php glass

আগরতলায় বন্যার্তদের পাশে ৪৬ আশ্রয়কেন্দ্র

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আশ্রয়কেন্দ্রে গরুকে খাবার দিচ্ছেন একজন নারী। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা): টানা তিনদিনের ভারী বর্ষণে ত্রিপুরার আগরতলায় বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। প্লাবিত হয়েছে রাজ্যের রাধানগর, শ্রীলঙ্কা বস্তি, প্রতাপগড়, সুভাষনগর, টাউন প্রতাপগড়, বনমালীপুর, ছন্দ্রপুর, কাশীপুর, বলদাখাল, খয়েরপুর, বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী জয়পুরসহ বেশ কয়েকটি এলাকা। ডুবে গেছে বাড়িঘর ও সড়ক। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা।

 

এদিকে রাজ্যের হাওড়া, গোমতী, দেও, ধলাই, মনু, খোয়াইসহ অন্যান্য নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) রাজ্যের আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাস বলছে, শনিবার (২০ জুলাই) পর্যন্ত রাজ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বন্যা কবলিত এলাকা থেকে লোকজন সরিয়ে রাজধানীর মহাত্মা গান্ধী স্কুল, রামঠাকুর গার্লস স্কুল, রাধামাধব মন্দিরসহ অপেক্ষাকৃত উঁচু এলাকার স্কুলগুলোতে পাঠানো হয়েছে। তাদের মহকুমা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খাবার, বিশুদ্ধ পানি, শিশুদের জন্য দুধ-খাবারসহ প্রয়োজনীয় ওষুধ সরবারহ করা হচ্ছে। পাশাপাশি কেন্দ্রে গবাদি পশু রাখাও ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর মহাত্মা গান্ধী স্কুল, রামঠাকুর স্কুলসহ আশপাশের আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন সদর মহকুমা শাসক অফিসের তশিলদার আবির দাশ।

তিনি বলেন, আশ্রয়কেন্দ্রে মানুষের কোনো ধরনের সমস্যা যাতে না হয় এজন্য কড়া নজর রাখা হচ্ছে। তাদের ভাত, ডাল, সবজি, ডিমসহ শিশু খাদ্য দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য দফতরের কর্মীরা এসে ওষুধ দিচ্ছেন। সরকারের পাশাপাশি বন্যার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং শাসকদল বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৬ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১৯
এসসিএন/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আগরতলা
ksrm
গ্রাহকের কাছে ওয়াসার পাওনা ৭৬ কোটি টাকা
নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও রাতে চলছে স্পিডবোট
শিবচরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গৃহবধূর মৃত্যু
কোহলি-রাহানের ফিফটিতে বড় লিডের পথে ভারত
রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিতের দায় নেবে না বাংলাদেশ


নতুন ভোটাররা সহসা স্মার্টকার্ড পাচ্ছেন না
‘প্রেসিডেন্টের টেবিলে’ পা তুলে সমালোচনায় জনসন
মহাকাশে গিয়েও জোচ্চুরি!
রোববার মাহী বি-তার স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুদক
ব্লেন্ডার ভরা সাড়ে ৩ হাজার ইয়াবা, আটক ১