php glass

বৃষ্টিস্নাত বইমেলায় ‘ডুবলো’ প্রকাশকরা

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে ছাউনির তলে আশ্রয় নিয়েছেন বইমেলায় আগতরা

walton

বইমেলা প্রাঙ্গণ থেকে: সারাদিনের ঝিরিঝিরি বৃষ্টির পর হিমেল হাওয়ায় বেলা তিনটায় যথারীতি শুরু হয় বুধবারের বইমেলা। মেলার ২৭তম দিনের শুরু থেকেই লেখক, পাঠক ও দর্শনার্থীদের উপস্থিতিও ছিলো উল্লেখ করার মতোই।

তবে ঘণ্টা পেরুতে না পেরুতেই বইমেলায় হানা দেয় বৃষ্টি। এতে কপাল পুড়েছে প্রকাশক-বিক্রেতাদের। মেলা শেষের আগের দিন ভালো বিক্রির প্রত্যাশা বৃষ্টিতে ধুয়ে গেলো তাদের।

কুষ্টিয়া থেকে বইমেলায় এসেছেন জসিম উল্লাহ আল হামিদ। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, প্রথম থেকেই মেলায় আসার ইচ্ছে ছিলো। তবে আসতে এবার একটু দেরিই হয়ে গেছে! ভালো লাগছে যে, প্রাণের মেলায় আসতে পেরেছি। কিন্তু বৃষ্টির কারণে জমজমাট বইমেলা এবার আর দেখা হলো না।

বইমেলায় বৃষ্টির বাগড়া প্রসঙ্গে ইন্তামিন প্রকাশনীর প্রকাশক এসএম ইউনূস বলেন, গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে এমনিতেই বেশ ক্ষতি হয়েছে। আজকের বৃষ্টিতে সেই ক্ষতিটা আরো বেড়ে যাবে।

এদিকে বইমেলা প্রাঙ্গণে বৃষ্টি উপভোগ করতেও মুখিয়ে আছেন কেউ কেউ। বইমেলার প্রিয় প্রাঙ্গণে একটি বারের জন্য হলেও বৃষ্টিস্নান করতে চান তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯
এসকেবি/এমজেএফ

কুষ্টিয়ায় ধর্ষণ ও মাদক মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন
ময়মনসিংহে সেরা করদাতা সম্মাননা পেলেন ৪২ জন
ফুটপাতের পিঠাপুলি ডেকে আনছে শীত
পানির পাম্পের চালানে ৩৭ টন কসমেটিকস বন্দরে!
রাঙ্গার বক্তব্যের জবাব জনগণ দেবে: ড. কামাল


'জামিন পেলে চিকিৎসা নিতে বিদেশ যাবেন খালেদা জিয়া'
শ্রীমঙ্গলে মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যপণ্য বিক্রির দায়ে জরিমানা
এমবাপ্পের জন্য ৪০০ মিলিয়ন ইউরো অফার করবে রিয়াল!
বিত্তবানরা দলকে পৈতৃক সম্পত্তিতে পরিণত করছেন: নাছির
ডোবা থেকে নবজাতকের মরদেহ টেনে তুললো কুকুর