তু ২০০৯ সালের পর এ মেলা আর অনুষ্ঠিত হয়নি।

তবে এ আন্তর্জাতিক বইমেলা কখনই জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারেনি এবং ‘আন্তর্জাতিক’ শব্দটি শুধু তকমা হিসেবেই ছিলো। ২০০৮ সালের ঢাকা আন্তর্জাতিক বইমেলায় অংশ নেয় ১২টি প্রতিষ্ঠান। ২০০৯ সালে এ সংখ্যা কমে দাঁড়ায় পাঁচটিতে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৪৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০
ডিএন/জেডএস

হেরোইনসহ গ্রেপ্তারের পর ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ লঙ্কান পেসার
নদীর পাড়ে ঈদ বিনোদন
হবিগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আটক ৪
জেনারেল হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু
শুধু সাধারণ জীবাণু নয়, করোনা রুখতেও মাউথওয়াশ!


আনোয়ারা রাব্বীর মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক
পালানোর চেষ্টা করোনা রোগীর, ধরে হাসপাতালে পাঠালো পুলিশ
মঠবাড়িয়ায় তরুণীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় যুবক গ্রেফতার
ঈদের দিনেও বিষোদগারের রাজনীতি থেকে বের হয়নি বিএনপি
ঈদেও থেমে নেই সিএমপির সদস্যরা