php glass

শেষ দিনে জনসমুদ্র, অতিরিক্ত ছাড়

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মেলায় বইপ্রেমীদের উপচেপড়া ভিড়, ছবি: ডিএইচ বাদল

walton

গ্রন্থমেলা প্রাঙ্গণ থেকে: শেষ হচ্ছে লেখক, প্রকাশক ও পাঠকদের মিলনমেলার অমর একুশে গ্রন্থমেলা। শেষ দিনে বইয়ের টানে এসেছে হাজারও মানুষ। কয়েকদিনের বৈরি আবহাওয়ায় নেওয়া হয়নি পছন্দের বই।

বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৩ টায় দ্বার উন্মুক্ত হওয়ার কথা থাকলেও দুপুর দুইটার পর থেকেই বইপ্রেমীদের লাইনে দাড়াতে দেখা যায়। সব বয়সী মানুষের পদচারণায় লোকারণ্য হয়ে ওঠেছে গ্রন্থমেলার উভয় প্রাঙ্গণ।

স্টলে স্টলে উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। তালিকা করে আনা বইয়ের খোঁজ করছেন তারা। তথ্য কেন্দ্র থেকে পছন্দের লেখকের বইয়ের প্রাপ্তিস্থান জিজ্ঞেস করছেন অনেকেই।

সেখানে রকিব হাসানের উপন্যাস কোথায় পাওয়া যাবে বলে জিজ্ঞেস করছিলেন উত্তরা থেকে আসা হাবিবুর রহমান। পরে তাম্রলিপি প্রকাশনী থেকে ছেলের জন্য নিলেন কাঙ্ক্ষিত বই।

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, আজকে গ্রন্থমেলা শেষ হচ্ছে। দূরত্বের কারণে আসব আসব বলেও আসা হয়নি। অনেক বই কেনার ইচ্ছা আছে।

এদিকে শেষ দিনে নির্দিষ্ট ছাড়ের বাইরে অতিরিক্ত ছাড়ে বই বিক্রি করছে অনেক প্রকাশনী। বেশি বিক্রির মাধ্যমে বৃষ্টিতে ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে তারা। 

আদিত্য অনিক, বলাকা, ইন্তামিন প্রকাশনীর বিক্রয়কর্মীরা জানান, আমরা চাই পাঠকরা বইয়ে আরও আগ্রহী হয়ে ওঠুক। নির্দিষ্ট পরিমাণ ছাড়ের বাইরেও কিছু বইয়ে ছাড় দিচ্ছি।

সব মিলিয়ে বেশ জমজমাট বইমেলা। রাত সাড়ে নয়টায় পর্দা নামবে বাঙালির এ প্রাণের উৎসবের।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৯
এসকেবি/ওএইচ/

তুরস্কের রুশ অস্ত্র কেনা নিয়ে দ্বিমতে ট্রাম্প-এরদোগান
সবার জান-মালের হেফাজত করা আমাদের কর্তব্য: শ ম রেজা
জেএসসির কেন্দ্রের পাশে ড্রাইভিং লাইসেন্সের পরীক্ষা!
সব স্থাপনা থেকে স্বাধীনতাবিরোধীদের নাম বদলের নির্দেশ
ফিফার নতুন দায়িত্বে ‘দ্য প্রফেসর’ ওয়েঙ্গার


ডায়াবেটিস আক্রান্তের জন্য ডায়েট
বগুড়ায় শিল্প যন্ত্রপাতি ও উৎপাদন সরঞ্জাম প্রদর্শনী
অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি, ২ বেকারিকে জরিমানা
সিগন্যাল মানার গরজ নেই যানবাহন চালক ও পথচারীদের
চলন্ত বাসে হার্ট অ্যাটাকে চালকের মৃত্যু