php glass

‘প্রথম’র চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ

রিফাত আনজুম, স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

কলকাতা থেকে: ইডেন গার্ডেনসে ঢুকলেই মনে হবে নতুন কোনো স্টেডিয়ামে আসলেন আপনি। সব কিছুই সাজানো গোছানো। গোলাপি আভার ছটা রয়েছে স্টেডিয়ামের পরতে পরতে। এখানেই যে রচিত হচ্ছে বাংলাদেশের ইতিহাস। দিবারাত্রির প্রথম টেস্টে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

ফ্লাডলাইটের কৃত্রিম আলো আর গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জে নাম লেখাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আগামীকাল (শুক্রবার, ২২ নভেম্বর) ইডেনে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় শুরু হতে যাচ্ছে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। যদিও ফ্লাডলাইট ও গোলাপি বলের আলোচনায় অনেকে ভুলেই যাচ্ছেন দুই ম্যাচ সিরিজের এই শেষ ম্যাচ দিয়ে ভারত সফর শেষ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ইন্দোর টেস্ট জিতে এরই মধ্যে টিম ইন্ডিয়া ১-০ তে লিড নিয়ে রেখেছে।

প্রথম টেস্টে শোচনীয় পরাজয়ের পর ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া বাংলাদেশ। তবে গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জটা বেশি। প্রথম টেস্টে ব্যাটসম্যানরা পুরোপুরি ব্যর্থ। দ্বিতীয় টেস্টে তাই ব্যাটসম্যানদের ওপরই চাপ থাকবে বেশি।

সম্প্রতি ভারতের পারফরম্যান্সই বলে দেয় সফরকারীদের জন্য কঠিন সময় অপেক্ষা করছে। অতীত পারিসংখ্যানের দিকে তাকালে বাংলাদেশের নাম খুঁজে পাওয়াই দুস্কর হয়ে দাঁড়াবে। টেস্ট জয় তো দূরের কথা, বড় বড় পরাজয়ই চোখে পড়বে। তাই পরিসংখ্যানের দিকে না তাকিয়ে মাঠের ক্রিকেটের দিকেই মনযোগী হওয়া বাঞ্চনীয়।

গোলাপি বলে টেস্ট খেলার আগে যেভাবে নিজেদের প্রস্তুত করার দরকার সেই সময়টা পায়নি বাংলাদেশ। ইন্দোর টেস্ট দুদিন আগেই শেষ হওয়াতে মোটে কয়টা দিন বেশি পেয়েছে মুমিনুলরা। তবু গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জে নেমে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ইমরুল, সাদমান, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিক, লিটনদের নামের প্রতি সুবিচার করাটাই এখন মূখ্য বিষয়। ইডেনের পিচ কিউরেটর কিন্তু বলেই দিয়েছেন, খেলতে পারলে ব্যাটসম্যান-বোলার সবাই সুবিধা পাবেন উইকেট থেকে।

বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) ফ্লাডলাইটের আলোতে অনুশীলন করেছে মুশফিক-মাহমুদউল্লা-লিটনরা। গোলাপি বলে রাতে নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছেন শেষবার। তবে প্রথম টেস্টে অভিজ্ঞতা থেকে টাইগাররা কতটুকু শিক্ষা নিয়েছে সেটাই দেখার বিষয়। ব্যাটসম্যানরা যে কঠিন পরীক্ষার মুখে পরতে যাচ্ছেন সেটা আর বলার অপেক্ষাই রাখে না। গোলাপি বলে ব্যাটসম্যানদের জন্য অপেক্ষা করছে নতুন রোমাঞ্চের।

বাংলাদেশের সামনে থাকছে দুটি চ্যালেঞ্জ। একটি তো গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জ, অন্যটি শামি-শর্মাদের মতো পেসারদের মোকাবিলা করা। বাংলাদেশ দলপতি জানালেন, ‘ভারতের বোলারদের মোকাবিলা করাটাও চ্যালেঞ্জ আবার গোলাপি বলে খেলাটাও চ্যালেঞ্জ। তবে চ্যালেঞ্জটা ইতিবাচকভাবেই নেয়া উচিৎ। আমরা যেটা পজেটিভভাবেই নিচ্ছি। সেভাবেই এগোচ্ছি আমরা।’

এদিকে, অনেকটাই নির্ভার ভারতীয় ক্রিকেট দল। টেস্টের এক নম্বর দলটির চিন্তার থাকার কোনো কারণই নাই। মোহাম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মার মতো পেসারদের তোপে পুড়েছে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ।

ব্যাটিং লাইনআপে মায়াঙ্ক আগারওয়াল, চেতশ্বর পূজারা, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলিরা তো আছেনই। তাই ব্যাটিং নিয়ে কোনো ধরনের চিন্তা নেই। তবে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি অবশ্য একাদশে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছেন। কৌশলগত দিক দিয়েই ভারতের রণ কৌশল একটু ভিন্ন হবে।

বাংলাদেশে সময়: ২১৪৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০১৯
আরএআর/এমআরপি

টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছে কুমিল্লা
জাতীয় স্মৃতিসৌধে সাধারণের প্রবেশ বন্ধ ১২-১৫ ডিসেম্বর
নৌকার বিজয়ের জন্য ঘরে ঘরে যাবো: মেয়র নাছির
বেলারুশে রপ্তানি পণ্যের তালিকা পাঠানো হয়েছে: বাণিজ্যমন্ত্রী
অভুক্ত মুখগুলো জ্বলছে ক্ষোভের আগুনে


বেনাপোলে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক ১১ আসামি গ্রেফতার
বগুড়ায় মহাসড়কে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
সান্ধ্য কোর্স বন্ধসহ ১৩ নির্দেশনা ইউজিসি’র
প্রথম দিন শেষে লঙ্কানদের সংগ্রহ ২০২/৫
ইবিএইউবির সঙ্গে ইউআইটিএমের এমওইউ সই