বেহালার সুর ও ওয়াফিয়া রহমানের শাস্ত্রীয় শিল্পের মুগ্ধতা

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নৃত্য পরিবেশন করছেন অনন্যা ওয়াফিয়া রহমান। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ঝলমলে আলোয় আলোকিত মঞ্চ। পিনপতন নীরবতা সমগ্র মিলনায়তনজুড়ে। সেই নীরবতায় ভেসে এলো বেহালার সুর। মোহনীয় সেই সুরের সঙ্গে কত্থক নাচের নান্দনিকতায়  মুগ্ধতা ছড়ালেন নৃত্যশিল্পী অনন্যা ওয়াফিয়া রহমান।

শুক্রবার (২০ জুলাই) শাস্ত্রীয় নাচের শৈল্পিকতায় শ্রাবণ সন্ধ্যাকে অনন্য করে তোলেন কত্থক নাচের জনপ্রিয় এ শিল্পী। ‘নৃত্যমঞ্চ’ ও শাস্ত্রীয় পরিষদের যৌথ আয়োজনে সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় এ নৃত্য আসর।

লাক্ষ্মৌ ঘরানার ভাব প্রধান মীরা ভজনের মধ্য দিয়ে নিজের পরিবেশনা শুরু করেন শিল্পী। নাচের মধ্যমে তুলে ধরেন মীরার প্রেম ও ভক্তি। এরপর ত্রিতাল, ধামার, ঝাঁপতাল, ঠাট, আমোদ, টুকরা, পরন, গৎভাও এবং তেহাই দ্রুত লয়ের পরিবেশনায় মঞ্চে নাচের দ্যুতি ছড়িয়ে দেন শাস্ত্রীয় নাচের এ তপস্বী।

শাস্ত্রীয় নৃত্যের এ আসরে বিলম্বিত লয়ের বন্দনায় গোটা মিলনায়তনে সাধনার পরিবেশ সৃষ্টি করেন শিল্পী। দ্রুত লয়ে ‘তারানা’য় পায়ের কাজে অভিব্যক্তি প্রকাশের মধ্যে দিয়ে শেষ হয় পরিবেশনা। এসময় পুরো আয়োজন জুড়ে শিল্পীকে বেহালায় সঙ্গত করেন মাহমুদুল হাসান।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০১৮
এইচএমএস/এনএইচটি

চট্টগ্রামে জনসভা করতে চায় ঐক্যফ্রন্ট
মানহানির দুই মামলায় ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন
চসিকের বর্জ্যে ২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ 
২৩তম অধিবেশন শুরু, চলবে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত
সিলেটে বিএনপির কালো পতাকা মিছিল
জাতীয় ঐক্য গঠন নিয়ে সরকার বিচলিত
সোনাইমুড়ীতে অস্ত্র-গুলিসহ আটক ৩
ওয়াটার বাংলাদেশ এক্সপো শুরু ২৫ অক্টোবর
চক্ষু শিবির: ১৭ জনকে ১০ লাখ টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ
শেহলাবুনিয়ায় চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ফাদার রিগন